জার্মানির সংসদে প্রথম মুসলিম স্পিকার

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

জার্মানির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো মুসলিম নারী একটি প্রদেশের পার্লামেন্টের স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন। তার নাম মুহতেরেম আরাস (Muhterem Aras)। তিনি গ্রিন পার্টির সদস্য। বুধবার জনপ্রিয় অভিবাসন-বিরোধী এএফডি দলকে হারিয়ে বাডেন উটেমবার্গ প্রদেশে তিনি পার্লামেন্ট স্পিকার নির্বাচিত হোন।

জার্মানির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো মুসলিম নারী একটি প্রদেশের পার্লামেন্টের স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন। তার নাম মুহতেরেম আরাস (Muhterem Aras)। তিনি গ্রিন পার্টির সদস্য। বুধবার জনপ্রিয় অভিবাসন-বিরোধী এএফডি দলকে হারিয়ে বাডেন উটেমবার্গ প্রদেশে তিনি পার্লামেন্ট স্পিকার নির্বাচিত হোন। এটাকে ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে অভিহিত করা হচ্ছে।

উল্লেখযোগ্য সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে নির্বাচিত হওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘আমরা আজ ইতিহাস লিখেছি।’

স্থানীয় পত্রিকাগুলো জানিয়েছে, আরাস (৫০) এই বিজয়ের পর বলেন, এই বিজয় উন্মুক্ততা, সহনশীলতা ও ঐক্যেরই ইঙ্গিত দেয়।

তুরস্ক জন্মগ্রহণকারী আরাস ছোটবেলায় তার বাবা-মার সঙ্গে জার্মানির স্টুটগার্ট শহরের কাছাকাছি একটি এলাকায় বসবাস করেন। এরপর অর্থনীতি বিষয়ে পড়াশুনা শেষে নিজের একটি ট্যাক্স পরামর্শক প্রতিষ্ঠান খোলেন।

তার রাজনৈতিক জীবন শুরু ১৯৯২ সালে। স্থানীয় কাউন্সিলে গ্রিন পার্টির পক্ষ থেকে দাঁড়িয়ে নির্বাচিত হোন। ক্রমেই দলকে তিনি জনপ্রিয় করে তোলেন এবং বাডেন উটেমবার্গ প্রদেশ পার্লামেন্ট প্রতিনিধিত্ব করার পর্যায়ে নিয়ে যান। এবার তিনি ৯৬ জন স্থানীয় এমপির ভোটে প্রথম মুসলিম নারী স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত হলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩১ ঘন্টা, মে ১৪, ২০১৫
এমএ/

Nagad
করোনায় রিজেন্ট হাসপাতাল মালিকের বাবার মৃত্যু
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক
সাহারা খাতু‌নের মৃত্যুতে মন্ত্রীদের শোক
সাহারা খাতুন ছিলেন আ.লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা: রাষ্ট্রপতি
স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ সম্মানী দেবে সরকার


আমি পরীক্ষিত ও বিশ্বস্ত সহযোদ্ধাকে হারালাম: প্রধানমন্ত্রী
সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই
সৌদি থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ৪১৮ বাংলাদেশি
সিলেট জেলাতেই আক্রান্ত ৩ হাজার ছাড়াল
খুলনার তেরখাদায় সন্ত্রাসী জিলু মুন্সি গ্রেফতার