শুরুতেই থেমে আছে ২৫ ওভারব্রিজের নির্মাণ কাজ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

সড়ক পারাপারে ফুট ওভারবিজ ব্যবহার না করলে একদিন-একরাত হাজত বাসের নিয়ম করা হলেও শুরুতেই থেমে আছে ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) ২৫ ওভারব্রিজের নির্মাণ কাজ।

ঢাকা: সড়ক পারাপারে ফুট ওভারবিজ ব্যবহার না করলে একদিন-একরাত হাজত বাসের নিয়ম করা হলেও শুরুতেই থেমে আছে ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) ২৫ ওভারব্রিজের নির্মাণ কাজ।

রামপুরা, বাড্ডা, ধানমণ্ডি, মোহাম্মদপুর, জুরাইন, এয়ারপোর্ট রোড, বনানী, কাকরাইল ইত্যাদি স্থানে এসব ওভারব্রিজ নির্মাণ করার কথা রয়েছে।

কিন্তু চার বছর মেয়াদী প্রকল্পের দেড় বছরেরও বেশি সময় পার হলেও ৭টি ওভারব্রিজের নির্মাণ স্থানে শুধু কংক্রিটের বেইজমেন্ট নির্মাণ করা হয়েছে। অনেক স্থানে কেবল খুঁড়ে রাখা হয়েছে গর্ত।

ডিসিসি সূত্রে জানা গেছে- রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ ও সাধারণের চলাচল বেশি এমন সড়ক পারাপারের জন্য ২০০৯ সালের শুরুতেই ২৫টি ওভারব্রিজ নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। ওভারব্রিজগুলোসহ কিছু সড়কের সংস্কার বাবদ ওই বছরেরই ফেব্রুয়ারিতে বিশ্বব্যাংক থেকে ৩২০ কোটি টাকা ঋণও নেওয়া হয়। ওই টাকার বেশিরভাগ ছাড়ও করা হয়।

ডিসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ শুক্রবার বিকেলে বাংলানিউজকে বলেন, ‘২০০৯ সালে গৃহীত প্রকল্প অনুসারে ২০১২ সালে ওভারব্রিজগুলোর নির্মাণ শেষ হওয়ার কথা।’

ফুট ওভারব্রিজগুলোর কাজ এখনো শেষ না হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কাজ শুরু তো হয়েছে। এতোদিন যাই হোক না কেন নির্ধারিত সময়েই কাজ শেষ হবে।’

তবে দেরির হওয়ার কারণ সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।  

যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন শুক্রবার বাংলানিউজকে বলেন, ‘ওভারব্রিজ না থাকায় অনেক স্থানে মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হয়। এসব স্থানে ওভারব্রিজ নির্মাণের জন্য সিটি করপোরেশনকে বলা হয়েছে।’

ওভারব্রিজ ব্যবহারের নতুন আইন প্রসঙ্গে যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, ‘রাস্তা পারাপারে ফুটওভারব্রিজ বা আন্ডারপাস না ব্যবহার করলে ২৪ ঘণ্টা হাজতখানায় আটক রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে এ হাজতবাস জেল নয়।’

এ নিয়ম কবে চালু হবে তা এখনও ঠিক হয়নি বলেও জানান যোগাযোগমন্ত্রী।

ডিসিসি’র হিসেবে রাজধানীতে তাদের স্থাপিত ফুট ওভারব্রিজ রয়েছে ৪১টি। এর মধ্যে স্টিলের ওভারব্রিজ ৩৫টি। বাকিগুলো কংক্রিটের তৈরি। আন্ডারপাস রয়েছে ৩টি। এছাড়া সড়ক ও জনপথ বিভাগের ৩টি ওভারব্রিজ রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১, ২০১০

Nagad
মাশরাফির ছোট ভাই সেজারেরও করোনা নেগেটিভ
খনন হবে সাঙ্গু-চাঁদখালী নদী, সোনাইছড়ি বেড়িবাঁধে সংস্কার
র‍্যাঙ্কিংয়েও বড় লাফ হোল্ডারের
সাহেদের যত প্রতারণা
ইউআইটিএস ও গুলশান ক্লিনিকের মধ্যে সমঝোতা স্মারক


সিরাজগঞ্জে বেড়েই চলেছে যমুনার পানি, প্লাবিত নতুন এলাকা
বসুন্ধরা গ্রুপের সিনিয়র ডিএমডি বেলায়েত হোসেন আর নেই
পাটুরিয়া ঘাটে পারের অপেক্ষায় সাড়ে তিন শতাধিক যানবাহন
সূচকের মিশ্র প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন চলছে
খুমেক হাসপাতালে বিক্রি হচ্ছে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট!