দি এক্সপেন্ডেবলস : পুরান চাল ভাতে বাড়ে

47 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

হলিউডের অ্যাকশন হিরো সিলভেস্টার স্ট্যালোনকে কে না চেনেন ? রাম্বো খ্যাত এই তারকার ছবি মানেই ধুন্ধুমার মারপিট আর রোমাঞ্চকর অ্যাকশন। সম্প্রতি স্ট্যালোন অভিনীত ও পরিচালিত নতুন ছবি ‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ বক্স অফিসের শীর্ষে । ১৩ আগস্ট মুক্তি পাওয়া এই ছবি প্রথম সপ্তাহেই আয় করেছে প্রায় সাড়ে চার কোটি ডলার।

php glass

হলিউডের অ্যাকশন হিরো সিলভেস্টার স্ট্যালোনকে কে না চেনেন ? রাম্বো খ্যাত এই তারকার ছবি মানেই ধুন্ধুমার মারপিট আর রোমাঞ্চকর অ্যাকশন। সম্প্রতি স্ট্যালোন অভিনীত ও পরিচালিত নতুন ছবি ‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ বক্স অফিসের শীর্ষে । ১৩ আগস্ট মুক্তি পাওয়া এই ছবি প্রথম সপ্তাহেই আয় করেছে প্রায় সাড়ে চার কোটি ডলার।
 
‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ ছবির কাহিনীও অসাধারণ। ছবিটির কাহিনী লিখেছেন স্ট্যালন এবং ডেভিড ক্যালাহ্যাম। সাবেক ছয় সেনাসদস্যের ছোট্ট একটি দল এক্সপেন্ডেবলস। এই দলের নেতা রস (স্ট্যালোন)। দণি আমেরিকার ছোট একটি দেশের স্বৈরশাসক এক জেনারেলকে উৎখাত করার জন্য তাদের ভাড়া করা হয়। বলা হয়, দেশটিতে ঢোকার পর তাদের সঙ্গে কাজ করবে সানদ্রা। কিন্তু দেশটিতে পা রেখে রস জানতে পারে, সানদ্রা আসলে সেই স্বৈরশাসকেরই মেয়ে আর পুরো বিষয়টির সঙ্গে সিআইএ জড়িত। মিশন বাতিল করে ফিরে আসতে চায় রস, কিন্তু সানদ্রার জন্য আবারও দেশটির ক্ষমতার দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে তার ভাড়াটে সেনার দল। এমনি এক কাহিনী নিয়ে ছবি এগিয়ে যায়।

‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ ছবিটি যেন ঘূর্ণিঝড়ের মতো ঝাঁকি দিয়েছে পুরো হলিউডকে । আট তারকার এই ছবির পরিচালক-নায়ক স্ট্যালোন নিজে । হলিউডের ছবিতে তারকাদের এমন মিলনমেলা খুব কমই হয়েছে। ছবিটি নির্মাণের আগে অভিনয়ের অফার দিতে কাউকে বাকি রাখেননি পরিচালক। জঁ কদ ফন ড্যাম থেকে শুরু করে ওয়েসলি স্নাইপস, কার্ট রাসেল, স্টিভেন সিগালকেও অফার করা হয়েছিল। এমনকি বেন কিংসলে ও স্কট এডকিনসের কথাও ভেবেছিলেন পরিচালক স্ট্যালন। গুজব ছড়িয়েছিল ছবিতে পাওয়া যাবে সান্ড্রা বুলককেও। তবে শেষ পযন্ত ছবিতে সিলভেস্টার স্ট্যালোন ছাড়া অভিনয় করেন জনপ্রিয় তারকা মিকি রোর্কি, জেট লি, ব্রুস উইলিস, আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার, জেসন স্ট্যাটহাম, ডলফ লান্ডগ্রেন, স্টিভ অস্টিন, কার্টার, ক্রিউস প্রমুখ। গত বছর ছবিটির শুটিং করা হয় কোস্টারিকা ও লুইজিয়ানায়।

প্রায় সাত কোটি ডলার বাজেটের এ ছবিতে জেট লি ছাড়া বাকিরা সবাই বেশ বুড়ো। তাই অনেকেই ছবিটিকে বাঁকা চোখে বুড়োদের মিলনমেলা বলে তাচ্ছিল্য করেছিলেন। কিন্তু পুরান চাল যে ভাতে বাড়ে তা প্রমাণ করে ‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ ছবিটি কাঁপিয়ে দিয়েছে বক্স অফিস। এ ছবির মধ্য দিয়ে পর্দায় অনেকদিন পরে এলেন ‘টার্মিনেটর’ খ্যাত অ্যাকশান হিরো এবং ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার। গভর্নর হিসেবে নানা সরকারি কাজে ব্যস্ত থাকেন শোয়ার্জনেগার। তার পে ছবির জন্য সময় বের করা সত্যিই কঠিন। কিন্তু বন্ধুর অনুরোধ তো ফেলা যায় না! অগত্যা শুধু একটি দৃশ্যে অভিনয় করবেন ভেবে হাজির হলেন সেটে। সেটাই বা কম কীসে, আগের মতোই মাতালেন।

এ বিষয়ে শোয়ার্জনেগারের জনসংযোগ কর্মকর্তা অ্যারন ম্যাকলিয়ার জানালেন, বন্ধু স্ট্যালোনের কথা ফেলতে পারেননি গভর্নর। দুজনই বেশ পুরানো বন্ধু। স্ট্যালোনের কাজে উৎসাহ এবং তাকে সহযোগিতা করার জন্যই এই ছবিতে অভিনয় করেছেন শোয়ার্জনেগার।

বিশ্বব্যাপী যখন ত্রিমাত্রিক চলচ্চিত্রের জয়জয়কার সেখানে ‘দি এক্সপেন্ডেবলস’ ছবিটি আধুনিক প্রযুক্তির পরিবর্তে সনাতন পদ্ধতি ব্যবহার করে দর্শকদের মধ্যে অবিশ্বাস্য সাড়া ফেলতে সম হয়েছে। বহুল আলোচিত এই ছবিটি বছরের সেরা ছবির পুরস্কার ছিনিয়ে আনে কিনা, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ১৯২৫  আগস্ট ২০, ২০১০  

পলাশবাড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু
ফেসবুক আমাদের আইন পকেটে নিয়ে ঘোরে: জব্বার
জাতির পক্ষ থেকে বিএসটিআইয়ের প্রতি ঘৃণা: জেএসডি
অপরিপক্ব ১৫ মণ আম ধ্বংস করলো ভ্রাম্যমাণ আদালত
ডিজিটাল নিরাপত্তায় সচেতনতাই প্রথম রক্ষাকবচ


বিএসএমএমইউর ৫৩ শিক্ষক-চিকিৎসককে গবেষণা অনুদান 
শাবানাকে দেশ ছাড়ার হুমকি
ঢাকা বাঁচাতে খাল দখলমুক্ত করতে হবে: মেয়র আতিকুল
ইনজামামের বিতর্কিত ও হাস্যকর বিশ্বকাপ দল!
খুলনায় ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা পলাশ আটক