চট্টগ্রামে আগুনে রাসায়নিক ও আসবাবপত্রের গুদাম ভস্মীভূত

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মহানগরীর আইস ফ্যাক্টরি রোডে আজ ভোরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেছে একটি রাসায়নিক ও আসবাবপত্রের গুদাম।

চট্টগ্রাম : মহানগরীর আইস ফ্যাক্টরি রোডে আজ ভোরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেছে একটি রাসায়নিক ও আসবাবপত্রের গুদাম। ফায়ার সার্ভিস প্রায় আট ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় তিন কোটি টাকা বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।    

ফায়ার সার্ভিসের একটি সূত্র জানায়, কর্ণফুলী পেপার মিল লিমিটেড-এর (কেপিএম) মালিকানাধীন গুদামটি ভাড়া নিয়েছেন চট্টগ্রামের দুই ব্যবসায়ী। গুদামের একাংশে ছিল আসবাবপত্র ব্যবসায়ী আবু হেনা মোস্তফা কামালের মালিকানাধীন পাক কর্পোরেশনের বিভিন্ন মালামাল। অপর অংশে ছিল ব্যবসায়ী সুধীর রঞ্জন দাশের মালিকানাধীন সানা কর্পোরেশনের বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভোর ৫ টায় গুদামের রাসায়নিক পদার্থ রাখা অংশ থেকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন স্টেশনের ফায়ার সার্ভিসের ১০টি গাড়ি দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে আগুন পুরোপুরি নেভাতে সক্ষম হয়। আগুনে চক পাউডার, ক্যালসিয়াম কার্বনেট, ভিনাইল, হাইড্রোলিক এসিড সহ দুই কোটি টাকার বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ এবং কাঠ ও ইস্পাতের তৈরি প্রায় এক কোটি টাকার আসবাবপত্র পুড়ে গেছে।

আগুন লাগার কোনো কারণ এখন পর্যন্ত উদঘাটন করা যায়নি। এ বিষয়ে আগ্রাবাদ ফায়ার স্টেশনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা তপন দাশ বাংলানিউজটোয়েণ্টিফোর.কম.বিডিকে জানিয়েছেন, ‘অগ্নিকান্ডের সঠিক কারণ জানা যায়নি। এ ব্যাপারে তদন্ত হচ্ছে। তবে রাসায়নিকের গুদাম থেকে আগুন লাগার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।’

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৬১৮ ঘণ্টা, ২৮ জুন ২০১০
আরডিজি/এএইচএস/জেএম

ভাষার বইয়ের প্রকাশ কম, তা থেকেই জানতে হবে ইতিহাস
নারায়ণগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আটক
একুশের প্রথম প্রহরে সালাম নগরে বিনম্র শ্রদ্ধা
চিকিৎসা দেওয়া-নেওয়া কোনোটিই হলো না দুই বন্ধুর
যদি একটু মাংসের ফোঁটাও থাকে, আমার বাবারে এনে দেন


চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের শোক
বাংলা যায়নি নিভে | আবু আফজাল সালেহ
মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা, শিক্ষক আটক
স্বপ্ন পুড়লো ঢাবি ছাত্রের, বাবাকে খুঁজছে জমজ সন্তান
বাগেরহাট জাদুঘরে শতাধিক প্রত্নসামগ্রী হস্তান্তর