php glass

আরও চারটি সীমান্তহাট চালু সম্ভব 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সীমান্তহাট-ফাইল ছবি

walton

আগরতলা: বাংলাদেশ এবং ভারত সরকারের সম্মতি পেলে আরও চারটি সীমান্তহাট চালু করা সম্ভব বলে জানিয়েছে ত্রিপুরা সরকারের শিল্প ও বাণিজ্য দফতর।

ত্রিপুরার একিনপুর, বামুটিয়া, হীরাছড়া ও বক্সনগর সীমান্তে হাটগুলো স্থাপন করা সম্ভব বলে দফতর সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, ত্রিপুরা ও বাংলাদেশের মানুষ যেন বৈধভাবে পণ্যসামগ্রী ব্যবহার করতে পারেন এজন্য উভয় দেশের সরকার সীমান্তহাট স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়। ত্রিপুরা রাজ্যের দক্ষিণ জেলার শ্রীনগর ও বাংলাদেশের ফেনীর ছাগলনাইয়া সীমান্তে ২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি প্রথম সীমান্তহাট চালু হয়। 

ওই হাট চালুর পর থেকে ২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ভারতের ৮ দশমিক ৭১ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে এবং বাংলাদেশের বিক্রি হয়েছে ৩ দশমিক ৯০ কোটি টাকার পণ্য।

এরপর ২০১৫ সালের ১১ জুন ত্রিপুরা রাজ্যের সিপাহীজলা জেলার কমলাসাগরের তারাপুর এলাকায় দ্বিতীয় সীমান্তহাট চালু করা হয়। এ সীমান্তহাটে ২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ভারতের ৮ দশমিক ৬৩ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে এবং বাংলাদেশের বিক্রি হয়েছে শূন্য দশমিক ৮৭ কোটি টাকার পণ্য।

এসব সীমান্তহাটে মূলত শাড়ি, প্রসাধন সামগ্রী, মাছ, বিস্কুট, বিভিন্ন ধরনের প্যাকেটজাত খাদ্যসহ শাকসবজি ও ফলমূল ক্রয়-বিক্রয় হয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৬ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১৭ 
এসসিএন/আরআর/জেডএস
 

নানা আয়োজনে যশোরে হানাদারমুক্ত দিবস পালন
বিএনপি আইন-আদালত মানে না: নাসিম
ডিসি হিল সংস্কৃতিচর্চার জন্য উন্মুক্ত করার দাবি
বিশ্বকাপ নয়, আপাতত বিপিএল নিয়েই ভাবছেন সানি
ধরে নিয়ে যাওয়া ২ জেলেকে ফেরত দিলো বিএসএফ


মৌসুমের শুরুতেই ভোলায় জেঁকে বসেছে শীত
মঞ্চ প্রস্তুত, উদ্বোধনের অপেক্ষা
চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন মাহফুজুর রহমান খান
ঢাকায় তেল-গ্যাস রক্ষা কমিটির মহাসমাবেশ ৩ এপ্রিল
সন্তানকে বাঁচাতে পারলেও মারা গেলেন বাবা