ব্রিটেনে লকডাউন শিথিলে জনসনের ‘শর্তসাপেক্ষ পরিকল্পনা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ছবি: সংগৃহীত

walton

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে যুক্তরাজ্যে জারি করা লকডাউন তুলে নেওয়ার পরিকল্পনার ‘রোডম্যাপ’ প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। শিগগিরই এ পরিকল্পনার বিস্তারিত প্রকাশ করতে যাচ্ছেন তিনি।

সোমবার (১১ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে ব্রিটিশ জনগণের লকডাউন তুলে নেওয়া সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেবেন তিনি। একইসঙ্গে ৫০ পৃষ্ঠার আনুষ্ঠানিক নির্দেশনা প্রকাশ করবে ব্রিটিশ সংসদ।

তবে বিরোধীদল লেবার পার্টির নেতা স্যার কেইর স্টারমার সমালোচনা করে বলেছেন জনসনের পরিকল্পনার স্পষ্ট নয়।

রোববার (১০ মে) টেলিভিশনে দেওয়া এক বিবৃতিতে যুক্তরাজ্যের অর্থনীতি ফের চালু করার জন্য ‘শর্তসাপেক্ষ পরিকল্পনা’ ঘোষণা করেন জনসন। এ পরিকল্পনা অনুযায়ী, বুধবার (১৩ মে) থেকে যুক্তরাজ্যের অধিবাসীরা আরও বেশি সময় বাড়ির বাইরে অবস্থান করার অনুমতি পাবেন।

উৎপাদন ও নির্মাণসহ যেসব খাতের কর্মীরা বাড়ি থেকে কাজ করতে পারবেন না, সোমবার থেকে তাদের কর্মক্ষেত্রে ফিরে যেতে উৎসাহ দেওয়া হলেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গণপরিবহন এড়িয়ে যেতে বলা হয়েছে। কর্মক্ষেত্র ‘কোভিড-নিরাপদ’ রাখতে নিয়োগকর্তাদের জন্য নির্দেশনা তৈরির কাজ করছে সরকার।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, তিনটি স্তরে লকডাউন তুলে নেওয়া হবে। প্রথম স্তরে বুধবার থেকে জনগণকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বাইরে ব্যায়াম, রোদ পোহানো বা পার্কের বেড়ানো ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে খেলার অনুমতি দেওয়া হবে। দু’টি আলাদা পরিবারের সদস্যরা পরস্পরের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন কিন্তু একে অপরের কাছ থেকে দুই মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

লকডাউন তুলে নেওয়ার দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্তর শুরু হবে ১ জুন বা তারপর থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও স্কুল খোলার মাধ্যমে। অন্তত ১ জুনের আগে প্রাইমারি স্কুল খোলা হবে না বলে জানান বরিস জনসন। প্রথম ও ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণের মধ্য দিয়ে স্কুল চালু করা যেতে পারে। আগামী বছর মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়ার ‘আকাঙ্ক্ষা’ প্রকাশ করেছে সরকার। গ্রীষ্মের ছুটির আগে তাদের স্কুলে ফেরানোর পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। তৃতীয় স্তরে কিছু বিনোদনকেন্দ্র খুলে দেওয়া হতে পারে।

এদিকে ওয়েলশ সরকার জানিয়েছে, ১ জুনের আগে স্কুল খোলার সম্ভাবনা নেই।

স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টারজন মন্তব্য করেছেন, ১ জুনের আগে স্কুল খোলার আশা তিনি করেন না।

ভাইরাসের ঝুঁকি বোঝাতে এক থেকে পাঁচ পর্যন্ত ‘বিপদসঙ্কেত’ ব্যবহার করা হবে। পাঁচ হচ্ছে সর্বোচ্চ বিপদসঙ্কেত। বর্তমানে যুক্তরাজ্য চার নম্বরে রয়েছে।

ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়লে আবারও বিধিনিষেধ আরোপ করতে ‘দ্বিধা’ করবেন না বলে জানিয়েছেন জনসন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৪ ঘণ্টা, মে ১১, ২০২০
এফএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: যুক্তরাজ্য বরিস জনসন
করোনায় মৃত বিএনপি নেতার মরদেহ দাফন করলো ছাত্রলীগ
ফিরতে হচ্ছে প্রকৃতির কাছে, তুলসী পাতা আছে তো ঘরে?
রোববার চট্টগ্রাম থেকে ৩ ট্রেনে যাত্রী যাবেন ১০৪০ জন
করোনা: জনপ্রতিনিধিদের আরও বেশি সম্পৃক্ত করার নির্দেশ
পাথরঘাটায় হরিণের মাথা-চামড়া জব্দ


রাজনীতির ইতিহাসে কালজয়ী জিয়া: এলডিপি
ফেরিঘাট দেখে সারাদেশ মূল্যায়ন করা যাবে না
করোনাকালে বাল্যবিয়ের চেষ্টা, বর-কনের অভিভাবকের জরিমানা
বশেমুরবিপ্রবির উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের করোনা শনাক্ত
পাইলটের করোনা, মাঝপথ থেকে ফিরলো এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইট