php glass

ত্রিপুরায় এবার অর্গানিক পদ্ধতিতে মাছ চাষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অর্গানিক ফল ও মসলার প্রদর্শনী ঘুরে দেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী, ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): ত্রিপুরা সরকার এবার অর্গানিক পদ্ধতিতে মাছ চাষের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) রাজধানীর প্রজ্ঞা ভবনে আয়োজিত ‘অর্গানিক পদ্ধতিতে চাষ ও চাষে উৎপাদিত ফসল বিপণন বিষয়ক’ এ কর্মশালার উদ্বোধন করেন এ কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, ত্রিপুরায় অর্গানিক পদ্ধতিতে ফল, সবজি ও বেশকিছু শস্য চাষ হয়। যা বিশ্বের অনেক দেশের কাছে এখন পরিচিত। এরই ধারাবাহিকতায় এবার রাজ্য সরকার অর্গানিক পদ্ধতিতে মাছ চাষের ওপর বিশেষ জোর দিচ্ছে। বিশেষ করে রাজ্যের নদীসহ বিল ও হাওর, জলাশয়ে প্রাকৃতিক ভাবে যেসব মাছ হচ্ছে সেগুলোকে অর্গানিক মাছ হিসেবে দেশ-বিদেশে পরিচয় করানো উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। কিছুদিনের মধ্যে সরকার এ ঘোষণা দেবে। আর অর্গানিক পদ্ধতিতে মাছ চাষের রাজ্য হিসেবে ত্রিপুরা ভারতের মধ্যে প্রথম রাজ্য হিসেবে উঠে আসবে। এর ফলে বিশ্বব্যাপী রাজ্যের উৎপাদিত অর্গানিক মাছের আকর্ষণ বাড়বে। 

তিনি আরও বলেন, আম, আনারস, কাঁঠাল, লেবু, হলুদসহ অন্যান্য ফল, সবজি ও বিভিন্ন জাতের মসলা অর্গানিক পদ্ধতিতে চাষ হয় ত্রিপুরায়। এগুলোকে বিপণনের জন্য রাজ্য সরকার বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। এমনিতে এ রাজ্য থেকে বিপুল পরিমাণে আনারস দেশের বিভিন্ন এলাকাসহ বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে। তবে সরকার এবার জোর দিচ্ছে এ সব ফসলের প্রক্রিয়াকরণ ও প্যাকেজিংয়ের ওপর।

অনুষ্ঠান শেষে প্রজ্ঞা ভবনের বাইরে আয়োজিত অর্গানিক ফল ও মসলার প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী। এসময় তার সঙ্গে অন্যান্য অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১১১১ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০১৯
এসসিএন/ওএইচ/

গুরুতর অসুস্থ চিত্রপরিচালক সি বি জামান, হাসপাতালে ভর্তি
মহাসড়কে যাত্রীদের শেষ ভরসা রিকশা-সিএনজি-লেগুনা
বিশ্বকাপের পরও খেলতে চান মালিঙ্গা
অনির্দিষ্টকালের জন্য সরে দাঁড়ালেন সানা মির
টিটিএডিসিকে টেরিটোরিয়াল কাউন্সিলে উন্নীত করার প্রস্তাব


কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে
গাজীপুরে যান চলাচল কম, ভোগান্তিতে দূরপাল্লার যাত্রীরা
খাগড়াছড়িতে বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড
অভিনেত্রী নওশাবার মামলা হাইকোর্টে স্থগিত
‘পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধ হলে সব সমস্যার সমাধান হবে’