বডি ফিট তো সুপারহিট : সজল

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘আমরা যারা শোবিজে কাজ করছি, তাদের জন্য ফিটনেস খুব জরুরি। একটা কথা আছে, বডি ফিট তো সুপারহিট। ফিটনেসের প্রতি অন্যদের মতো আমিও তাই বেশ সচেতন।’ বললেন এই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা সজল।

‘আমরা যারা শোবিজে কাজ করছি, তাদের জন্য ফিটনেস খুব জরুরি। একটা কথা আছে, বডি ফিট তো সুপারহিট। ফিটনেসের প্রতি অন্যদের মতো আমিও তাই বেশ সচেতন।’ বললেন এই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা সজল। প্রায় প্রতিদিনই সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত শুটিং করেন। এত ব্যস্ততার মধ্যেও নিজের ফিটনেসের প্রতি কীভাবে দৃষ্টি রাখেন, বাংলানিউজকে এ বিষয়েই বলেছেন তিনি। পাশাপাশি বলেছেন তার ফ্যাশন ভাবনাও।

এক্সারসাইজের কিছু ইন্সট্রুমেন্ট সজলের ব্যক্তিগত সংগ্রহেই আছে। যত ব্যস্ততাই থাকুক না কেন প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে অন্তত আধঘণ্টা এক্সারসাইজ করা সজলের দীর্ঘদিনের অভ্যাস। একসময় নিয়মিত জগিং করতেন। এখন অবশ্য করা হয় না। বিকল্প হিসেবে বাসার ট্রেডমিল ইন্সট্রুমেন্টটা তাকে সহায়তা করে। তবে ফ্রি-হ্যান্ড এক্সারসাইজই সজলের বেশি পছন্দ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অতি মাত্রায় যন্ত্রনির্ভরতা আমার পছন্দ নয়। ফ্রি-হ্যান্ড এক্সারসাইজের কৌশলগুলো আমার জানা আছে। তাই ট্রেডমিল আর ডাম্বল ব্যবহার ছাড়া আমি ফ্রি-হ্যান্ড এক্সারসাইজের উপরই বেশি জোর দিই। তাছাড়া সপ্তাহে একবার আমি জিমে যাই। জিমে কতক্ষণ থাকি তার কোনো ঠিক-ঠিকানা নেই। কখনো দু ঘণ্টা অনেক সময় চার-পাঁচ ঘণ্টাও কাটিয়ে দিই।

শুধু এক্সারসাইজ করলেই তো চলে না, ফিটনেসের জন্য ডায়েটের ব্যাপারটাকে সজল বেশ গুরুত্ব দেন। মিষ্টি তার পছন্দের খাবার হলেও এখন তা এড়িয়ে চলেন। ফাস্টফুডও কম খান। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় সবজিকে প্রধান্য দেন। ভাতের মতো কার্বোহাইড্রেট খাবার যতটা পারেন কম খান, একবেলা ভাত খাওয়াটাই তিনি যথেষ্ট মনে করেন। জোর দেন প্রতিদিন ফলমূল খাওয়ার প্রতি।

ফ্রেশনেসের জন্য শীত-গ্রীষ্ম সব ঋতুতেই ঠা-া পানিতে দু বেলা গোসল চাই সজলের। সকালে বাইরে বের হবার আগে একবার আর বাইরে থেকে ফিরে একবার তিনি বেশ সময় নিয়ে গোসল করেন বলে জানালেন। শুটিং শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই চেষ্টা করেন মেকআপ তুলে ফেলার। অবশ্য শুটিংয়ে এমনিতে সজল মেকআপ নেন খুব কম।

সজল সবচেয়ে বিব্রত অবস্থায় আছেন চুল নিয়ে। এমনিতেই তার চুল বেশ পাতলা। তার ওপর চুল পড়ে যাচ্ছে। এজন্য একাধিক হেয়ার স্পেশালিস্টের পরামর্শও নিয়েছেন, সেগুলো মেনে চলার চেষ্টা করেন। ধুলোবালি থেকে চুলকে রক্ষা করতে খোলা জায়গায় গেলে ইদানীং তিনি ক্যাপ ব্যবহার করেন।

ফ্যাশনসচেতন অভিনেতা হিসেবে সজলের আছে বাড়তি পরিচিতি। যদিও সবসময় ক্যাজুয়েল থাকাটাই তার বেশি পছন্দ। সব ধরনের পোশাকই পরেন। টি-শার্ট আর জিন্স পরে স্বাচ্ছন্দ্য পান বেশি। সাদা রঙের পোশাকের প্রতি তার রয়েছে বিশেষ দুর্বলতা। নাটকে সজল নিজের পছন্দের পোশাকই বেশি পরেন। তবে স্ক্রিপ্ট আর চরিত্রের ধরন সবার আগে বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করেন। পোশাক নির্বাচনে সিকোয়েন্সকেও বেশ গুরুত্ব দেন। পরিচালকের সঙ্গে পোশাকের ব্যাপারটা নিয়ে কথা বলে নেন শুটিংয়ে যাওয়ার সপ্তাহখানেক আগেই।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৪০৫, অক্টোবর ২১, ২০১০

বরিশালে কিশোর দিনমজুরের আত্মহত্যা
আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসায়ী আটক, দুই ডিবি পুলিশ আহত
লঞ্চের টিকিট কালোবাজারী, ২ জনকে কারাদণ্ড
পরিকল্পিত আবাসন গড়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
নারায়ণগঞ্জের মন্দিরে আগুন, আতঙ্কে আহত ১০


কুমিল্লায় হাসপাতালের ল্যাবে অগ্নিকাণ্ড
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই যুবককে ছুরিকাঘাত
চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে পাকিস্তানের শোক
ক্রিকেট টুর্নামেন্টে অংশ নিতে বাংলাদেশি দল ভারতে
‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধি পান শেখ মুজিবুর রহমান