ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪ রজব ১৪৪২

আইন ও আদালত

বৃদ্ধাকে নির্যাতন: গৃহকর্মী রেখা ও তার স্বামী রিমান্ডে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২১
বৃদ্ধাকে নির্যাতন: গৃহকর্মী রেখা ও তার স্বামী রিমান্ডে

ঢাকা: রাজধানীর মালিবাগে সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া গৃহকর্মী রেখা আক্তার ও তার স্বামী ফরহাদ এরশাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৮ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) ঢাকার ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উর রহমান রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাহানপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রেজাউল করিম দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন।

আবেদনে বলা হয়, রেখা দীর্ঘদিন কাজের মেয়ে হিসেবে কাজ করে। তার স্বামীসহ পরিকল্পনাপূর্বক ভিকটিমের বাসায় আর কেউ না থাকার সুবাদে বাসা ফাঁকা পেয়ে গত ১৮ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে ১০ টা ৫৭ মিনিট পর্যন্ত রেখা ভিকটিম বিলকিস বেগমকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধর করে জখম করে। এছাড়া ২৪ ভরি স্বর্ণ, নগদ দুই লাখ টাকা ও একটি টেলিভিশন চুরি করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি অত্যন্ত লোমহর্ষক এবং চাঞ্চল্যকর।

আসামিদের কাছ থেকে আংশিক মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে। অবশিষ্ট চোরাই মাল উদ্ধার ও ঘটনার মূলরহস্য উদঘাটনে আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

বাদীপক্ষে অ্যাডভোকেট সামছুন নাহার খানমসহ কয়েকজন আইনজীবী শুনানিতে বলেন, ভুক্তভোগী একজন বৃদ্ধ মানুষ। তাকে এমনভাবে মেরেছে যে, এখন তিনি মুমূর্ষু অবস্থায় আছেন। তিনি একজন আইনজীবীর মা। তিনি আমাদেরও মা। আসামিরা এর আগে বিভিন্ন জায়গায় এ ধরনের ঘৃণিত অপরাধ করেছে। তারা পরিকল্পনা করে এসব করেছে। বাসায় কেউ না থাকলে সেই সময়টা কাজে লাগায়।  

তবে আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। এ সময় বিচারক রেখাকে জিজ্ঞাসা করেন, আপনার কিছু বলার আছে? তখন রেখা বলেন, বাসা থেকে যেসব জিনিসপত্র নিয়েছি সব জিনিস ফেরত দিয়েছি। আমার কাছে আর কিছু নাই। আমি ভুল করেছি। তখন আমার মাথা ঠিক ছিল না। আমাকে মাফ করে দিন।

শুনানি শেষে বিচারক ৮ দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) রাতে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার কাশিপুর গ্রামের মামার বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সেইসঙ্গে লুট করা স্বর্ণালঙ্কার, মােবাইল ও নগদ টাকাও উদ্ধার করা হয়। গৃহকর্মী রেখা মামার বাড়িতেই আত্মগােপনে ছিলেন।

তার বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের বড়পলাশবাড়ী গ্রামে।  

গত ১৮ জানুয়ারি সকালে রাজধানীর মালিবাগে একটি বাসার গৃহকর্ত্রী বিলকিস বেগমকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করে বাড়ির স্বর্ণালঙ্কার, মােবাইল, টিভি ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় রেখা আক্তার। সিসিটিভিতে সেই নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় অভিযান চালিয়ে রেখাকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২১
কেআই/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa