মাদক পাচারকারীরা ত্রিপুরাকে করিডর হিসেবে ব্যবহার করছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বিএসএফের ত্রিপুরা ফ্রন্টিয়ার্সের সংবাদ সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা):  ত্রিপুরা রাজ্যের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকাকে মাদক পাচারের ট্রানজিট পয়েন্ট হিসেবে ব্যবহার করছে আন্তর্জাতিক মাদক পাচারকারীরা।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) আগরতলার শালবাগানে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) ত্রিপুরা ফ্রন্টিয়ার্সের প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ত্রিপুরা ফ্রন্টিয়ার্সের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজি) এস ওয়াই কে মিনজ। 

তিনি বলেন, প্রতিবেশী রাষ্ট্র থেকে মনিপুর ও মিজোরাম রাজ্য দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে ত্রিপুরা হয়ে আবার প্রতিবেশী অন্য রাষ্ট্রে মাদক পাচার করে আন্তর্জাতিক মাদক পাচারকারীরা। তবে সীমান্তে মাদক পাচারসহ অন্য চোরাই মাল পাচার ও অবৈধ অনুপ্রবেশের অপরাধ দমনের জন্য ত্রিপুরা রাজ্যে বিএসএফের মোট ১৮টি ব্যাটালিয়ান কাজ করছে।

ত্রিপুরা ফ্রন্টিয়ার্সের আইজি জানান, ২০১৯ সালে এখন পর্যন্ত বিএসএফ জওয়ানরা চার কোটি ৮৭ লাখ ৫৭ হাজার রুপি মূল্যের আট হাজার নয়শ ৮২ কেজি গাঁজা, ১৭ কোটি ৫৭ লাখ ৮৪ হাজার রুপি মূল্যের তিন লাখ ৫১ হাজার ৫৬৮ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করেছে। এছাড়া পাচারকালে এক কোটি সাত লাখ রুপির গবাদি পশু আটক করেছে বিএসএফ। 

পাচার বাণিজ্য একেবারে বন্ধ না হলেও তারা তা অনেকটাই কমিয়ে আনতে পেরেছেন বলে জানান আইজি এস ওয়াই কে মিনজ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১৯
এসসিএন/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আগরতলা
দেশে কোয়ারেন্টিন ছাড়লো ৫৮১৬৭ জন
শবে বরাতের তাৎপর্য ও করণীয়
গ্রিসে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ত্রাণ দিল সরকার
মাদারগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট করোনায় আক্রান্ত
ব্যাংকে নগদ অর্থ সরবরাহ বাড়াতে ব্যবসায়ীদের সুপারিশ 


করোনা: ৩১ দিনে শনাক্ত হয়েছে ২১৮ জন
করোনা রোগীর জন্য প্রতি জেলায় ৩ যানবাহন প্রস্তুতের নির্দেশ
লকডাউনে ৭০ বরযাত্রী নিয়ে বিয়ে, সরকারি কর্মকর্তাকে জরিমানা
সিলেটে আরো ৩৭ জন হোম কোয়ারেন্টিনে
লিরিক্যাল ভিডিওতে প্রত্যয়ের ‘চেয়ে দেখো’