php glass

থ্রি-ডি প্রিন্টারেই রান্না করা যাবে খাবার!

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

থ্রি-ডি ফুড প্রিন্টার, ছবি: সংগৃহীত

walton

ঢাকা: আশির দশকের মাঝামাঝিতে পিৎজা বা ডোনাটের মতো কিছু খাবার বা চকলেট প্রস্তুতে সহায়তার উদ্দেশে উদ্ভাবিত হয়েছিল বিশেষ প্রযুক্তির থ্রি-ডি প্রিন্টার। সে প্রিন্টারে ভোজনরসিকরা নিজেদের সুবিধা মতো যেকোনো আকার-আকৃতির আর বিভিন্ন নকশায় খাবার প্রস্তুত করতে পারেন। এর মাঝে পেরিয়ে গেছে অনেকদিন। প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে এবার আরও অনেক সুযোগ-সুবিধা যোগ হয়েছে এসব প্রিন্টারে।

আজকের দিনে বিশ্বের অনেক দেশেই বিভিন্ন রেস্তোরাঁ বা রান্না ঘরে শোভা পাচ্ছে থ্রি-ডি ফুড প্রিন্টার। বলা চলে, এখন যেকোনো খাবারই প্রস্তুত করা যায় এ প্রিন্টারে। কিন্তু এতোদিন ধরে একটি জায়গায় খামতি ছিল। কেবলমাত্র রান্নার আগের ধাপ পর্যন্ত অর্থাৎ কাঁচা খাবার বানানো যেতো থ্রি-ডি প্রিন্টারে।

কিন্তু সম্প্রতি এ প্রিন্টারে তাপযন্ত্র ব্যবহার করে সেদ্ধ করা বা রান্না হওয়ার মতো খাবার বানানো নিয়ে গবেষণা চলছে। আর সত্যি বলতে কী, সেই পথে অনেক দূর এগিয়েও গেছে একদল গবেষক। আগামী এক বছরের মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে খাবার রান্না করা যায় এমন প্রিন্টার বাজারজাত করা যাবে বলেও অনেকের ধারণা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক এ নিয়ে কাজ করছেন। তারা এমন প্রযুক্তির থ্রি-ডি প্রিন্টার উদ্ভাবনের চেষ্টা করছেন, যাতে করে মেশিনটি ভোক্তার চাহিদা অনুযায়ী একের পর এক খাবার সরবরাহ করতে পারে। এ ধরনের প্রিন্টার উদ্ভাবিত হলে আগামী দিনের মানুষের খাদ্যাভ্যাস অনেকটাই বদলে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কলাম্বিয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ল্যাবে এ নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছেন জোনাথন ব্লুটিঙ্গার ও তার সহকর্মীরা। তারা এমন একটি প্রিন্টার মেশিন উদ্ভাবন করেছেন, যেটি একইসঙ্গে খাবার প্রস্তুত ও তাপযন্ত্রের মাধ্যমে রান্নার কাজটি করবে। রান্নার কাজে দলটি ব্যবহার করছে বিশেষ প্রযুক্তির লেজার হিটিং সিস্টেম। যা প্রয়োজন মতো তাপ নিয়ন্ত্রণে সক্ষম।

ব্লুটিঙ্গার জানান, তারা এমন একটি সফটওয়্যার বানানোর চেষ্টা করছেন, যেটি ভোক্তার চাহিদা অনুসারে এক টানা কাজ করে যেতে পারবে। যে কেউ পছন্দ অনুযায়ী খাবারে ভিটামিন বা অন্য কোনো উপাদান বাড়িয়ে কমিয়ে ইচ্ছে মতো ঘরে বসেই বানাতে পারবেন। এছাড়া এরইমধ্যে এ গবেষক দল লেজার হিটিং সিস্টেম ব্যবহার করে বেশ কিছু স্ন্যাকস বানাতেও সক্ষম হয়েছে।

নতুন প্রযুক্তির এ রকম ফুড প্রিন্টারের ব্যবহার নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে চলছে নানা রকম কথা। কেউ কেউ এটা নিয়ে উত্তেজিত হলেও অনেকে আবার এটিকে মানুষের খাদ্যাভ্যাসে যন্ত্রের বাড়তি হস্তক্ষেপ হিসেবে দেখছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩২ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০১৯
এইচজে/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: তথ্যপ্রযুক্তি
ksrm
সমুদ্রে হঠাৎ গন্তব্য বদলালো কেন ইরানি ট্যাঙ্কার?
নিষিদ্ধ হলো ভারতের ডোপ টেস্টিং ল্যাব
দুর্গাপুরে যুবকের ছুরিকাঘাতে তরুণ খুন
রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে মার্কিন চাপ অব্যাহত
টি-টোয়েন্টি সিরিজে শ্রীলঙ্কার নেতৃত্বে মালিঙ্গা


‘দ্য ম্যান্ডালোরিয়ান’ আসছে ডিজনি প্লাসে
‘ভারতের ২০ শতাংশ রাবার উৎপাদন করবে ত্রিপুরা’
ভারতে প্রোটিয়াদের ব্যাটিং কোচ ক্লুজনার
‘পৃথিবীর সব ধর্মই শান্তি-সম্প্রীতির কথা বলেছে’
যৌতুক নিয়েও বিয়ে না করায় ৫ দিন ধরে অনশনে প্রেমিকা