php glass

ফোনের পাসওয়ার্ড না বলায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারলেন স্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাসপাতালে দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর মারা যান দেদি পুর্নামা

walton

মোবাইল ফোনের পাসওয়ার্ড না বলায় স্বামীকে আগুনে পুড়িয়ে মেরে ফেলেছেন ইন্দোনেশিয়ার এক নারী। এই ঘটনায় পুরো ইন্দোনেশিয়ায় তোলপাড় চলছে।

আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া হতভাগ্য স্বামীর নাম দেদি পুর্নামা (২৬)। আর অভিযুক্ত স্ত্রীর নাম ইলহাম কাহইয়ানি (২৫)। ওয়েস্ট নুসা তেঙ্গারা প্রদেশের ইস্ট লম্বোক রিজেন্সিতে এই হত্যাকাণ্ডের খবরটি বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) এসেছে সংবাদমাধ্যমে।

জাকার্তার সংবাদমাধ্যম জানায়, দেদি তখন তাদের বাড়ির ছাদের টাইলস মেরামত করছিলেন। এসময় তার মোবাইল ফোনের পাসওয়ার্ড জানতে চান ইলহাম। দেদি পাওয়ার্ড না বললে গালাগাল করতে থাকেন স্ত্রী। জড়িয়ে পড়েন ঝগড়ায়। এক পর্যায়ে স্বামীর গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন ইলহাম। তখন দেদিকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নেওয়া হলে দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর মারা যান তিনি। 

ইস্ট লম্বোক পুলিশের প্রধান মেদ যোগী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ঝগড়ার জেরে দেদি ছাদ থেকে নিচে এসে স্ত্রীর গায়ে হাত তুললে তখন ইলহাম পেট্রোল ছোড়েন স্বামীর গায়ে। এরপরই লাইটার দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে দেখা যায় তার শরীরের উপরিভাগ গুরুতরভাবে পুড়ে গেছে।

পরে ইলহামকে গ্রেফতার করে পুলিশের হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯
এইচএ/

ইন্দোনেশিয়ায় ৬.২ মাত্রার ভূমিকম্প
বরিশাল জেলা প্রশাসনের লেকের মাছে মড়ক
বৃষ্টি নামলেও অস্বস্তি কমেনি পশ্চিমবঙ্গবাসীর
ভেনেজুয়েলায় বাস দুর্ঘটনায় নিহত ১৮
মাধবপুরে ১৯ বস্তা চা পাতা জব্দ


সাইবার ট্রাইব্যুনালে ওসি মোয়াজ্জেম
গান্ধীর জন্মজয়ন্তীতে ভিকির সিনেমা
বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের এখন সোনালি অধ্যায়
চুয়াডাঙ্গায় সন্তানকে গলা কেটে হত্যা, গ্রেফতার মা
৮০ বছর পর বাংলাদেশে ধূসর নেকড়ের দেখা, পিটিয়ে হত্যা