এবার প্রাণীর ওপর করোনার প্রতিষেধক পরীক্ষায় রাশিয়া  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি- প্রতীকী

walton

দুনিয়াজুড়ে মৃত্যুতরঙ্গ বইয়ে চলেছে প্রাণঘাতী করোনা। দিন দিন বেড়েই চলেছে এর মরণছোবল। কিন্তু আপাতত প্রতিরোধের চেষ্টা ছাড়া বেশি আর কিছুই করা যাচ্ছে না এর বিরুদ্ধে, কেননা এখনও কোনো প্রতিষেধক উদ্ভাবিত হয়নি করোনার। 

তবে দেশে দেশে বিজ্ঞানীরা জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এর প্রতিষেধক উদ্ভাবনে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালো রাশিয়া। এরই মধ্যে দেশটি প্রাণীর শরীরে করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক পরীক্ষার কাজ শুরু করেছে। 

শুক্রবার (২০ মার্চ) রাশিয়ার কনজ্যুমার হেলথ রেগুলেটর এ তথ্য জানায়।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের  খবরে জানা যায়, গত সোমবার (১৬ মার্চ) থেকে সাইবেরিয়ার একটি ল্যাবরেটরিতে প্রাণীর শরীরে করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য প্রতিষেধকের প্রটোটাইপ পরীক্ষার কাজ শুরু করেছে রাশিয়া। 

নভোসিবির্স্ক শহরের ভেক্টর স্টেট ভাইরোলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি সেন্টার ৬টি ভিন্ন ভিন্ন প্রযুক্তি প্ল্যাটফর্মে ওই পরীক্ষা শুরু করেছে বলে জানায় স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপক। 

এদিকে যদিও করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক উদ্ভাবনে বিশ্ব জুড়ে তোড়জোড় চলছে, কিন্তু বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন কার্যকরী একটি প্রতিষেধক উদ্ভাবন খুবি জটিল ও দীর্ঘস্থায়ী প্রক্রিয়া। করোনার চিকিৎসায় বড় পরিসরে কাজে লাগানো যেতে পারে এমন প্রতিষেধক উদ্ভাবনে ১২ থেকে ১৮ মাস পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।  
 
একইসঙ্গে এ বছরের শেষের দিকে করোনার প্রতিষেধক চলে আসতে পারে বলেও আশা করছেন অনেকে। 

করোনার প্রতিষেধক উদ্ভাবনের আগ পর্যন্ত ব্যাপক জনসচেতনতা ও বিভিন্ন দেশের সরকারের আগ্রাসী বিভিন্ন পদক্ষেপই হতে পারে প্রতিরোধের সবচেয়ে কার্যকরী উপায়। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২০ 
এইচজে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: করোনা ভাইরাস
মার্কিন নাগরিকদের জন্য আরও একটি বিশেষ ফ্লাইট
জন্মদিনে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন জাহানারা
সড়কে বেড়েছে যানবাহন
জিএসপি সুবিধা বহাল রাখার পক্ষে ইইউয়ের ন্যায়পাল
নিম্নআয়ের লোকের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে নৌবাহিনী


নির্দেশনা অমান্য: রাজশাহীতে জাপান টোব্যাকোকে অর্থদণ্ড
করোনা: ৬০ পরিবারকে খাদ্যদ্রব্য দিয়ে সাহায্য করলেন চান্দিমাল
ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী
করোনা সঙ্কটে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান রবের
বিনা ভাড়ায় চিকিৎসকদের যাতায়াত সেবা দিচ্ছে ‘ক্র্যাক প্লাটুন’