লাফাঙ্গে পারিন্দে : অসাধ্য জয়ের স্বপ্ন

39 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

বলিউডে প্রতিবন্ধীর ভূমিকায় অভিনয় করে সবচেয়ে বেশি সুনাম করেছেন কাজল ও রানী মুখার্জি। ‘ব্ল্যাক’ ছবিতে রানী ও ‘ফানাহ’ ছবিতে কাজলের অভিনয় মুগ্ধ করেছিল দর্শকদের।

php glass

বলিউডে প্রতিবন্ধীর ভূমিকায় অভিনয় করে সবচেয়ে বেশি সুনাম করেছেন কাজল ও রানী মুখার্জি। ‘ব্ল্যাক’ ছবিতে রানী ও ‘ফানাহ’ ছবিতে কাজলের অভিনয় মুগ্ধ করেছিল দর্শকদের। এবার তারই ধারাবাহিকতায় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর ভূমিকায় অভিনয় করলেন বলিউডের এই সময়ের সেনসেশন দীপিকা পাড়ুকোন।

মুম্বাইয়ের গলি-ঘুপচির অন্ধকার জগতে জন্ম নন্দুর। ছোটবেলা থেকে বড় হয়ে ওঠার পথে সে দেখেছে পৃথিবীর পাষ- হিংসুটে রূপ। নগ্ন প্রতিযোগিতা, হিংসা আর বুনো ক্রোধ হয়ে ওঠে তার জন্মগত ধর্ম। স্ট্রিট ফাইটিংসে নন্দুর রীতিমতো চ্যাম্পিয়ন। চোখ বেঁধে বক্সিং রিংয়ে শত্রুর মোকাবিলা করার মতো কার্যকলাপে তার জুড়ি নেই।

অন্যদিকে পিংকি পালকারের জীবনটা যেন একবারেই আরেক জগতের। শপিংমলের চাকরির পাশাপাশি নাচতে ভালোবাসে পিংকী। সমস্যা শুধু তার একটাই, পৃথিবীর রঙটা তার অচেনা। তবু অন্ধত্বকে ঘুঁচিয়ে নিজের প্রতিভা আর স্বপ্নের ডানায় ভর করে সে ভবিষ্যতের দিকে উড়ে  যেতে চায়।

ভিন্ন দুই বিপরীত সত্তার নারী-পুরুষের মিলন যদি লেখা থাকে ভাগ্যের খাতায়, তবে তাকে ঠেকানো কার সাধ্য। দুটি মানুষের অসাধ্য জয়ের স্বপ্ন আর তাদের অদ্ভুত এক ভালোবাসার গল্প নিয়ে গড়ে উঠেছে ‘লাফাঙ্গে পারিন্দে’ ছবিটি। দুই ভিন্ন বিপরীত মানুষের মধ্যকার অদ্ভুত ভালোবাসা আর তাদের বন্ধুত্বের ভিন্ন স্বাদের গল্প নিয়ে নির্মিত এ ছবিতে প্রধান দুটো চরিত্রে অভিনয় করেছেনÑ নীল নিতীন মুকেশ ও দীপিকা পাড়ুকোন ।

রোমান্টিক-অ্যাকশনধর্মী এই ছবি ধুম সিরিজের মতো না হলেও মোটরবাইক এ ছবির অন্যতম আকর্ষণ। মুম্বাইয়ের রাস্তায় মোটরবাইক প্রতিযোগিতা নিয়েই লাফাঙ্গে পারিন্দের গল্পের শুরু। ছবিতে নীল নিতীন মুকেশ কোনো স্টান্ট ব্যবহার করেননি। জীবনের ঝুঁকি নিজেই নিজের স্ট্যান্ট হয়েছেন।

ছবিতে দীপিকার চরিত্রটি দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হওয়ায় অনেকে মনে করছেন, কাজল ও রানীকে অনুকরণ করেছেন তিনি। কিন্তু দীপিকা তা কোনোভাবেই মানতে রাজি নন। দীপিকা জানান, তিনি ব্ল্যাক ও ফানাহ দেখেছেন। ছবি দুটিতে কাজল ও রানীর অভিনয় তার হৃদয় স্পর্শ করেছে। কিন্তু অভিনয়ের ক্ষেত্র কাউকে অনুসরণ করেননি বলে তিনি দাবি করেন। জানা গেছে, এ চরিত্রটির জন্য দীপিকা অনেক কষ্ট করেছেন। এমনকি চরিত্রটি যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে তিনি অনেক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর সঙ্গে মেলামেশা করেছেন এবং তাদের আচার-আচরণও আয়ত্ত করেছেন।

ছবির পরিচালক প্রদীপ সরকার বলিউডে প্রথম ছবি করেই আলোচনায় চলে আসেন। বিদ্যা বালান, সাইফ আলী খান, সঞ্জয় দত্ত, রাইমা সেনকে নিয়ে ‘পরিণীতা’ নির্মাণ করে বক্স অফিস ও সমালোচক উভয় পরেই সমর্থন পেয়েছিলেন প্রদীপ। তবে যশরাজ ফিল্মস প্রযোজিত ‘লাগা চুনারি মে দাগ’ ছবিতে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি প্রদীপ। দুর্বল চিত্রনাট্যের কারণে দর্শক ছবিটি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল। ‘লাফাঙ্গে পারিন্দে’ ছবি প্রদীপ সরকারের জন্য এক রকম অস্তিত্বের লড়াই। তবে ২০ আগস্ট মুক্তি পাওয়া এই ছবিটি প্রথম দিনে ভালভাবেই দর্শক গ্রহণ করেছে।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৮২০, আগস্ট ২১, ২০১০

শেখ হাসিনা দেশে না এলে আ’লীগের দশা বিএনপির মতো হতো
ইউজিসি চেয়ারম্যান হলেন ড. কাজী শহীদুল্লাহ
রূপপুর প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদুল প্রত্যাহার 
অপরাধ দমনে রমজানের ভূমিকা
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


ইন্দোনেশিয়ায় ভোটের ফল ঘোষণার পর সংঘর্ষে নিহত ৬
বিশ্বকাপের আগেই অলরাউন্ডার র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে সাকিব
জয়পুরহাটে সরকারিভাবে বোর ধান সংগ্রহ শুরু
হাত হারানো রাজীবের মামলার প্রতিবেদন ফের পেছালো
ভুল ইনজেকশন পুশ: এখনো জ্ঞান ফেরেনি সেই শিক্ষার্থীর