নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে ত্রিপুরায় অবরোধ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে আইএনপিটি কর্মী-সমর্থকরা।

আগরতলা (ত্রিপুরা): ভারত সরকারের ‘নতুন নাগরিকত্ব বিল ২০১৬’ বাতিলের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে ত্রিপুরার জনজাতিভিত্তিক দল ইন্ডিজেনাস ন্যাশনালিস্ট পার্টি অব ত্রুইপ্রা (আইএনপিটি)।

php glass

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) ভারতের অন্য রাজ্যের সঙ্গে ত্রিপুরার সংযোগকারী একমাত্র জাতীয় সড়ক, রেলপথ অবরোধ করে কর্মসূচি পালন করেছেন দলটির কর্মী-সমর্থকরা।

এদিন স্থানীয় সময় সকাল ৬টা থেকে পশ্চিম জেলার অন্তর্গত বড়মুড়া পাহাড়ের খামতিংবাড়ি এলাকায় ৮ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করা হয়। পাশাপাশি রেলপথ এবং পশ্চিম জেলার অন্তর্গত হেজামারা এলাকায় আগরতলা খোয়াই সড়ক অবরোধ করেন আন্দোলনতরা।

এর আগে ভোর থেকেই আগরতলা শহর থেকে প্রায় ৩৩ কিলোমিটার দূরে খামতিংবাড়ি এলাকায় জড়ো হতে থাকেন দলের কর্মী-সমর্থকরা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে দলের কর্মী-সমর্থকদের সংখ্যাও বাড়তে থাকে।

এদিকে অবরোধকে ঘিরে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ ও আধা-সামরিক বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে।

অবরোধের কারণে আগরতলার সঙ্গে বাইরের রাজ্যগুলোর রেল ও সড়কে যাতায়াত ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে আছে। এ অবস্থা চলবে বিকেল ৬টা পর্যন্ত।

আইএনপিটি-এর সাধারণ সম্পাদক জগদীশ দেববর্মা বাংলানিউজকে জানান, দাবি না মানলে তারা আরও কঠোর আন্দোলন করবেন।

প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব বিলে ‘ধর্মীয় কারণে’ আশ্রিতদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার পথ আরও সহজ করা হয়েছে। আগে ‘ধর্মীয় কারণে’ আশ্রিতদের নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে হলে অন্তত ১২ বছর দেশটিতে সাধারণ বসবাসকারী হিসেবে থাকতে হতো।

নতুন বিল আইনে পরিণত হলে আশ্রিতরা ভারতে কমপক্ষে সাত বছর ধরে বসবাস করেই আবেদন করতে পারবেন নাগরিকত্বের জন্য।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮
এসসিএন/এপি/এমএ

চুয়াডাঙ্গায় ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করলো বড় ভাই
দিল্লিকে হারিয়ে চেন্নাই’র জয়
বিশ্বখ্যাত স্থপতি এফআর খানের প্রয়াণ
রাজশাহীতে পর্দা নামলো আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক উৎসবের
বরগুনায় ৯ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ


মুক্তিযোদ্ধাদের আঙুলের ছাপ নিয়ে ডকুমেন্টারি
আবৃত্তি-গান-নাটকে স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত
লোকসভায় প্রার্থী হলেন প্রজ্ঞা
রাজধানীতে ‘থাই ট্রেড ফেয়ার’ শুরু বুধবার
আবারো ত্রিপুরায় যাচ্ছেন মোদী-অমিত শাহ