শিগগিরই আসছেন মমতা হয়ে

6 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ছোটপর্দার শিল্পীরা বড়পর্দায় গিয়ে হালে পানি পান না, এই ধারণা ভেঙে দিয়েছেন রুমানা। দর্শকরা যেমন পছন্দ করছে রুমানার পর্দা উপস্থিতি, তেমনি দিন দিন তিনি হয়ে উঠেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতাদের নির্ভরযোগ্য অভিনেত্রী।

php glass

ছোটপর্দার শিল্পীরা বড়পর্দায় গিয়ে হালে পানি পান না, এই ধারণা ভেঙে দিয়েছেন রুমানা। দর্শকরা যেমন পছন্দ করছে রুমানার পর্দা উপস্থিতি, তেমনি দিন দিন তিনি হয়ে উঠেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতাদের নির্ভরযোগ্য অভিনেত্রী। শোবিজে রুমানার অভিষেক হয়েছিল মডেলিংয়ের মাধ্যমে, এরপর আসেন টিভি নাটকে। বছর দুয়েক আগে নাম লেখান চলচ্চিত্রে। বর্তমান মডেলিং আর টিভিনাটকে তাকে খুব কমই দেখা যায়। চলচ্চিত্রের রঙিন ভুবনেই এখন রুমানার সব ব্যস্ততা।

ছোটপর্দার অভিনেত্রী রুমানা বছর তিনেক চলচ্চিত্রে নাম লেখালে অনেকেই ঠোঁট উল্টেছিলেন। তাদের চোখ এখন ছানাবড়া। কারণ চলচ্চিত্রে রুমানা নিজেকে প্রমাণ করেছেন। পিএ কাজল পরিচালিত ‘এক টাকার বউ’ ছবি মুক্তির পরপরই ধারাবাহিকভাবে একের পর এক ছবিতে তিনি নিয়মিত অভিনয় করতে শুরু করেন। তার সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া ছবি ‘মা আমার চোখের মণি’। এতে সম্রাটের বিপরীতে অভিনয় করেছেন রুমানা। চলচ্চিত্রের বর্তমান মন্দাবাজারে ছবিটি বানিজ্যিক সাফল্য না পেলেও রুমানার অভিনয় এতে প্রশংসিত হয়। একই নায়কের সঙ্গে বর্তমানে তিনি ‘কাছের শত্রু’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করছেন। এমএ আউয়ালের পরিচালনায় বর্তমানে ছবিটির শুটিং চলছে।

চলচ্চিত্রে রুমানার সামনে সম্প্রতি উন্মোচিত হয়েছে আরেকটি সোনালী সূযোগ। সদ্য নির্বাচিত ভারতীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জীবনের ছায়া অবলম্বনে ‘বদলে যাও বদলে দাও‘ নামের একটি ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন রুমানা অর্থ্যাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন তিনি। এ চরিত্রে অভিনয়ের সূযোগ পেয়ে ভীষণ উচ্ছসিত রুমানা।

বাংলানিউজকে এ বিষয়ে নিজের অনুভূতির কথা জানিয়ে রুমানা বলেন, এটি আমার জন্য অনেক সৌভাগ্যের একটি বিষয়। আমি পরিচালক পিএ কাজলকে বলেছিলাম একটি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে  আমাকে সুযোগ দেয়ার জন্য । তিনি আমাকে সুযোগ দিয়েছেন। এ জন্য আমি আনন্দিত। চরিত্রটি সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলতে আমি সাধ্য মতো চেষ্টা করবো। আর এজন্য এখন থেকেই আমি নিজেকে প্রস্তত করছি। তাই চেষ্টা করছি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা বলার ঢং, পোশাক-পরিচ্ছদ, চলন-বলন সবকিছু অনুসরণ করার। আর এ ছবিটির মাধ্যমেই দর্শকরা প্রথম আমাকে একক নায়িকা হিসেবে কোনো চলচ্চিত্রে দেখতে পাবেন।

পিএ কাজল পরিচালিত ‘বদলে যাও বদলে দাও’ ছবিতে রুমানাকে  প্রথমে ছিন্নমূল একজন সৎ ও আদর্শবান নারী হিসেবে দেখা যাবে। যে চাকরির খোঁজে শহরে এসে ধীরে ধীরে প্রতিবাদী হয়ে ওঠে এবং শেষ পর্যন্ত একটি রাজনৈতিক দলে জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে দলটি রুমানার তুমুল জনপ্রিয়তায় সংসদ নির্বাচনে জয়ীও হয়।

এখানেই শেষ নয় ‘বদলে যাও বদলে দাও’ ছবির পাশাপাশি পিএ কাজলের আরো তিনটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন রুমানা। ‘অশিক্ষিত ছেলে’, ‘সরকার’ ও ‘কোকিলারা’ নামের ছবি তিনটিতে ভিন্ন ভিন্ন তিনটি চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। প্রথম ছবিতে তাকে দেখা যাবে রোমান্টিক প্রেমিকার চরিত্রে, দ্বিতীয়টিতে রাজনৈতিক কর্মীর ভূমিকায় এবং শেষেরটিতে একটি নারীবাদী চরিত্রে।

রুমানা অভিনীত কয়েকটি ছবি বর্তমানে মুক্তির প্রতীক্ষায় রয়েছে। এগুলো হলো-  বদিউল আলমের পরিচালনায় ‘বুক ফাটে তো মুখ ফোটে না’, এফআই মানিকের ‘এদেশ তোমার আমার’ প্রভৃতি। টিভি চ্যানেলগুলোতেও চলছে তার অভিনীত একাধিক নাটক। যদিও টিভিতে আজকাল তাকে খুব কমই দেখা যায়। কারণ রুমানার ধ্যানে জ্ঞানে এখন আছে শুধুই চলচ্চিত্র।

বাংলাদেশ সময় ২১০৫, মে ৩১, ২০১১

তাকে চাই আগে | আলেক্স আলীম
নিহত ১২ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীকে সম্মান জানালো জাতিসংঘ
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার
বাসে নারীকে যৌন হয়রানি, গোল্ডেন লাইনের চালক আটক
ফ্রান্সে পার্সেল বোমা হামলা, আহত ১৩


ভূমধ্যসাগর থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার
পিকআপের নিচে চাপা পড়া সেই চালকের মৃত্যু
গ্রিন বন্ডে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে
পেস বোলারদের ভালো করতেই হবে: রুবেল
পুলিশি অভিযানে মৃত্যু, এসআইসহ ৬ পুলিশ প্রত্যাহার