পাবলিক ট্রান্সপোর্ট যদি ব্যবহার করতেই হয় 

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ট্রেনের যাত্রী

walton

করোনার কারণে মানুষ একা থাকার অভ্যাস করে নিচ্ছে, আসলে একা থাকতে বাধ্য হচ্ছে। স্কুল-কলেজ বন্ধ, কিছু অফিসও সুযোগ দিয়েছে ঘরে থেকেই কাজ করার। তারপরও বহু মানুষকে জীবন ও জীবিকার তাগিদে ঘর থেকে বের হতে হচ্ছে। সবার পক্ষে ব্যক্তিগত যানবাহন ব্যবহারও সম্ভব নয়। তাই নির্ভর করতে হচ্ছে সেই পাবলিক ট্রান্সপোর্টেই। 

করোনার জীবাণু থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার করার সময় যা করতে হবে: 


•    বাস, ট্রেন বা লঞ্চের সহযাত্রীটি প্রবল হাঁচি-কাশি-জ্বরে আক্রান্ত? তার থেকে যতটা সম্ভব দূরে সরে যান। 

•    রাস্তাঘাটে সর্দিজ্বরে আক্রান্ত মানুষের সংস্পর্শে এলে রুমাল দিয়ে নিজের নাক আর মুখ ভালো করে চেপে ধরে রাখুন। রোগীকে স্পর্শ করবেন না

•    অতিরিক্ত ভিড়ের বাস বা ট্রেন এড়িয়ে চলুন

•    বাড়িতে বা অফিসে পৌঁছোনোর পর সাবান পানি দিয়ে খুব ভালো করে ঘষে ঘষে হাত ধুয়ে নিন 

•    হাত না ধুয়ে চোখে, মুখে বা নাকে একদম হাত দেবেন না

•    প্রাইভেট কার ব্যবহার করলে জানলার কাঁচ নামিয়ে রাখুন 

•    বাস-ট্রেনের হাতল, সিঁড়ির রেলিংয়ের মতো জায়গাগুলো ভাইরাসের উপদ্রব বেশি হয়। এসব ধরার সময় হাতে টিস্যু রাখুন

•    সঙ্গে হ্যান্ড স্যানিটাইজ়ার রাখুন, বাইরে থাকলে একঘণ্টা পরপর ব্যবহার করুন। 


বাংলাদেশ সময়: ১৩৪১ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২০
এসআইএস

জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শনে নওফেল
কমলনগরে বাড়ি গিয়ে ত্রাণ দিচ্ছেন চেয়ারম্যান-ইউএনও
গুজব ছড়ানোয় রাজশাহীতে ২৩ জনের জরিমানা
মারা গেলেন করোনা সন্দেহে ঢাকায় পাঠানো সেই ব্যক্তি 
ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ডোর টু ডোর যাচ্ছেন মেয়র নাছির


কুমিল্লায় সচেতনতামূলক ভিডিও প্রচার-খাদ্য বিতরণ সেনাবাহিনীর
রামজান উপলক্ষে বুধবার থেকে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু
চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের যাতায়াতের ব্যবস্থা করবে সিএমপি
করোনা: পোল্ট্রি শিল্পে ক্ষতি ১১৫০ কোটি টাকা
 কবি হাসান হাফিজুর রহমানের প্রয়াণ