php glass

১৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য মডেল মসজিদের কাজ বন্ধ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাজবাড়ী জেলা মডেল মসজিদের নকশা

walton

রাজবাড়ী: শুরু হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই থমকে গেছে নির্মিতব্য ৪ তলা বিশিষ্ট রাজবাড়ী জেলা মডেল মসজিদের নির্মাণকাজ। মূলত জায়গা নিয়ে জটিলতার কারণে নির্মাণকাজ স্থগিত রয়েছে বলে, ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে। এছাড়াও জানা গেছে, মসজিদটি নির্মাণে প্রায় ১৬ কোটি টাকা ব্যয় হওয়ার কথা।

জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড কর্মকর্তা ফিরোজ আল-মামুন বাংলানিউজকে বলেন, রাজবাড়ী জেলাবাসী উপজেলা মসজিদের পাশাপাশি জেলা মসজিদটি নির্মাণ হোক এটা তাদের দাবি। জায়গার সমস্যার কারণে কাজ বন্ধ রয়েছে। আমরা আশা করছি, অতিদ্রুত নতুন জমি নির্ধারণ করে মসজিদটির নির্মাণকাজ শুরু করা হবে।

জেলা ওলামালীগের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবুল বাশার বাংলানিউজকে বলেন, মসজিদটি জেলাবাসীর প্রাণের দাবি। সবাই চায় জেলা মসজিদটির নির্মাণকাজ অতিদ্রুত শুরু হোক।

রাজবাড়ী জেলা মসজিদ নির্মাণকাজ স্থগিত হওয়ার বিষয়ে গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শম্ভু রাম পাল বাংলানিউজকে বলেন, রেলওয়ের জমিতে জেলা মডেল মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছিল। টেন্ডারের মাধ্যমে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স শামীম এন্টার প্রাঃ কুষ্টিয়া। কাজের অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে আংশিক পুকুর ভরাট ও শতাধিক পাইলিং তৈরির কাজ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
রাজবাড়ী জেলা মডেল মসজিদের নির্মাণকাজ, ছবি: বাংলানিউজ
নির্মাণকাজ শুরু হওয়ার পরপরই রেলেওয়ে বিভাগ থেকে তাদের জমিতে কাজ স্থগিত করতে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে মসজিদ নির্মাণের জন্য নতুন জমি খোঁজ করা হচ্ছে। সরকারিভাবে নতুন জমি নির্ধারণ হলে জেলা মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হবে। মসজিদটি হবে ৪ তলা। সেখানে কয়েক হাজার হাজার মানুষ একসাথে নামাজ আদায় করতে পারবে। পাশাপাশি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম চলবে। এটি নির্মাণ হলে সৃষ্টি হবে একটি দৃষ্টি নান্দনিক স্থাপনা।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, জেলা মডেল মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে উর্দ্ধতন পর্যায়ে আলোচনা চলছে। স্থান নির্ধারণ ও অনুমতি পেলে জেলা মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ হবে।

রাজবাড়ী গণপূর্ত বিভাগ কার্যালয় থেকে জানা গেছে, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় মসজিদগুলো নির্মাণ করবে গণপূর্ত বিভাগ। প্রতিটি মসজিদ নির্মাণে লাগবে ৪৩ শতাংশ জমি।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয় কর্তৃক (সূত্র নং: ০১/ভবনস্থাপন/২০১৫/তারিখ-১৫/০২/২০১৫) জানা গেছে, রাজবাড়ী জেলা মসজিদের স্থান নির্ধারণ করা হয় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ থেকে ১শ মিটার দূরে রেলওয়ে কলোনী জামে মসজিদের পাশে। ৫/৫/২০১৮ইং তারিখে কাজ শুরু হয়। হঠাৎ করেই মসজিদ নির্মান কাজ স্থগিতের জন্য গত ৩০/৬/২০১৯ তারিখে মহা পরিচালক, বাংলাদেশ রেলওয়ে,রেল ভবন, ঢাকা বরাবর একটি চিঠি প্রেরণ করেন বাংলাদেশ রেলওয়ে, রাজশাহী, (পশ্চিম) বাংলাদেশের চিফ এন্সেট অফিসার ড. মো. আবদুল মান্নান। তারপর থেকেই নির্মাণ স্থানের জায়গায় সমস্যার কারণে কাজ বন্ধ হয়ে যায়।

পাশাপাশি জেলার সদর, পাংশা, বালিয়াকান্দি, গোয়ালন্দ ও কালুখালী উপজেলায় চলছে উপজেলা মডেল মসজিদ নির্মাণের কাজ।

বাংলাদেশ সময়: ১১২২ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১৯
এমএমইউ/

ksrm
নদী মেঘনাকে গ্রাস করছে গ্রুপ মেঘনা!
বরিশালে ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত যুবকের যাবজ্জীবন
বোমা নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে উড়ে গেল র‌্যাব সদস্যের কব্জি
রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যুক্তরাষ্ট্র-চীনের প্রতিনিধি দল
উপাচার্যের মিথ্যাচারের প্রতিবাদে জাবিতে বিক্ষোভ 


ঢাকা ওয়াসার ‘বিল কালেকশন অ্যাওয়ার্ড’ পেলো ইউসিবি
শিগগিরই উৎপাদনে যাবে ১ম ভাসমান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র
দল ও দেশকে এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রীর কঠোর বার্তা
শিশু বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক
দামুড়হুদায় হুন্ডির সাড়ে ৩০ লাখ টাকাসহ আটক ১