একুশের ভাস্কর্য: জননী ও গর্বিত বর্ণমালা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

একুশ আমাদের অহংকার, গৌরব। বাংলার ইতিহাসে একটি তাৎপর্যপূর্ণ দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। তাই একুশের চেতনা জাগ্রত করতে এবং তরুণ প্রজন্মকে দিনটির তাৎপর্য সম্পর্কে সচেতন করতে নির্মিত হয়েছে বেশ কিছু ভাস্কর্য।

একুশ আমাদের অহংকার, গৌরব। বাংলার ইতিহাসে একটি তাৎপর্যপূর্ণ দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। তাই একুশের চেতনা জাগ্রত করতে এবং তরুণ প্রজন্মকে দিনটির তাৎপর্য সম্পর্কে সচেতন করতে নির্মিত হয়েছে বেশ কিছু ভাস্কর্য।

এই ভাস্কর্যগুলো আমাদের ভাষা আন্দোলনের গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিকে ধারণ করে। এগুলোর মধ্যে একটি ‘জননী ও গর্বিত বর্ণমালা’।

ঢাকার পরিবাগে নির্মাণ করা হয়েছে একুশের এ ভাস্কর্যটি। এটির নকশা করেছেন শিল্পী মৃণাল হক। এ বছর ২০ ফেব্রুয়ারি ভাস্কর্যটি উদ্বোধন করা হয়।

জননী ও গর্বিত বর্ণমালা ভাস্কর্যে দেখা যায় একজন মা তার মৃত সন্তানকে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। তার সামনে একটি সবুজ বৃত্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে কয়েকটি বাংলা বর্ণ। পেছনে লাল বৃত্তে রয়েছে ‘২১’ এবং ‘ব  ও ‘ক’।

আমাদের ভাষা আন্দোলনের ইতিহাসটা শুধু গৌরবময় নয়, এই ইতিহাস করুণ, ত্যাগের ইতিহাস। সেকথাই বারবার স্মরণ করিয়ে দেয় জননী ও গর্বিত বর্ণমালা।

**একুশের ভাস্কর্য: মোদের গরব

বাংলাদেশ সময়: ১১১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৬
এএ

ফেনীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুনের অভিযোগ!
বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সাহায্য বৃদ্ধির সম্ভাবনা জাতিসংঘে
রংপুরে বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিহত ২, আহত ২৫
দিনাজপুরে উন্নয়ন কনসার্ট সম্পন্ন
সিলেটে থানা হাজত থেকে ছাড়া পেলেন দুই বিএনপি নেতা
প্রসূতি সেবায় সম্মাননা পেলো ফেনী সদর হাসপাতাল
রংপুরে ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের বর্ষপূতি উদযাপন
নেত্রকোনায় যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
পাঁচ ম্যাচ পর জয় পেল রিয়াল
ফেনীতে মেয়ে শিশুর উপর নির্মম নির্যাতন