অ্যানথ্রাক্স রেড এলার্ট বৃহস্পতিবার তুলে নেওয়া হচ্ছে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

অ্যানথ্রাক্স রোগ মোকাবিলায় গত ৫ সেপ্টেম্বর জারি করা রেডএলার্ট বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে নেওয়া হচ্ছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস বুধবার বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান। 

php glass

ঢাকা: অ্যানথ্রাক্স রোগ মোকাবিলায় গত ৫ সেপ্টেম্বর জারি করা রেডএলার্ট বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে নেওয়া হচ্ছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস বুধবার বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান।  

সারাদেশের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ‘সদা সর্বোচ্চ সতর্ক’ থাকার জন্য এ রেড এলার্ট জারি করা হয়।

লতিফ বিশ্বাস বলেন, ‘অ্যানথ্রাক্স রোগ এখন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে।’

গত ১৮ সেপ্টেম্বরের পর থেকে এ রোগে নতুন করে আক্রান্তের কোনো তথ্য নেই বলেও তিনি জানান।  

লতিফ বিশ্বাস বলেন, ‘চলতি বছর এ পর্যন্ত অ্যানথ্রাক্স রোগে সারাদেশে আক্রান্ত ১০৪টি গরুর মধ্যে মারা গেছে ৩৭টি। এছাড়া অসুস্থ হওয়ার পর ১১টি গরু জবাই করা হলেও সেই মাংস উদ্ধার করা গেছে।’

অ্যানথ্রাক্স রোগের অতি প্রচারকে ‘ষড়যন্ত্র’ হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘একটি মহল এ কাজ করছে।’

তিনি বলেন, ‘এটা ভীতিকর কোনো রোগ নয়। তবে অন্যান্য বছর এ নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণা চালিয়ে ষড়যন্ত্র হয়নি। এবার হয়েছে। মুরগির দাম বাড়ানো হয়েছে।’

যড়যন্ত্রকারী মুরগির খামারীদের চিহ্ণিত করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়াও চলছে বলে মন্ত্রী জানান।

তিনি বলেন, ‘এদেশের গরু-ছাগল প্রতিবছরই অ্যানথ্রাক্স রোগে কমবেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে।’

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পরিসংখ্যান উল্লেখ করে লতিফ বিশ্বাস বলেন, ‘২০০৮ সালে ৪৩৭টি গরু এ রোগে আক্রান্ত হয়। মারা যায় ১৫৬টি। ২০০৯ সালে আক্রান্ত ৪৪৯টি গরুর মধ্যে মারা যায় ১১৪টি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘গত বছরের চেয়েও এ বছর আক্রান্ত ও মৃত গরুর সংখ্যা কম হওয়া সত্ত্বেও মিডিয়ার প্রচারণায় আতঙ্ক ছড়ায়।’   

তিনি বলেন, ‘এ রোগ মোকাবেলায় ৮ জেলার ১৮টি উপজেলার ২৫ লাখ গবাদিপশুকে টিকা দেয়েছে সরকার।’

অ্যানথ্রাক্স নিয়ে ‘নেতিবাচক প্রচারণার’ উদাহরণ দিতে গিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘গরু, ছাগল, হাঁস, পাখিদেরও অ্যানথ্রাক্স হয়েছে বলে প্রচার করা হয়। কিন্তু মুরগিতে অ্যানথ্রাক্স আক্রমণ হয়েছে এমন কথা বলা হয়নি।’

এ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সাভারে দু’টি ছাগলের মুত্যুর কারণ অ্যানথ্রাক্স নয়।’

তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা করে দেখা গেছে, ওই ছাগল দু’টি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।’

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী লতিফ বিশ্বাস বলেন, ‘রেড এলার্ট জারি করা হয়েছিল, কারণ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরে কর্মরত সবাই যেন এ কাজে সার্বক্ষণিক নজর রাখতে পারেন।’

তিনি বলেন, ‘এখন দেখা যাচ্ছে, রোগের প্রাদুর্ভাব আর নেই এবং রেড এলার্টের জন্য মন্ত্রণালয়ের অন্য কাজেরও সমস্যা হচ্ছে। তাই, রেড এলার্ট তুলে নেওয়া হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘গরুর মাংস বিক্রি ও খাওয়া কমে গেছে মূলত ভয় থেকে। এ ভুল ধারণা দূর করার দায়িত্ব সরকার, গণমাধ্যমসহ সবার।’

বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে রেড এলার্ট তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হবে বলে মন্ত্রী জানান।

এ বিষয়ে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘অ্যানথ্রাক্স বাংলাদেশের গবাদিপশুর জন্য নতুন কোনো রোগ নয়। “তড়কা” নামে এ রোগ দীর্ঘদিন ধরেই এ দেশে ছিল।’

তিনি বলেন, ‘মাটির নিচে এ রোগের জীবাণু বেঁচে থাকে অনেকটা সুপ্ত অবস্থায়। পানি বা উদ্ভিদের মাধ্যমে তৃণভোজী প্রাণী যেমন গরু, মহিষ, ভেড়া, ছাগল ইত্যাদির দেহে প্রবেশের পর অ্যানথ্রাক্স জীবাণু সক্রিয় হয়ে ওঠে।’

তিনি বলেন, ‘অ্যানথ্রাক্স নির্মূল করা প্রায় অসম্ভব। তবে এর প্রাদুর্ভাব কমানো কঠিন নয়।’

এ জন্য ৪ থেকে ৫ বছর পর পর সারা দেশের গবাদিপশুগুলোকে টিকা দিতে হবে বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, ০৬ অক্টোবর ২০১০

ববি শিক্ষার্থীদের ব্যতিক্রমী কর্মসূচি
রাঙামাটিতে পুলিশ সদস্যর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
ঘটনাস্থলে গিয়ে নুসরাত হত্যার বর্ণনা দিলেন ‘মনি’
গাজীপু‌রে পুলিশের কাছ থেকে আসামির পলায়ন
ভোলায় জ্বিন তাড়াতে গৃহবধূর গায়ে আগুন, আটক ২


ঘাটাইলে ট্রাক-অটোরিকশা সংর্ঘষে যুবক নিহত
তাড়াইলে আগুনে ৩ বসতঘর পুড়ে ছাই
কোহলির সেঞ্চুরিতে ম্লান রানা-রাসেল ঝড়
নিরোধ-শান্তা শিক্ষাবৃত্তি পেলো ১০২ শিক্ষার্থী
নিউইয়র্কে এফএফডি সভা: আঞ্চলিক সহযোগিতার বিকল্প নেই