সিলেটের পর্যটনকেন্দ্রে যেতে মানা জেলা প্রশাসনের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাফলং

walton

সিলেট: পর্যটন নগরী সিলেট। এখানে মাজার থেকে শুরু করে চা-বাগান, জাফলং, বিছানাকান্দি, সাদাপাথর, লালাখাল, পাংথুমাই, লোভাছড়া, উৎমাছড়াসহ আকর্ষণী স্থানগুলো ভ্রমণে প্রতিনিয়ত আসেন পর্যটকরা। পর্যটকদের পদচারণায় মুখর হয় পর্যটন এলাকাগুলো।

তাছাড়া প্রতিটি বিনোদনকেন্দ্রেও থাকে মানুষের ভিড়। করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় ইতোমধ্যে সিলেটে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এবার পর্যটকদের সচেতন করছে সিলেটের প্রশাসন।

কোনো ধরনের নোটিশ জারি না করলেও করোনা ভাইরাস সুরক্ষায় সিলেটের পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের আগমনে নিরুৎসাহিত করছে সিলেট জেলা প্রশাসন। এজন্য স্থানীয় প্রশাসনকেও মনিটরিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজি এমদাদুল ইসলাম বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের যাতায়াত নিষিদ্ধ করা না হলেও আমরা নিরুৎসাহিত করছি, যাতে কেউ বিনা কারণে পর্যটনকেন্দ্রে না যান।

তিনি বলেন, পর্যটনে আসলে মানুষ বিনা কারণেই যান। যখন সময় পান বা ফুসরত মিলে তখন সপরিবারে ঘুরতে আসেন। মূলত; করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় মানুষদের সচেতন করে দিচ্ছি।

জেলা প্রশাসক এম কাজি এমদাদুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষায় বিভাগীয়, জেলা, উপজেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা কমিটি নিয়ে মঙ্গলবারও (১৭ মার্চ) তিনি সভা করেছেন। করণীয় বিভিন্ন বিষয় নির্ধারণ করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০০ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২০
এনইউ/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সিলেট করোনা ভাইরাস
ঈদে তেঁতুলিয়ায় সব বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ, কড়া অবস্থানে পুলিশ
নগরবাসীকে মেয়র আরিফের ঈদ শুভেচ্ছা
করোনা আতঙ্ক নিয়েই ঘরে ফিরছে মানুষ
সড়কে দায়িত্ব পালনে গর্বিত, আফসোস নেই ট্রাফিক সদস্যদের
দেশবাসীকে ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা সাজেদা চৌধুরীর


‘চির উন্নত শির...’
আজ ১২১তম নজরুলজয়ন্তী

‘চির উন্নত শির...’

সাবেক এমপি মকবুলের মৃত্যুতে তাপসের শোক
হাসপাতাল কর্মচারীদের জন্য আতিকের ঈদ উপহার
সিলেট আওয়ামী পরিবারে করোনার হানা
হাজি মকবুলের মৃত্যুতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রীর শোক