বসন্তের শুরুতে ত্রিপুরায় নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিশুদের নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন অভিভাবকেরা। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): ঋতুচক্রের নিয়ম মেনে বিদায় নিয়ে প্রকৃতিতে চলে এসেছে বসন্তকাল। তারপরও অলস শীত যেন প্রকৃতির মায়া কাটিয়ে যেতে চাইছে না। তাই তো এই বসন্তেও সকাল সন্ধ্যা তাপমাত্রা নেমে আসছে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে; তাই শীত অনুভূত হচ্ছে। 

তবে দুপুর হতে হতে তাপমাত্রার পারদ আবার উঠে যাচ্ছে ৩০ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। এ অবস্থা আরো কিছু দিন চলবে বলে ত্রিপুরা আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। 

তবে তাপমাত্রার এই হেরফেরের কারণে বছরের এই সময় রোগ বালাই বেশি দেখা দেয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। আর সব চেয়ে বেশি আক্রান্ত হন শিশু কিশোরেরা। 

আগরতলার আইজিএম হাসপাতালের শিশু বিভাগে গিয়ে দেখা যায়, অসুস্থ শিশু-কিশোরদের নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বাবা-মায়েরা। বেশির ভাগই ভিড় জমিয়েছেন বহিঃবিভাগে। 

হাসপাতালের মেডিক্যাল সুপারিন্টেন্ড ডা. অমিতাভ চক্রবর্তী বলেন, বছরের এই সময়টায় রোগ-বালাইয়ের প্রাদুর্ভাব বেশি থাকে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি শিকার হয় শিশু-কিশোরেরা। বেশিরভাগই জ্বর সর্দি ও কাশির সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। সেইসঙ্গে কিছু শিশু-কিশোর আছে পেটের সমস্যা নিয়েও এসেছে। 

তাই এ সময় শিশু-কিশোরদের বিশেষভাবে যত্ন নিতে অভিভাবকদের পরামর্শ দেন তিনি। 

ডা. অমিতাভ চক্রবর্তী বলেন, সকাল-সন্ধ্যায় তাদের গরম কাপড় পরিয়ে রাখলে ঠাণ্ডা-জ্বর থেকে রেহাই মিলতে পারে। আর পেটের পীড়া থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা জরুরি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
এসসিএন/এমএ

লাম্পি স্কিন রোগে ২০ গরুর মৃত্যু, দিশেহারা খামারিরা
আগরতলায় ঘূর্ণিঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি
আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামত করা হবে
অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি না করতে তথ্যমন্ত্রীর অনুরোধ
নিয়ম মেনে সীমিত অফিস ১৫ জুন পর্যন্ত, অন্য নিষেধাজ্ঞা বহাল


দুর্যোগে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করা বিএনপির রাজনীতি
ঢাকা ছাড়লেন ১৭০ ভারতীয় নাগরিক
কুষ্টিয়ায় ৭২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত, ফসলের ক্ষতি
১২টি করোনা টেস্টিং বুথ বসানোর উদ্যোগ মেয়র নাছিরের
আড়াইহাজারে দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ একজন নিহত