সমাজকল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দফতরে নিয়োগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শান্তনা চাকমা

আগরতলা (ত্রিপুরা): আগামী কিছু দিনের মধ্যে ত্রিপুরা রাজ্যের প্রায় এক হাজার ৫শ’ জন অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী নিয়োগ করা হবে। এর জন্য বর্তমানে কাজ চলছে।  

php glass

বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) মহাকরণে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ত্রিপুরা সরকারের সমাজকল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দফতরের মন্ত্রী শান্তনা চাকমা। 

শান্তনা চাকমা আরো জানান, সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় একটি কথা ছড়িয়েছে যে রাজ্যের বিভিন্ন সামাজিক ভাতা রয়েছে তা বন্ধ হয়ে যাবে। এ কারণে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। 

তিনি সাধারণ মানুষদের আশ্বস্ত করে বলেন, ভয়ের কোনো কারণ নেই। প্রতিবছর সামাজিক প্রকল্পগুলো পর্যালোচনা করতে হয়। কারণ বিভিন্ন মানুষের আর্থিক অবস্থার উন্নতি বা অবনতির বিষয়টি বিবেচনা করে নতুন নাম সংযোজন এবং বাদ দিতে হয়। এরই অঙ্গ হিসেবে জরিপ হচ্ছে। তাই ভয়ের কোনো কারণ নেই। এ জরিপের কাজ ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ শেষ হয়েছে। 

রাজ্যে বর্তমানে চার লাখ ৩৯ হাজার ৮৪৪ জন বিভিন্ন প্রকল্পে সামাজিক ভাতা পাচ্ছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হলো- বার্ধক্য ভাতা, স্বামী পরিত্যেক্তা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ইত্যাদি।

সামাজিক অবস্থার উন্নতির কারণে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকার ৫শ’ জন মানুষ ভাতা ত্যাগ করেছেন বলেও মন্ত্রী জানান। 

পোষণ অভিযান প্রকল্পে রাজ্যের তিন লাখ ৩৯ হাজার ৮৪৪ জন শিশু কিশোরদের পুষ্টিকর খাবার সর্বরাহ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী মাতৃবন্দনা যোজনায় ১৬ হাজার গর্ববতী নারীদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। দফতর থেকে ৪০ জন কিশোরের কঠিন ও জটিল রোগের অপারেশন করা হয়েছে বর্হি:রাজ্য নিয়ে গিয়ে। সব মিলিয়ে সাধারণ মানুষের জন্য সব সময় কাজ করে যাচ্ছে এই দফতর বলেও জানান মন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ০৬২৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৯
এসসিএন/এসআরএস

সড়কে নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলবে ১৪ দল
এক্সিম ব্যাংকের কুমিল্লা অঞ্চলের গ্রাহক সমাবেশ 
বিআরটিএ’র বিভিন্ন পদে নিয়োগ
আফগানিস্তানে জোড়া বোমা হামলায় নিহত ৪
খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করায় দণ্ড


মানবাধিকার সমুন্নত করতে সরকার কাজ করছে
সিরিয়ায় আইএসের ‘খেলাফতের সমাপ্তি’ ঘোষণা
মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ কংগ্রেসের
মুকসুদপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
খাগড়াছড়িতে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স