ক্ষতিতে আইলাকেও ছাপিয়ে যেতে পারে ‘ফণী’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী ছবি

walton

কলকাতা: ফণী চূড়ান্ত রূপে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে আছড়ে পড়বে বলে এখনো জানাচ্ছে কলকাতার আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর প্রভাব থাকবে কলকাতাতেও। আর ক্ষতিতে ১০ বছর আগের ঘূর্ণিঝড় আইলাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

php glass

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, উপকূলবর্তী এলাকায় কাঁচা ও বেড়ার বাড়িগুলি পুরোপুরি বিধ্বস্ত হতে পারে বলে। ক্ষতি হবে পাকা বাড়িরও।

ফণীর কারণে ক্ষতির মুখে পড়বে পশ্চিমবঙ্গের রাস্তাঘাট ও শস্যক্ষেত বা ফসলি জমি।

২০০৯ সালে ঘূর্ণিঝড় আইলা রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গকে বিপর্যস্ত করে দিয়েছিল। ঠিক সেই রকম ক্ষয়ক্ষতির সাক্ষী হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ।

আইলার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১১০ থেকে ১১২ কিলোমিটার। সে তুলনায় ফণীর গতিবেগ অনেক বেশি। ঘণ্টায় ১২০ থেকে ১৭০ কিলোমিটার গতিতে ফণী পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে আছড়ে পড়বে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বোঝাই যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আইলাকেও ছাপাবে ফণী।

কলকাতা পৌরসভার তরফে সমস্ত ইঞ্জিনিয়ারদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে যাতে সবাইকে ২৪ ঘণ্টা ফোনে পাওয়া যায়, সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ঘূর্ণিঝড় আটকাতে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর আটটি দল মোতায়েন করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের দীঘা, মন্দারমুনি প্রভৃতি সমুদ্রতটের কাছাকাছি থাকা পর্যটকরা বৃহস্পতিবারের মধ্যে এলাকা ছেড়েছে। শুক্র ও শনিবার সরকারি ঘোষণায় স্কুল ছুটি দেওয়া হয়েছে রাজ্যে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৭১১ ঘণ্টা,  মে ০২, ২০১৯
ভিএস/এএ

তিউনিসিয়ায় উদ্ধার ১৫ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন
মধু মাসের ফল লিচুর কদর
ঈদে দুঃস্থদের জন্য ১৫ কেজি করে চাল বরাদ্দ
রোনালদোর হাতের ট্রফির আঘাতে ছেলের মুখে চোট
ঈদে গহনা কিনতে চাচ্ছেন?


৪৬৮ জন ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নেবে ইসি
ফের ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট উইদোদো
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
নিম্নমানের কাগজে পাঠ্যবই মুদ্রণ, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার
বন্ড সুবিধার অপব্যবহারে বিপন্ন দেশি কাগজশিল্প