php glass

মিরাজের রাতে মহানবী (সা.) যেসব পাপীকে দেখেছেন 

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : প্রতীকী

walton

মিরাজ আল্লাহর প্রিয়নবী (সা.) এর অন্যতম শ্রেষ্ঠ অলৌকিক কীর্তি বা মুজেজা। মিরাজে  গিয়ে তিনি জান্নাত ও জাহান্নাম সচক্ষে অবলোকন করেন। সে রাতে তিনি কী কী দেখেছেন এবং কার কার সঙ্গে কথা বলেছেন, হাদিসের কিতাবে সেগুলোর বর্ণনা এসেছে।

হাদিসে এসেছে, ‘তিনি জাহান্নামে একদল লোক দেখলেন, যারা তামার তৈরি নখ দিয়ে অনবরত নিজেদের মুখমণ্ডল ও বুকে আঁচড় মারছে। জিবরাইল (আ.) বললেন, এরা মানুষের গোশত খেত (গিবত ও পরনিন্দা করত)। (আবু দাউদ, হাদিস নং: ৪৮৭৮, মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং: ৩/২২৪, তাফসিরে ইবনে কাসির, হাদিস নং: ৫/৯)

এরপর তিনি এমন কিছুসংখ্যক লোকের পাশ দিয়ে অতিক্রম করলেন, যাদের জিব ও ঠোঁট আগুনের কাঁচি দিয়ে কাটা হচ্ছে। জিবরাইল (আ.) বলেন, এরা আপনার উম্মতের দুনিয়ায় স্বার্থপূজারি উপদেশদাতা, যারা অন্যকে সৎ কাজের নির্দেশ দিত, কিন্তু নিজের খবর রাখত না। (মা’আরেফুল   কোরআন : ৩৭, মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং : ১২২১১)

অতঃপর এমন এক সম্প্রদায়কে দেখলেন, পাথর দ্বারা যাদের মাথা চূর্ণবিচূর্ণ করা হচ্ছে। জিবরাইল (আ.) বলেন, তারা নামাজে অলসতা করত। (ফাতহুল বারি : ৭/২০০)

আল্লাহ আমাদের সব ধরনের গুনাহ থেকে বেঁচে থাকার তাওফিক দান করুন। আল্লাহর আদেশ ও তার রাসুল (সা.) এর আদর্শ মোতাবেক জীবন গঠনের তাওফিক দান করুন।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ২০৫১ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৩, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
টানা তিন কার্যদিবস পুঁজিবাজারে সূচকের পতন
রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেসের যাত্রা বাতিল
‘৪৪ বছরে নৌ-দুর্ঘটনায় ৪৭১১ জনের প্রাণহানি’
চূড়ান্তভাবে নিষিদ্ধ হলো রেনিটিডিন 
বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে এএফএমসিতে র‌্যালি-সেমিনার


শিশুদের খেলার মাঠ সৃষ্টিতে আইন জরুরি: সমবায়মন্ত্রী
অর্থমন্ত্রীর পরিবারের আয়কর ৭ কোটি টাকা
নির্মূল হয়নি ডেঙ্গু, মৃত্যু ১১২
রংপুর এক্সপ্রেস লাইনচ্যুতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি
চট্টগ্রামেও শুদ্ধি অভিযান প্রয়োজন: সুজন