নিজ দেশে পরবাসী ফ্রিদা পিন্টো

21 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ ছবির সেই মিষ্টি মেয়েটার কথা মনে আছে? হ্যাঁ, এই একটি ছবি করেই ফ্রিদা পিন্টো এখন বিশ্বজুড়ে পরিচিত। ‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ ছবিতে ফ্রিদা পিন্টোর সহজ-সরল অভিব্যক্তি আর অসাধারণ অভিনয় ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই অভিনেত্রীকে এনে দিয়েছে তারকাখ্যাতি। ছবিটির মাধ্যমে ফ্রিদা পিন্টো সারা বিশ্বে জনপ্রিয় হলেও নিজ দেশে তিনি হয়ে আছেন অবহেলিত।

php glass

‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ ছবির সেই মিষ্টি মেয়েটার কথা মনে আছে? হ্যাঁ, এই একটি ছবি করেই ফ্রিদা পিন্টো এখন বিশ্বজুড়ে পরিচিত। ‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ ছবিতে ফ্রিদা পিন্টোর সহজ-সরল অভিব্যক্তি আর অসাধারণ অভিনয় ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই অভিনেত্রীকে এনে দিয়েছে তারকাখ্যাতি। ছবিটির মাধ্যমে ফ্রিদা পিন্টো সারা বিশ্বে জনপ্রিয় হলেও নিজ দেশে তিনি হয়ে আছেন অবহেলিত।

হলিউডের নির্মাতাদের কাছে ফ্রিদা পিন্টো কাক্সিক্ষত হলেও বলিউডের নির্মাতাদের কাছে তিনি আজও অচেনা। এখন পর্যন্ত ফ্রিদার ক্যারিয়ারে বলিউডের ছবির সংখ্যা শূন্য। অস্কারবিজয়ী ‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের পর দু বছর কেটে গেলেও নিজ দেশের কোনো ছবিতে এখনও তিনি অফার পাননি।

নিজ দেশে পরবাসী হয়ে থাকার আপে নিয়ে সম্প্রতি ফ্রিদা বললেন, ভারতের কোনো ছবিতে আমি এখন পর্যন্ত কাজ করতে পারিনি।  সেখানকার মানুষের কাছে অভিনেত্রী হিসেবে আমি স্বীকৃতি পাইনি। স্লামডগ মিলিওনিয়ারের মাধ্যমে বিশ্বের মানুষের কাছে পরিচিতি পেলেও ভারতীয় দর্শক আসলে জানে না যে আমি কে! তাই তাদের কাছে আমি গুরুত্বহীন।

ফ্রিদা পিন্টো অভিমান নিয়ে আরও বলেন, বলিউডের নায়িকা হওয়ার জন্য যেসব গুণ থাকা দরকার সম্ভবত আমার তা নেই।  বলিউডের ছবিতে অভিনয়ের জন্য তাই কোনো নির্মাতার চোখে আমি পড়িনি। নয়তো এখন পর্যন্ত বলিউডের ছবিতে অভিনয়ের অফার না পাওয়ার আর কী কারণ থাকতে পারে! তবে স্লামডগ মিলিওনিয়ার মুক্তি পাওয়ার পর পর আমাকে কয়েকটি পান্ডুলিপি পড়তে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এ পর্যন্তই, ছবিতে অভিনয়ের জন্য পরে কেউ বলেননি।

মাতৃভূমি ভারতে এরকম অবহেলিত থাকা অভিনেত্রী ফ্রিদা পিন্টোর ওপর থেকে অবশ্য মুখ ফিরিয়ে নেননি হলিউডের নির্মাতারা। গত বছর একাধিক আন্তর্জাতিক ছবিতে অভিনয় করেছেন ফ্রিদা। এর মধ্যে হলিউডের খ্যাতিমান পরিচালক উডি অ্যালেনের ‘ইউ উইল মিট এ টল ডার্ক স্ট্রেঞ্জার’ অন্যতম। এছাড়া চলতি বছর ফ্রিদা অভিনয় করবেন স্পাইডারম্যান তারকা জেমস ফ্রাঙ্কোর বিপরীতে ‘দ্য রাইজ অব এপস’ ছবিতে।

বড় বড় সুপারস্টারের বিপরীতে আন্তর্জাতিক মানের ছবিতে অভিনয় করেও আত্মতৃপ্তি খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি। কেননা ফ্রিদা পিন্টোর শরীরে বইছে ভারতীয় রক্ত, বুকে ধারণ করছেন ভারতীয় সংস্কৃতি। অথচ স্বদেশেই যদি তিনি অভিনয় করতে না পারেন তাহলে তার জন্মানোটাই বৃথা বলে ইদানীং তার মনে হচ্ছে। তাই দিনের পর দিন ফ্রিদা পিন্টোর আপে কেবলই বাড়ছে। সামাজিক নেটওয়ার্ক টুইটারে মনের ভাব প্রকাশ করে তাই তিনি লিখেছেন, নিজ দেশে পরবাসী হয়ে অপোর প্রহর গুনছি...।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২১১০, আগস্ট ৩০, ২০১০

ভারতে ভোট গণনায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা
অস্ত্রসহ গ্রেফতার ছিনতাইকারী
মানুষের মৃত্যুর প্রহর গুনেন তারা
অসহ্য গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি চট্টগ্রামে
পাইকারিতে আড়াই টাকার লেবু খুচরা পর্যায়ে ১০ টাকা


মার্কেটে মার্কেটে পুলিশের সেবা বুথ
ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে লক্ষ্য সুনির্দিষ্ট: পলক
২৫০ রোগীর বিপরীতে ১ জন চিকিৎসক
বগুড়া-৬ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন না খালেদা জিয়া
খিলগাঁয়ে কাভার্ড ভ্যানচাপায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু