২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ফোর-জি সেবা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নিলাম শেষে সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: তরঙ্গ নিলামের পর আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার) লাইসেন্স হস্তান্তর শেষে ২১ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফোর-জি (চতুর্থ প্রজন্ম) ইন্টারনেট সেবা শুরু করা যাবে বলে প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ এবং কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা ক্লাবে দুই ব্যান্ডে তরঙ্গ নিলাম অনুষ্ঠিত হয়।
 
গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল ফোলি এবং বাংলালিংকের সিইও এরিক অসের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল নিলামে অংশ নেয়। নিলামে অংশ নিয়ে চর্তুথ প্রজন্মের সেবার জন্য গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক ১৫.৬ মেগাহার্টজ তরঙ্গ কিনেছে।
 
১৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডে গ্রামীণফোন ৫ মেগাহার্টজ এবং ২১০০ মেগাহার্টজে বাংলালিংক ৫ মেগাহার্জ এবং ১৮০০ মেগাহার্টজে কিনেছে ৫ দশমিক ৬ মেগাহার্টজ তরঙ্গ। এর আগে প্রযুক্তি নিরপেক্ষতায় সরকারের আয় হয় এক হাজার ৪২৫ কোটি টাকা। ১০ শতাংশ ভ্যাট ধরে ১৫ দশমিক ৬ মেগাহার্টজ তরঙ্গ ও প্রযুক্তি নিরপেক্ষতায় সরকারের আয় হলো পাঁচ হাজার ২৬৮ কোটি ৫১ লাখ টাকা।
 
প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ফোর-জি নিলামের জন্য ব্যক্তিগতভাবে চেষ্টা করেছেন উল্লেখ করে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আজকের দিনটি বাংলাদেশের ইতিহাসে মাইলফলক হয়ে থাকবে।
 
নিলাম শেষে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, অপারেটররা ফোরজি লাইসেন্সের জন্য দরখাস্ত করেছেন। দু’একদিনের ভেতরে লাইসেন্স অনুমোদন দেবো। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে ফোরজি লাইসেন্স এবং তরঙ্গ ব্যবহারের অধিকার দেওয়া হবে। যাতে করে ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে তারা ফোর-জি সেবা দিতে পারেন।
 
কোয়ালিটি অব সার্ভিসের জন্য কোন অপারেটর কতটুকু তরঙ্গ ব্যবহার করছে তা গুরুত্বপূর্ণ জানিয়ে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, আজকে যে তরঙ্গ বিক্রি করা হলো আমি আশা করি আমাদের জনগণের কিছুটা সুবিধা হবে। কোয়ালিটি অনেক ইমপ্রুভ করবে। এখন থেকে কোয়ালিটি অব সার্ভিসের দিকে যথেষ্ট পরিমাণে জোর দেবো।
 
বাড়তি তরঙ্গ কেনার মাধ্যমে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো আধুনিক ও দ্রুতগতির ফোর-জি সেবা দিতে সক্ষম হবে। পাশাপাশি থ্রি-জি সেবার মান বৃদ্ধি ও তথ্যপ্রযুক্তি নিরপেক্ষতা বাড়বে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
 
তরঙ্গ নিলামের এ অফার আরো ৬ মাস বলবৎ থাকবে জানিয়ে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, কোনো অপারেটর চাইলে বিদ্যমান দরে আরো তরঙ্গ কিনতে পারবে। আমি মনে করি কোয়ালিটি অব সার্ভিস মেনট্যান করার জন্য অপারেটরদের আরো তরঙ্গ কেনা দরকার। আমরা এখন পর্যন্ত সম্পূর্ণ সন্তুষ্ট না। প্রযুক্তি নিরপেক্ষতা দেওয়ায় অপারেটররা যে কোনো তরঙ্গ যে কোনো সেবার জন্য ব্যবহার করতে পারবে।
 
সংস্থার মহাপরিচালক (তরঙ্গ) নাসিম পারভেজ বলেন, প্রযুক্তি নিরপেক্ষতায় গ্রামীণফোনকে ২২, রবি ২৬.৪ এবং ১৫ মেগাহার্জ তরঙ্গ দেওয়া হয়েছে। প্রযুক্তি নিরপেক্ষতার মাধ্যমে সেবার মান দেড়গুণ বৃদ্ধি পায়। এটি এবং তরঙ্গ কেনার মধ্য দিয়ে কোয়ালিটি অব সার্ভিস অবশ্যই উন্নত হবে। এতে কোরনা সন্দেহ নেই। তারা বিটিএস স্থাপন করবে, তাতেও সেবার মান উন্নত হবে।   
নিলামের পর গ্রামীণফোন ও বাংলালিংকের তরঙ্গের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ালো যথাক্রমে ৩৭ ও ৩০.৬ মেগাহার্টজ। নিলামের আগে গ্রামীণফোনের ৩২, রবির ৩৬.৪, বাংলালিংকের ২০ ও টেলিটকের ২৫.২ মেগাহার্টজ তরঙ্গ ছিলো।
 
নিলামে প্রতি মেগাহার্টজ তরঙ্গের ভিত্তি মূল্য ধরা হয়েছে তিন কোটি ডলার। ১৮০০ ব্যান্ডের চারটি স্লটে ১৮ মেগাহার্টজ তরঙ্গ রয়েছে। ১৮০০ ব্যান্ডের প্রতি মেগাহার্টজ তরঙ্গের ভিত্তিমূল্য তিন কোটি মার্কিন ডলার। অন্যদিকে, ২১০০ ব্যান্ডে পাঁচ স্লটে আছে ২৫ মেগাহার্টজ তরঙ্গ। এর প্রতি মেগাহার্টজ তরঙ্গের ভিত্তি মূল্য দুই কোটি ৭০ ল‍াখ মার্কিন ডলার।
 
বিক্রির জন্য যে পরিমাণ তরঙ্গ নিয়ে আসা হয়েছে তার ৩৩ শতাংশ বিক্রি হয়েছে জানিয়ে বিটিআরসি প্রধান বলেন, দুই-তৃতীয়াংশ এখনও অবিক্রিত আছে।
 
তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাংলালিংক সিইও বলেন, সেবার মান বাড়াতে তারা বদ্ধ পরিকর। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ফোর-জি চালু করতেও অপারেটরটি প্রস্তুত।
 
হোটেল সোনাগাঁওয়ে এদিন বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের সিইও বলেন, আমাদের প্রযুক্তি নিরপেক্ষ স্পেকট্রামের সঙ্গে নতুন এই স্পেকট্রাম যোগ হওয়ায় গ্রামীণফোন দেশের সবচেয়ে আধুনিক নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সেরা ৪জি সেবা দিতে একটি দৃঢ় অবস্থানে পৌঁছে গেলো।

ফোর-জি সেবার নিলামে তরঙ্গ কিনলো গ্রামীণফোন-বাংলালিংক
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪২০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮/আপডেট: ১৭৪৫ ঘণ্টা
এমআইএইচ/জেডএস

ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ শিক্ষার্থী আটক
খুলনার বইমেলায় ভাষাপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়
‘ভুলে ভরা কবিতা’র পর ‘বাইসাইকেল’
ঢামেকের বাতাসে পোড়া গন্ধ 
ইমরানকে গাভাস্কার: বন্ধু, কোথায় তোমার নয়া পাকিস্তান?


হিলি সীমান্তে দুই বাংলার সম্প্রীতির মিলন মেলা
ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা
ময়মনসিংহ’ ১৯৫২,ইতিকথা-৩

ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা

খুবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
কেমিক্যাল গোডাউন সরাতে দ্রুত আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক
জাতিসংঘে স্থায়ী মিশনে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা