বৃষ্টির পূর্বাভাসে প্রকাশকদের সতর্ক করলো গিল্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কলকাতার বইমেলার গেইট। ছবি: বাংলানিউজ

walton

সল্টলেক (কলকাতা): গেলো সপ্তাহেই বৃষ্টির জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল কলকাতা বইমেলা। প্রকাশকদের অভিযোগ ছিল, বৃষ্টিতে প্রচুর বই ভিজে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। গিল্ড হাউসে অভিযোগও করেছেন অনেকে।

এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা থেকে কলকাতায় বৃষ্টি নামার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। যার কারণে বইমেলায় প্রকাশকদের সতর্ক করলো মেলার আয়োজক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ড কর্তৃপক্ষ। যদি বৃষ্টি হয় সেক্ষেত্রে প্রকাশকরা যেন ক্ষতির মুখে না পড়েন, সে জন্যই এ সতর্কবার্তা।

এর আগে বইমেলায় বৃষ্টির কবলে পড়ে বহু প্রকাশকের বই নষ্ট হয়ে গেছে। গিল্ড কোনো ক্ষতিপূরণ দেবে কি-না সে ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত কিছু জানায়নি। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বইমেলায় ঘোষণা করা হয়েছে, ‘বৃষ্টির পূর্বাভাসের কারণে প্রকাশকরা সতর্ক থাকুন।’ অনেকে প্রকাশক ইতোমধ্যেই ত্রিপল টাঙাতে শুরু করেছে নিজেদের স্টলে। কোনো কোনো বই বিক্রেতা অভিযোগ করেছেন, গিল্ডের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া উচিৎ ছিল।

এ বিষয়ে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশুশেখর দে বাংলানিউজকে বলেন, গিল্ড বৃষ্টির মোকাবিলা করার জন্য নানা ব্যবস্থা নিয়েছে। তবে কালবৈশাখীর মতো ঝড় হবে সেটা বোঝা যায়নি। তবে এবার বৃষ্টি হলে আমরা সামলে নেবো।

সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে চলছে ৪৪তম কলকাতা বইমেলা। মেলা চলবে ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বইমেলা খোলা থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০
ডিএন/এফএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: কলকাতা বইমেলা
একই পরিবারের ৬ জন করোনায় আক্রান্ত, এলাকা লকডাউন
করোনার তথ্য পেতে ওয়েবসাইট চালু
পটুয়াখালীতে একদিনে বজ্রপাতে মৃত্যু ৪
পণ্যবাহী বাহনে যাত্রী পরিবহন করলে আইনানুগ ব্যবস্থা
ত্রাণ পেয়ে দু’দিনের জন্য নিশ্চিন্ত প্রতিবন্ধী সাবলু


হটলাইনে জেসার চিকিৎসাসেবা, থাকছেন ১৫০ চিকিৎসক
থামছেই না গলির আড্ডা
এক লাখ দিনমজুরকে রেশন দিচ্ছেন অমিতাভ বচ্চন
না'গঞ্জে লকডাউন হলো যেসব এলাকা
ধন্যবাদ না দিয়ে আদেশ করতে বললেন শাহরুখ