ব্ল্যাক লেগিংস থেকে সাবধান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফ্যাশন করার জন্য আপনি কি ব্ল্যাক লেগিংস পরেন, বাসায় কিংবা বাইরে? যদি পরেন তাহলে তো খুবই শঙ্কার কথা। আর এই আশঙ্কা যেনতেন নয়, একেবারে জীবন-মরণের ব্যাপার। কারণ ওই কালো রঙের প্রতি ডেঙ্গু মশার এতটাই আকর্ষণ যে, খুঁজে খুঁজে আপনাকে কামড় বসিয়েই ছাড়বে যদি আপনি ব্ল্যাক লেগিংস পরে থাকেন।

ফ্যাশন করার জন্য আপনি কি ব্ল্যাক লেগিংস পরেন, বাসায় কিংবা বাইরে? যদি পরেন তাহলে তো খুবই শঙ্কার কথা। আর এই আশঙ্কা যেনতেন নয়, একেবারে জীবন-মরণের ব্যাপার। কারণ ওই কালো রঙের প্রতি ডেঙ্গু মশার এতটাই আকর্ষণ যে, খুঁজে খুঁজে আপনাকে কামড় বসিয়েই ছাড়বে যদি আপনি ব্ল্যাক লেগিংস পরে থাকেন। (ফ্যাশনের জন্য বিশ্বব্যাপী টিনএজ মেয়েরা কোমর থেকে হাঁটুর নিচ পর্যন্ত কালো রঙের যে টাইট জামা পরে তাকে ইংরেজিতে বলে ‘ব্ল্যাক লেগিংস’।)

 শুধু ব্ল্যাক লেগিংস নয়, অন্য কালো রঙের কাপড়ের প্রতিও ডেঙ্গু মশার মনোযোগ বেশি। কিন্তু ব্ল্যাক লেগিংসের কথা বিশেষভাবে এজন্য বলা যে ওটা পাতলা এবং ত্বকের সঙ্গে সেঁটে থাকে। ফলে ওপর থেকেই ডেঙ্গু মশা আপনার ত্বকে হুল ফুটিয়ে দিতে পারবে। তাই বড় ইচ্ছা থাকলেও ব্ল্যাক লেগিংস পরার চিন্তা আপাতত বাদ রাখতেই হচ্ছে বেরসিক ডেঙ্গু মশার কারণে। এই ফাঁকে আরেকটি কথা জেনে রাখা ভালো, মশা নয় মশকীর কামড়েই ডেঙ্গু হয়। তার মানে মেয়ে মশাই মেয়েদের শত্রু!

আমাদের দেশে এ নিয়ে হয়তো কারো মাথাব্যাথা নেই। আমাদের স্বাস্থ্যবিভাগের কর্তারাও এ বিষয়ে তেমন কোনো খোঁজখবর রাখেন কি না আমাদের জানা নেই। কিন্তু থাইল্যান্ড সরকার এ বিষয়ে বেশ চিন্তিত। সে দেশে ফ্যাশনের জন্য যারা ব্ল্যাক লেগিংস পরেন সরকারের পক্ষ থেকে তাদের রীতিমতো সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি লন্ডনের টেলিগ্রাফ পত্রিকায় এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কালো রঙের পোশাকের প্রতি ডেঙ্গু মশার দারুণ আকর্ষণ। এ পোশাক পরলে ডেঙ্গু মশা যে কোনো সময় মুগ্ধ হয়ে আক্রমণ করে বসতে পারে। আর তারপর যা হওয়ার তাই হবে। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে জীবনটাও চলে যেতে পারে।

টেলিগ্রাফের ওই প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করেই থাই সরকার তার দেশের মেয়েদের, বিশেষ করে টিএজারদের সতর্ক করে দিয়েছে ব্ল্যাক লেগিংস না পরার জন্য। দেশটির ডেপুটি পাবলিক হেলথ মিনিস্টার বলেছেন, ‘এটা খুবই মুশকিলের কথা। এমন পরিস্থিতি হলে মেয়েরা কীভাবে ফ্যাশন করবে? বিশেষ করে টিনএজারদের পোশাকের ব্যাপারে আমি খুবই উদ্বিগ্ন।’

তিনি কালো রঙের ওই পোশাকের মায়াদয়া ত্যাগ করে অন্য রঙের পোশাক পরার পরামর্শ দিয়েছেন। আর সবাইকে সতর্কতা অবলম্বন করারও আহ্বান জানিয়েছেন।

থাই মন্ত্রীর এমন উদ্বেগের কারণ হচ্ছে, সেখানে ডেঙ্গু মশার সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গেছে।  ডেঙ্গুজ্বরে এ বছরের গত সাত মাসে সরকারি হিসাব মতে সেখানে মারা গেছে ৪৩ জন। আর এ সময়ের মধ্যে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে হয়েছে প্রায় ৪৫ হাজার মানুষকে।

তাই সময় থাকতে সাবধান হওয়ায় ভালো। এ বিষয়ে আপনাকে কেউ বলুক আর না বলুক গবেষকরা বলেছেন, কালো পোশাকের প্রতি ডেঙ্গু মশার আকর্ষণ বেশি। অতএব কালো পোশাক এড়িয়ে চলাই ভালো। বিশেষ করে লেগিংসের মতো টাইট পোশাক।  

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২১১৫, আগস্ট ১৩, ২০১০

সাতক্ষীরার মঞ্চ মাতিয়েছে ‘ওরা কদম আলী’
হেটমায়ার-গেইলের ব্যাটে সমতায় ফিরলো উইন্ডিজ
পাবনা ও নাটোর জেলার আয়োজনে ৬ দিনব্যাপী বইমেলা 
সুদানে জরুরী অবস্থা জারি
বরিশালে কিশোর দিনমজুরের আত্মহত্যা


আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসায়ী আটক, দুই ডিবি পুলিশ আহত
লঞ্চের টিকিট কালোবাজারী, ২ জনকে কারাদণ্ড
পরিকল্পিত আবাসন গড়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
নারায়ণগঞ্জের মন্দিরে আগুন, আতঙ্কে আহত ১০
কুমিল্লায় হাসপাতালের ল্যাবে অগ্নিকাণ্ড