মালয়েশিয়ার কোরআন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশি কারির সাফল্য

রফিক আহমদ খান, কুয়ালালামপুর থেকে | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে। ২ মে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় কেরাত ও হেফজ বিভাগে ৬৯টি দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে। ২ মে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় কেরাত ও হেফজ বিভাগে ৬৯টি দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। শনিবার রাতে (৭ মে)পাঁচ দিনব্যাপী  এ প্রতিযোগিতার ফলাফল ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

মালয়েশিয়ার আওকাফ ও ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত এ প্রতিযোগিতার শেষ দিনে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরবিষয়ক মন্ত্রী দাতু জামিল খাইর বাহারুম। অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ায় নিয়োজিত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের পুরুষ প্রতিনিধি কেরাত বিভাগের প্রতিযোগি কারি তাওহিদ বিন আলী ৮ম স্থান লাভ করেন।

আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতায় পুরুষ হেফজ বিভাগে প্রথম স্থান অধিকার করেন মিসরের হাফেজ  আবদুল্লাহ সাইদ মোহম্মদ। আর মেয়েদের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন মিসরের হাফেজ মায়াদা মাহমুদ। দ্বিতীয় হয়েছেন মালয়েশিয়ার হাফেজ ফারিহা বিনতে যুলকিফল, তৃতীয় হয়েছেন লেবাননের হাফেজ আসমা আদরা।

হাফেজ বিভাগে পুরুষদের মধ্যে দ্বিতীয় হয়েছেন মালয়েশিয়ার হাফেজ মোহাম্মদ ওমর বিন মনসুর, তৃতীয় যুক্তরাষ্ট্রের হাফেজ হামযা ইলহাবাসি

কারিদের (পুরুষ) মধ্যে প্রথম হয়েছেন মালয়েশিয়ার কারি ওআন আইনুদ্দিন হিলমি বিন আবদুল্লাহ। দ্বিতীয় হয়েছেন ব্রুনাইর কারি আদিবুল আমিন, তৃতীয় ইন্দোনেশিয়ার কারি হাজি আলাউদ্দিন, চতুর্থ হয়েছেন ইরানের কা্রি সৈয়দ মোস্তাফা হোসাইনি, পঞ্চম হয়েছেন ফিলিপাইনের মোহাম্মদ নাদির আসগর।

কারি মহিলা বিভাগে প্রথম হয়েছেন মালয়েশিয়ার কারি নূর আজরা বিনতে আয়ুব। দ্বিতীয় স্থানে ইন্দোনেশিয়ান কারি মাস্তিয়া লেস্তালুহু, তৃতীয় ব্রুনাইর কারি সিতি হাজ্জাইমা, চতুর্থ হয়েছেন মরক্কোর কারি সালমা ও পঞ্চম স্থানে রয়েছেন ফিলিপাইনের কারি সাবাহা সালিক।

৫৮তম আন্তর্জাতিক এ কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন দুই বাংলাদেশি প্রতিনিধি। কেরাত পুরুষ গ্রুপে নরসিংদী জেলার কারি তাওহিদ বিন আলী। আর মেয়েদের গ্রুপে ঢাকার কারি শামসুন্নাহার সিদ্দিকা। প্রতিযোগিতায় এই দুই বাংলাদেশি প্রতিনিধির বিশুদ্ধ উচ্চারণ ও সুকণ্ঠের তেলাওয়াত উপস্থিত বিচারক ও দর্শকদের প্রশংসা কুড়ায়।

আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতার বিচারক প্যানেলে ছিলেন মালয়েশিয়া, ব্রুনাই, জর্ডান, সৌদি আরব, লেবানন, মিসর ও থাইল্যান্ডের প্রসিদ্ধ কারি ও হাফেজরা।
 
আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার ছিলো নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য ১৮ হাজার ডলার মূল্যের সোনার বার ও নগদ ১০ হাজার ডলার।

মালয়েশিয়ার প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশিদের তেলাওয়াতে মুগ্ধ বিচারকরা

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘন্টা, মে ০৮, ২০১৬
এমএ/

Nagad
শিরোপার সুবাস পাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ
করোনায় বগুড়া পল্লী উন্নয়ন একাডেমির মহাপরিচালকের মৃত্যু
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ১৯২ জন
সংকটে প্রকাশনা শিল্প, করোনায় ক্ষতি ৪শ’ কোটি
লালমনিরহাটে চাষ হচ্ছে ড্রাগন ফল


এরশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যানের ইন্তেকাল
দেবে গেছে ২০০% বাড়তি ব্যয়ে নির্মিত রেলপথের কুশন ব্যালাস্ট
ঢেলে সাজানো হবে জাতীয় জাদুঘর
যশোরে রাসেল হত্যা মামলায় আরও দুই আসামি গ্রেফতার
মণিরামপুরে ট্রাক থেকে কাঠের গুঁড়ি পড়ে পথচারীর মৃত্যু