মিনারেল ওয়াটার: টাকা দিয়ে ঝুঁকি পান!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢাকা শহরে বিশুদ্ধ পানি ব্যবসার নামে চলছে প্রতারণা। কোনো ধরনের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে এক শ্রেণীর ব্যবসায়ী শুধু অর্থ লোভে পড়ে গভীর নলকূপ কিংবা ওয়াসার পানিকেই চালিয়ে দিচ্ছে ‘মিনারেল ওয়াটার’ বা ‘ফিল্টার ওয়াটার’ বলে।

php glass

ঢাকা: ঢাকা শহরে বিশুদ্ধ পানি ব্যবসার নামে চলছে প্রতারণা। কোনো ধরনের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে এক শ্রেণীর ব্যবসায়ী শুধু অর্থ লোভে পড়ে গভীর নলকূপ কিংবা ওয়াসার পানিকেই চালিয়ে দিচ্ছে ‘মিনারেল ওয়াটার’ বা ‘ফিল্টার ওয়াটার’ বলে। অথচ ঝুঁকি এড়াতেই সাধারণ নাগরিকরা টাকা দিয়ে পান করছেন সেই কথিত পরিশোধিত পানি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, এসব নাম সর্বস্ব প্রতিষ্ঠানের নেই কোনো লাইসেন্স এবং উপযুক্ত পানি শোধনাগার। এমন অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেগুলো নামী-দামী প্রতিষ্ঠানের লেবেল ব্যবহার করে সরবরাহ করছে অবিশুদ্ধ পানি।

বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক ভেজালবিরোধী অভিযানে ২৭টি কোম্পানির পানি পরীক্ষা করে দেখা গেছে এর ২৪টির পানির সঠিক মান নেই। সেই সঙ্গে নেই লাইসেন্স।

এ ব্যাপারে ওই অভিযান পরিচালনাকারী ভ্রাম্যমান আদালতের প্রধান ঢাকা জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহম্মদ আল-আমীন বাংলানিউজকে বলেন, ‘ঢাকা শহরে মিনারেল ওয়াটারের নামে যে পানি বিক্রি করা হয় তার মান নিয়ে আমাদের অনেকেরই সন্দেহ আছে। তবে ২৭টি কোম্পানির মধ্যে ২৪টি কোম্পানির পানিতে সঠিক মান এবং কাগজপত্র না থাকার বিষয়টিতে আমি নিজেই হতবাক হয়েছি।’

ইউনিট ওয়াটার, জান, থাই এট, রাজিব এন্টারপ্রাইজ, এ ওয়ান, নোয়াখালী ফুড অ্যান্ড বেভারেজ, এক্সিম কোম্পানিসহ মোট ২৪টি কোম্পানিকে মোট ৬ লাখ লাখ ৯০ হাজার টাকা জারিমানা করে আদালত।

বিশুদ্ধ পানিতে পিএইচ এর মাত্রা হবে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ৭। ৭ এর নিচে এর মান হলেই এটি হবে অম্লীয় এবং ঊর্ধ্বে হলে ক্ষারীয়।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিএসটিআই পানিতে পিএইচ এর স্বাভাবিক মান ধরেছে ৬ দশমিক ৪ থেকে ৭ দশমিক ৪ পর্যন্ত। মূলত দুই ধরনের পরীক্ষা করে পানির বিশুদ্ধতা যাচাই করে বিএসটিআই। এর একটি পিএইচ পরীক্ষা এবং অপরটি টিডিএস।  

পণ্যের মান নিয়ন্ত্রক এই সংস্থা বলছে, ঢাকা ও এর আশেপাশে ২০০টির মতো এবং সারা দেশে ৪০০টির কিছু বেশি অনুমোদিত পানি কোম্পানি রয়েছে। তবে এর প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি।

একটি সূত্র জানিয়েছে, নামেমাত্র প্লান্ট বসিয়ে কিংবা ওয়াসার পানি বোতলজাত করে বিশুদ্ধ বলে চালিয়ে দিচ্ছে এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা শুধু ঢাকাতেই প্রায় হাজার খানেক।

এসব নকল বা ভেজাল প্রতিষ্ঠানের পানি পান করে প্রত্যক্ষ ক্ষতির শিকার হচ্ছেন স্বাস্থ্য ‘সচেতন’ সাধারণ নাগরিকরা। যারা টাকা দিয়ে বয়ে আনছেন ঝুঁকি।

ঢাকা শিশু হাসপাতালে চিকিৎসক ডা. কনক দে বাংলানিউজকে বলেন, ‘পিএইচ এর মাত্রা বেশি এমন পানি পান করলে বৃক্ক (কিডনি) ও যকৃত সংক্রান্ত বিভিন্ন জটিল রোগ হতে পারে।’

এছাড়া দূষিত পানি উদরাময়, টাইফয়েড, জন্ডিস, ম্যালেরিয়াসহ পানিবাহিত বিভিন্ন রোগের কারণ বলেও জানান তিনি।

এতো ঝুঁকি সত্ত্বেও জীবনের অপর নাম যার- সেই পানির বিশুদ্ধতা নিয়ন্ত্রণে কিছুটা উদাসীন বিএসটিআই এমন অভিযোগও রয়েছে।

এ সংক্রান্ত প্রশ্ন রাখা হয় বিএসটিআই’র পরিদর্শক আবু সাঈদের কাছে। জবাবে তিনি বললেন, ‘পিএইচ এর মতো সাধারণ পরীক্ষায় যেহেতু ত্রুটি ধরা পরছে তাই অন্য কোনো পরীক্ষার দরকার পড়ে না।’

অবিশুদ্ধ পানি বিক্রেতারা কি বলছেন:

রেজাউল হক নামের একজন পানি বিক্রেতা বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমি যে প্রতিষ্ঠান থেকে পানি আনি সেই স্বদেশ ড্রিংকিং ওয়াটার কোম্পানিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত ৪-৫ দিন আগেই সিলগালা করে দিয়েছে।’

তারপরও কীভাবে পানি পান জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি জানি না তারা পানি দিয়ে যায় আমি শুধু বিক্রি করি।’

সরেজমিনে দেখা গেছে, অবিশুদ্ধ পানি বিক্রির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালত পিওর ড্রিংকিং ওয়াটার নামে একটি প্রতিষ্ঠানের একজনসহ কমপক্ষে ৪০ জনকে আটক করে।

এ ব্যাপারে পিওর ড্রিংকিং ওয়াটার প্রতিষ্ঠানের মালিক আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি দাবি করেন, তার প্রতিষ্ঠানের লেবেল ব্যবহার করে অনেকে পানিব্যবসা করে থাকতে পারেন। তবে তার প্রতিষ্ঠানের পানি বিশুদ্ধ।

মো রুবেল নামে একজন বিক্রেতা জানান, তিনি মতিঝিল এলাকায় পানি বিক্রি করেন।

কোথা থেকে পানি আনেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যারা পানি দেন তাদের কাছ থেকে তিনি শুনেছেন চিটাগাং রোডের পাশের একটি গভীর নলকূপ থেকে তারা পানি নিয়ে আসেন।’

বিএসটিআই কি বলছে:

এসব বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে বিএসটিআই’র পরিচালক (সিএম) লুৎফর রহমান খান বলেন, ‘আমাদের অভিযানের লক্ষ্য যারা সাব-ডিলারশিপ বা অন্যের লেবেল ব্যবহার করে তাদেরকে ধরা।’

লাইসেন্সধারী অনেকের পানিই যে সঠিকভাবে মান নিয়ন্ত্রিত নয় তাদের কী হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া আমাদের চারটি তদারকি দলের তৎপরতা আরো বাড়ানো হবে।’

বাংলাদেশ সময়: ১২০৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০১০

ববি শিক্ষার্থীদের ব্যতিক্রমী কর্মসূচি
রাঙামাটিতে পুলিশ সদস্যর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
ঘটনাস্থলে গিয়ে নুসরাত হত্যার বর্ণনা দিলেন ‘মনি’
গাজীপু‌রে পুলিশের কাছ থেকে আসামির পলায়ন
ভোলায় জ্বিন তাড়াতে গৃহবধূর গায়ে আগুন, আটক ২


ঘাটাইলে ট্রাক-অটোরিকশা সংর্ঘষে যুবক নিহত
তাড়াইলে আগুনে ৩ বসতঘর পুড়ে ছাই
কোহলির সেঞ্চুরিতে ম্লান রানা-রাসেল ঝড়
নিরোধ-শান্তা শিক্ষাবৃত্তি পেলো ১০২ শিক্ষার্থী
নিউইয়র্কে এফএফডি সভা: আঞ্চলিক সহযোগিতার বিকল্প নেই