ঢাকা, রবিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৬ রজব ১৪৪২

আইন ও আদালত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এসপি-সিভিল সার্জনকে হাইকোর্টে তলব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২১
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এসপি-সিভিল সার্জনকে হাইকোর্টে তলব

ঢাকা: নাসিরনগরে ৭ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় মেডিক্যাল প্রতিবেদনে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য আসার ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তা এবং সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্ট ডাক্তারদের তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদের সশরীরে হাজির হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে মামলাটির কার্যক্রম তিন মাসের জন্য স্থগিত করে রুল জারি করেছেন উচ্চ আদালত।

পাশাপাশি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও পুলিশের আইজিকে এ ঘটনা তদন্ত করে একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রোববার (১৭ জানুয়ারি) বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মনিরুল ইসলাম। আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. শাহপরান চৌধুরী।

আইনজীবীরা জানান, গত বছরের ১১ সেপ্টেম্বর ভিকটিম শিশুর পিতা নাসিরনগর থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় বলা হয়, ৪ সেপ্টেম্বর তার ৭ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। মামলায় আসামির বয়স উল্লেখ করা হয় ১৫ বছর।

ওই মামলায় গত বছরের ৩ নভেম্বর শিশুটির পক্ষে আগাম জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। ওই জামিন আবেদনের শুনানিতে এ বিষয়গুলো উঠে আসে। পাশাপাশি শিশুটিকে আদালত আগাম জামিন দেন।

তার আইনজীবী শাহপরান চৌধুরী জানান, জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী শিশুর বয়স ১০ বছর। বয়স বিবেচনায় আমরা আদালতে জামিন প্রার্থনা করি। আদালত আমাদের আবেদনের শুনানি নিয়ে মামলার প্রয়োজনীয় নথিপত্র দাখিল করতে নির্দেশ দেন।  দাখিলকৃত মেডিক্যাল রিপোর্ট দেখে আদালতের খটকা লাগে। এর ধারাবাহিকতায় রোববার আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ এ আদেশ দেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২১
ইএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa