বাংলাদেশের বাজারে যাত্রা শুরু করলো ‘টেকনো মোবাইল’

ডেস্ক রিপোর্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশের বাজারে যাত্রা শুরু করলো ‘টেকনো মোবাইল’

ঢাকা: ‘মোবাইল ব্যবহারকারী তার আনন্দঘন মুহূর্তকে আলোকিত করে ধরে রাখুক’ সে লক্ষ্যে পিক্সেল এক্স ইমেজ প্রসেসিং টেকনোলজি সমৃদ্ধ স্মার্টফোন নিয়ে বাংলাদেশের বাজারে যাত্রা শুরু করলো আন্তর্জাতিক মানের মোবাইল ব্র্যান্ড ‘টেকনো মোবাইল’।

টেকনো মোবাইলের প্রতিটি হ্যান্ডসেটে ক্যামেরা ফিচারে ব্যবহৃত পিক্সেল এক্স প্রযুক্তি রাতের বেলায় স্বল্প আলোতে নিখুঁত ছবির নিশ্চয়তা সক্ষম যার জন্য সেলফি ক্যামেরায় ব্যবহারকারী পাবে নতুন অভিজ্ঞতা।

বিশ্বব্যাপী দ্রুত বর্ধনশীল বাজারগুলোতে মোবাইল হ্যান্ডসেট প্রস্তুতকারক এবং সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত ট্রানশান হোল্ডিংস বাংলাদেশের বাজারে তাদের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড টেকনো মোবাইলের কার্যক্রম চালু করার ঘোষণা দিয়েছে। মোবাইল ডিভাইসের মধ্যে ফিচার ফোন, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট প্রস্তুতকরণ, সরবরাহ ও বাজারজাতকরণ করে থাকে টেকনো মোবাইল।

২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ৪০টিরও বেশি দেশে টেকনো মোবাইলের কার্যক্রম চালু রয়েছে। প্রতিটি হ্যান্ডসেটে সর্বাধুনিক এবং আন্তর্জাতিক মানের উদ্ভাবনী প্রযুক্তির সমন্বয়ে স্থানীয় পর্যায়ে ভোক্তার চাহিদা পূরণ ও ব্যবহার সন্তুষ্টি নিশ্চিত করা; টেকনো মোবাইলের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

আফ্রিকান বিজনেস ম্যাগাজিন টেকনো মোবাইলকে ‘আফ্রিকার সর্বাধিক প্রশংসিত ব্র্যান্ড’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়, যা টেকনো মোবাইলের আন্তর্জাতিক মানের সাফল্যের মধ্যে একটি। বিশ্বজুড়ে নিজেদের পরিধি আরো বিস্তৃত করতে উন্নয়নশীল বাজারগুলোতে বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়ার বাজারে প্রবেশ করেছে টেকনো মোবাইল এবং স্থানীয় ভোক্তাদের চাহিদা অনুযায়ী মোবাইল হ্যান্ডসেট বাজারে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
 
এ উপলক্ষে সোমবার (১৭ জুলাই) ঢাকা সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানে ট্রানশান হোল্ডিংসের ভাইস প্রেসিডেন্ট আরিফ চৌধুরী আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।

এসময় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক উইলি চুই ও প্রধান কার্যনির্বাহী কর্মকর্তা রেজওয়ানুল হক প্রমুখ।

বাংলাদেশি ভোক্তাদের জন্য প্রাথমিকভাবে বাজারে আনা ক্যামন সিরিজের ক্যামন সি এক্স এয়ার, আই সিরিজের আই সেভেন, আই থ্রি স্মার্টফোনগুলোতে পিক্সেল এক্স ইমেজ প্রসেসিং প্রযুক্তি ব্যাবহারের ফলে সেলফি ক্যামেরাতে যুক্ত হয়েছে ভিন্ন মাত্রা। বিশেষত; ক্যামন সি এক্স এয়ার, আই সেভেন স্মার্টফোনের ফ্রন্ট ক্যামেরায় স্ক্রিন ফ্ল্যাশ সাপোর্ট এবং ব্যাক ক্যামেরার সঙ্গে কুয়াড ফ্ল্যাশ থাকায় একজন ব্যবহারকারী মৃদু আলোতেও পাবেন অধিকতর উজ্জ্বল ছবি।

গ্রাহকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে এবং মোবাইল হ্যান্ডসেটের কোয়ালিটি নিয়ে গ্রাহকদের চিন্তামুক্ত রাখতে টেকনো মোবাইল তাদের প্রতিটি হ্যান্ডসেটে ১৩ মাসের ওয়ারেন্টির পাশাপাশি বিক্রয়োত্তর ১০০ দিন পর্যন্ত রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি দিচ্ছে। যা নিশ্চিত করবে ট্রানশান হোল্ডিংসের সার্ভিসিং ব্র্যান্ড কার্লকেয়ার।

স্বাগত বক্তব্যে ট্রানশান হোল্ডিংসের ভাইস প্রেসিডেন্ট আরিফ চৌধুরী বলেন, ট্রানশান হোল্ডিংস সবসময় ক্রেতা এবং ভোক্তার চাহিদার অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। আমরা বহুমাত্রিক ব্র্যান্ড কৌশল অনুসরণ করি এবং ক্রেতার চাহিদা ও ক্রয়ক্ষমতা অনুযায়ী পণ্য দেয়া আমাদের প্রতিটি ব্র্যান্ডই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। উন্নয়নশীল এবং দ্রুত বর্ধনশীল বাজারগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ আমাদের জন্য অপেক্ষাকৃত গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশের বাজারে টেকনো মোবাইলের কার্যক্রম শুরু করতে পেরে এবং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের নিত্যনতুন চাহিদার অভিনব সমাধান আনতে পেরে আমরা আনন্দিত।

টেকনো মোবাইলের জেনারেল ম্যানেজার স্টিফেন হা বলেন, স্মার্টফোনের ব্যবহার উপযোগিতার সঙ্গে সঙ্গে ভোক্তার চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। টেকনো মোবাইলের প্রতিটি হ্যান্ডসেটে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির পাশাপাশি ব্যবহারকারীর প্রয়োজন অনুযায়ী নতুন ফিচার যোগ করতে আমরা সবসময় কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের বাজারে ভোক্তা এবং গ্রাহকদের ব্যবহার সুবিধার নিশ্চয়তা দিতে আমরা হ্যান্ডসেটের ক্যামেরা ফিচারের সঙ্গে পিক্সেল এক্স প্রযুক্তি যোগ করেছি। যা পুরোপুরিভাবে পণ্যের মান এবং গ্রাহক চাহিদার প্রতি টেকনো মোবাইলের সচেতনতা নির্দেশ করে।

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে মোবাইল ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে সম্ভাবনা। আমি বিশ্বাস করি, টেকনো মোবাইলের সবগুলো স্মার্টফোনই গ্রাহকের ব্যবহার অভিজ্ঞতায় নতুন মাত্রা যোগ করবে। আগামীতে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির সঙ্গে সঙ্গে প্রতিটি ব্যবহারকারীর সন্তুষ্টির বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে আমাদের স্মার্টফোনের ফিচারে আরো বৈচিত্র্য নিয়ে আসবো ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও রেজওয়ানুল হক বলেন।

ভিন্ন ভিন্ন শ্রেণিবিভাগ অনুসারে ক্যামন সি এক্স এয়ার, আই সেভেন, আই থ্রি, ডব্লিউ এক্স থ্রি এবং ডব্লিউ এক্স ফোর স্মার্টফোনগুলোর বিক্রয়মূল্য যথাক্রমে ১১ হাজার ৯৯০ টাকা, ১৯ হাজার ৯৯০ টাকা, ১০ হাজার ৬৯০ টাকা, ৬ হাজার ১৯০ টাকা এবং ৮ হাজার ১৯০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।   

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪২ ঘণ্টা, জুলাই ১৯, ২০১৭
আরবি/

ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ শিক্ষার্থী আটক
খুলনার বইমেলায় ভাষাপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়
‘ভুলে ভরা কবিতা’র পর ‘বাইসাইকেল’
ঢামেকের বাতাসে পোড়া গন্ধ 
ইমরানকে গাভাস্কার: বন্ধু, কোথায় তোমার নয়া পাকিস্তান?


হিলি সীমান্তে দুই বাংলার সম্প্রীতির মিলন মেলা
ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা
ময়মনসিংহ’ ১৯৫২,ইতিকথা-৩

ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা

খুবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
কেমিক্যাল গোডাউন সরাতে দ্রুত আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক
জাতিসংঘে স্থায়ী মিশনে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা