শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে তলব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাইকোর্টের ফাইল ফটো

walton

ঢাকা: একটি হত্যা মামলায় একই সময়ে তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আগামী ২৯ মার্চ তাকে স্বশরীরে হাইকোর্টে এসে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে হবে। ওই মামলায় দুই আসামির জামিন শুনানিকালে রোববার (১ মার্চ) বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সাব্বির হামজা চৌধুরী ও রেজাউল করিম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন (বাপ্পী)।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন (বাপ্পী) বলেন, আদালত দুই আসামীকে জামিন দিয়ে একই সময়ে তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ২৯ মার্চ শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

এদিকে রেজাউল করিম জানান, ২০১৮ সালের ৫  জুলাই ভ্যান চালক খলিল ফকির হত্যার অভিযোগে দুইজনকে আসামি করে শরীয়তপুরের জাজিরা থানায় মামলা করা হয়। পরে মামলার অভিযোগপত্রে রুবেল চৌকিদার, লিটন সানি ও আলী হোসেন বেপারীকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। 

ওই মামলায় ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করেন শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীন। যেখানে তিনজনের একই সময় দেখানো হয়েছে।

পরবর্তীতে এ মামলার দুই আসামি লিটন সানি ও মো. আলী হোসেন বেপারী জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানান। ওই আবেদনের শুনানিতে বিষয়টি উঠে আসায় অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেন। একই সঙ্গে দুই আসামি লিটন সানি ও মো. আলী হোসেন বেপারীকে ৬ মাসের জন্য জামিন দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০২০
ইএস/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আদালত
Nagad
মুন্সিগঞ্জে কমতে শুরু করেছে পদ্মার পানি 
অবশেষে মুক্তি পেলেন খুলনার নিরপরাধ সালাম ঢালী
ভার্চ্যুয়াল নয়, ‌অ্যাকচুয়াল কোর্ট চান আইনজীবীরা
নুরে আলম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি
বিনামূল্যে ইন্টারনেট পাওয়া শিক্ষার্থীদের অধিকার


করোনা আক্রান্তের ঝুঁকির মধ্যেই স্বাভাবিক হচ্ছে নগরজীবন!
ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা
ক্ষেতলালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
এবার ফ্লোরিডায় মানুষের মগজখেকো অ্যামিবার হানা! 
পিরোজপুরে মতানৈক্যের কারণে উন্নয়নে বরাদ্দকৃত টাকা ফেরত