টপ অব দ্য টেক:::

এ বছরের শীর্ষ উদ্ভ‍াবনার একটি ‘স্নো মোবাইল’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রযুক্তিভিত্তিক উদ্ভাবনে প্রতি বছরই সমৃদ্ধ হচ্ছে যান্ত্রিকসভ্যতা। ২০১০ সালেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। এ বছরের উদ্ভাবনগুলোর মধ্যে ‘স্নো মোবাইল’ অন্যতম।

php glass

প্রযুক্তিভিত্তিক উদ্ভাবনে প্রতি বছরই সমৃদ্ধ হচ্ছে যান্ত্রিকসভ্যতা। ২০১০ সালেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। এ বছরের উদ্ভাবনগুলোর মধ্যে ‘স্নো মোবাইল’ অন্যতম। এরই মধ্যে এ উদ্ভাবন বিখ্যাত ‘রেড টেকনোলজি’ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে।

এ প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন ওয়াটলিং নামের একজন প্রকৌশলী। স্নো মোবাইল অর্থাৎ বরফ সহনীয় বাহন আবিষ্কারে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছেন ওয়াটলিং। অবশেষে বরফের রাস্তায় নিয়ন্ত্রণযোগ্য বাহন আবিষ্কারে তিনি সফলতা পান। এ যন্ত্রের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে পেছনের অংশে ভরে পরিচালনা।

এ বাহন প্রচলিত স্নো মোবাইলের তুলনায় অধিক নিরাপদ এবং গতিসম্পন্ন। এ বাহনটি স্বনিয়ন্ত্রিত দক্ষতায় শক্তি উৎপাদন করতে সক্ষম। এ বাহন ভূপৃষ্ঠ থেকেই বেশিরভাগ শক্তি সঞ্চয় করে।

এ বরফ বাহন উদ্ভাবনে ওয়াটলিং দীর্ঘ পাঁচ বছর অকান্ত সময় পরিশ্রম করেছেন। এর ফলেই তৈরি হয়েছে দ্রুত গতিসম্পন্ন, নিরাপদ এবং শক্তিবান্ধব বাহন স্নো মোবাইল।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৯৩৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১০

সৈয়দপুর-ঢাকা আকাশপথে প্রতিদিন ১৪ ফ্লাইট 
বিএসএমএমইউ’র সঙ্গে টাটা মেমোরিয়ালের চুক্তি
পাথরঘাটায় আওয়ামী লীগ নেতা বহিষ্কার
পেকুয়ার দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ৩
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের নকশা উপস্থাপন


বিএসইসির সংবাদ সম্মেলন সোমবার
এবি ব্যাংকের কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ
উখিয়ায় ৩ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট বর্জন
‘বঙ্গবন্ধু হত্যার রাতে মার্কিন ও পাক দূতাবাস খোলা ছিল’
রায়গঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৭, আটক ৫