শুরু হচ্ছে ৪ দিনব্যাপী বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড প্রদর্শনী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

‘নতুন প্রজন্মের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ’ শিরোনামে ঢাকার শের-এ-বাংলা নগরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৩০ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তি অঙ্গনের সর্ববৃহৎ মিলনমেলা। এ প্রদর্শনীর আয়োজক বাংলাদেশ কমপিউটার সমিতি (বিসিএস)।

php glass

‘নতুন প্রজন্মের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ’ শিরোনামে ঢাকার শের-এ-বাংলা নগরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৩০ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তি অঙ্গনের সর্ববৃহৎ মিলনমেলা। এ প্রদর্শনীর আয়োজক বাংলাদেশ কমপিউটার সমিতি (বিসিএস)। সহযোগিতায় আছে আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল।

২৮ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য ‘বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড ২০১০’ প্রদর্শনী উপলক্ষে জাতীয় প্রেস কাবে তথ্যভিত্তিক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সম্মেলনে বিসিএস সভাপতি মোস্তাফা জব্বারের সঞ্চালনায় বিসিএস মহাসচিব মুজিবুর রহমান স্বপন প্রদর্শনীর আয়োজনের বিভিন্ন দিক উপস্থাপন করেন। এ সম্মেলনে সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি কাজী আশরাফুল আলম, সদস্য ইউসুফ আলী শামীম ও শাহিদ উল মুনীর এবং প্রদর্শনীর পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধি ছাড়াও সমিতির সচিবালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বিসিএস ২০০৮ সাল থেকে ‘বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড’ শিরোনামে দেশের সর্ববৃহৎ তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনীর আয়োজন করে আসছে। এবারের আয়োজনে বৈচিত্র্যময় ও জাঁকজমক প্রস্ততি নিয়েছে আয়োজক কমিটি।

৩০ অক্টোবর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সকাল ১০:৩০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মিডিয়া বাজারে প্রধান অতিথি হিসেবে চার দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাণিজ্যমন্ত্রী ফারুক খান এবং বিজ্ঞান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

এবারের প্রদর্শনীতে দেশ-বিদেশের সুপরিচিত ব্র্যান্ড, আমদানিকারক, নির্মাতা এবং সরবরাহকারী সবমোট ৬৬টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। অংশগ্রহণকারীরা কমপিউটার হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার পণ্য, নেটওয়ার্ক ও ডাটা কমিউনিকেশন, টেলিকম সেবা ও পণ্যসামগ্রী, মাল্টিমিডিয়া, আইসিটি শিা উপকরণ, ল্যাপটপ, পামটপ, ডিজিটাল জীবনভিত্তিক তথ্যপ্রযুক্তি পণ্যের আধুনিক সংস্করণ প্রদর্শন করবে। প্রদর্শনীর ৫০ হাজার বর্গফুট স্থানজুড়ে ৬৯টি স্টল এবং ২৬টি প্যাভিলিয়ন বসছে।

এবারের প্রদর্শনীতে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারিক ও বাণিজ্যিক প্রসঙ্গ বিষয়ে ৩টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। ৩১ অক্টোবর কিউবির আয়োজনে ‘ইন্টারনেটের ৫০০ দিন’, ১ নভেম্বর ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব আইটির আয়োজনে ‘ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঘরে বসে কাজ এবং উপার্জনের কৌশল’ এবং ২ নভেম্বর বিসিএস আয়োজনে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ: লক্ষ্য ও অর্জন’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

সরকারের নীতিনির্ধারক মহলের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি, দেশের বরেণ্য তথ্যপ্রযুক্তিবিদ, বিশেষজ্ঞ, ব্যবসায়ী এবং আগ্রহীরা এ সেমিনারগুলোতে অংশগ্রহণ করবেন। প্রদর্শনী কেন্দ্রের মিডিয়া বাজারে প্রতিদিন সকাল ১১টায় এ সেমিনারগুলো শুরু হবে।

উল্লেখ্য, এবারের প্রদর্শনীতে চীনের ইন্সপিউর গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেডের প্রতিনিধি দল বাংলাদেশের আইসিটি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বিজনেস টু বিজনেস আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন।

এছাড়াও প্রতিদিনই থাকছে বিভিন্ন তথ্যপ্রযুক্তি পণ্যকেন্দ্রিক প্রদর্শনী ও কুইজ প্রতিযোগিতা। এবারে দর্শনার্থীরা ওয়াইম্যাক্স প্রযুক্তির সহায়তায় বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। পুরো প্রাঙ্গণজুড়ে থাকবে ওয়াইফাই জোন। দর্শনার্থীরা এ জোনও উপভোগ করতে পারবেন। এ বিষয়ে কারিসরি সহায়তা দেবে ওয়াইম্যাক্স সেবাদাতা কিউবি।

আগামী শনিবার প্রদর্শনীর প্রথমদিন বিকেল ৩টায় শিশুদের জন্য থাকছে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। বয়সভিত্তিক তিনটি গ্রুপে স্কুল শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নিতে পারবে। প্রতিযোগিতার গ্রুপ ও বিষয়গুলো হলো ক গ্রুপ (বয়স: ৩ থেকে ৬ বছর): যেমন খুঁশি তেমন আঁকো, খ গ্রুপ (৭ থেকে ১০ বছর) : কমপিউটার, ল্যাপটপ, তথ্যপ্রযুক্তি এবং গ গ্রুপ (১১ থেকে ১৪ বছর) : ডিজিটাল বাংলাদেশ। প্রদর্শনী প্রাঙ্গনের মিডিয়া বাজারে বেলা ২টায় প্রতিযোগিতার জন্য বিনামূল্যে নিবন্ধন করা যাবে।

এ প্রদর্শনীর প্ল্যাটিনাম স্পন্সর কিউবি। হিসেবে অংশগ্রহণ করছে। আসুস এবং স্যামসাং গোল্ড স্পন্সর। ব্রাদার, মারকারি এবং মাইক্রোসফট সিলভার স্পন্সর। প্রদর্শনীর সেরা স্টল ও প্যাভিলয়নের পুরস্কার হিসেবে ঢাকা-কায়রো-ঢাকার বিমানের টিকিট স্পন্সর করছে ইত্তেহাদ এয়ারলাইনস। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার স্পন্সর রিশিত কমপিউটারস। প্রদর্শনীর টিকেট স্পন্সর ইনডেক্স আইটি। উল্লেখ্য, এটিএন বাংলা ৩০ অক্টোবর প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

আগ্রহীরা প্রয়োজনে www.bcsictworld.com.bd এ সাইটে আরও বিস্তারিত তথ্য পাবেন। আর কথা বলার প্রয়োজনে এ প্রদর্শনীর আহ্বায়ককে ০১৭১৯৯৮৪৭৪১ নম্বরে কলও করা যাবে।

উদ্বোধনী দিন ব্যতীত প্রতিদিন সকাল ১০টায় প্রদর্শনী সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে। আর কোনো বিরতি ছাড়াই একটানা রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। প্রবেশমূল্য ২০ টাকা। তবে স্কুল শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রদর্শনী উপভোগের সুযোগ পাবে।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৮০৫, অক্টোবর ২৮, ২০১০

শিরোপায় চোখ ভারতের
ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

শিরোপায় চোখ ভারতের

মানুষ সচেতন হলে উন্নয়নের সুফল মিলতো বেশি: মেয়র
স্বাধীনতাবিরোধীদের অপচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন শেখ হাসিনা
ধান কাটা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০
কোহলির আশা ভারতকে নতুন উচ্চতায় তুলবেন মোদী


মাগুরায় দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ২৫ 
অর্থাভাবে আটকে আছে সিসিকের উন্নয়ন কাজ
কুড়িগ্রামে বিকাশ এজেন্টের ৫০ হাজার টাকা ছিনতাই
গুজরাটে বহুতল ভবনে আগুন, ১৯ শিক্ষার্থীর মৃত্যু
প্রেক্ষাগৃহে ‘নরেন্দ্র মোদী’