মুসল্লিদের আগমনে জমে উঠছে ইজতেমা ময়দান

মো. রাজীব সরকার, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মুসল্লিদের আগমনে জমে উঠছে ইজতেমা ময়দান। ছবি : বাংলানিউজ

walton

গাজীপুর: তাবলিগ জামাত আয়োজিত ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ তীরের ময়দান মুসল্লিদের আগমনে কানায় কানায় ভরে উঠছে। ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের উপস্থিতিতে বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ব ইজতেমা ময়দান প্রায় পূর্ণ হয়ে গেছে।

বিশ্ব ইজতেমার আয়োজকদের সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালে বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে গত কয়েকদিন থেকেই মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেছেন। এতে ময়দান প্রায় অর্ধেক পরিপূর্ণ হয়ে গেছে।

এবারের বিশ্ব ইজতেমা শুরু হবে শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি)। প্রথম পর্ব পরিচালনা করবেন বাংলাদেশ তাবলিগ জামাতের আহলে শুরার অন্যতম হাফেজ মাওলানা জুবায়ের আহমদ। ১৬ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) দুপুরের আগে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের ইজতেমা শেষ হবে।

পরে রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ও সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা পরিচালনা করবেন সাদপন্থীরা। সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে সে পর্ব।

নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা তোতা মিয়া নামে এক মুসল্লি জানান, এবার বিশ্ব ইজতেমা জেলাভিত্তিক নয়। যার কারণে সারা দেশের  প্রত্যেক জেলা থেকে মুসল্লিরা ইজতেমায় আসতে শুরু করেছেন। জায়গা না পাওয়ার শঙ্কায় আগে ভাগেই ইজতেমা ময়দানে আসা হয়েছে। প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দেই। এবারও এসেছি। মুরুব্বিদের বয়ান শুনতে ও আল্লাহ ইবাদত করতে।

বিশ্ব ইজতেমা আয়োজক কমিটির সদস্য মো. ইলিয়াস জানান, এবার বিশ্ব ইজতেমা বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বাদ ফজর থেকে আম বয়ান শুরু হবে। আগামী শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
আরএস/এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
Nagad
‘করোনা অনুপ্রবেশকারীদের চেনার সুযোগ করে দিয়েছে’
শূন্য ১৮০ পদ, বন্ধের পথে রেলওয়ের অপারেশন কার্যক্রম
আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা
পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী
ঢাকায় ৭ জুলাই থেকে ফ্লাইট চালাবে মালিন্দ এয়ার


দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ষসেরা ক্রিকেটার ডি কক
কাউকেই অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হবে না: সচিব
ডিএসইর চেয়ে বেশি লেনদেন সিএসইতে
সৈয়দপুরে করোনায় আরও একজনের মৃত্যু
না’গঞ্জে করোনায় মারা যাওয়া মুক্তিযোদ্ধার দাফনে খোরশেদ