ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

পর্যটন

পরিচ্ছন্ন সড়কজুড়ে সবুজ আর কৃষ্ণচূড়ার শোভা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৭ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৯
পরিচ্ছন্ন সড়কজুড়ে সবুজ আর কৃষ্ণচূড়ার শোভা সড়কে শোভা ছড়াচ্ছে কৃষ্ণচূড়া। ছবি: বাংলানিউজ 

বেঙ্গালুরু (ভারত) থেকে: চারলেন সড়কে বাস, মাইক্রোবাস, মোটরসাইকেল ও প্রাইভেটকারসহ বিভিন্ন যানবাহনের যাতায়াত। সড়কে নেই ধুলোবালি, পথের পাশে আর্বজনার স্তূপ আর যানজটের দীর্ঘলাইন। 

অন্য কোনো গাড়ির সঙ্গে নেই কোনো প্রতিযোগিতা। সারিবদ্ধভাবে যাচ্ছে আসছে যানবাহনগুলো।

আধুনিক সিগন্যাল বাতির উপর নির্ভর করেই এখানকার ট্রাফিক ব্যবস্থা। যানবাহনগুলো থেমে আবার নিজ গন্তব্যে চলে যাচ্ছে।

সড়কের দু’পাশেই সবুজ প্রকৃতি আর মনকাড়া কৃষ্ণচূড়ার শোভা। সবুজ গাছে লাল রঙের বাহারি ফুল। যেন লাল-সবুজ একই বৃত্তে মিশে আছে সড়কজুড়ে।  

গাছে গাছে লাল রঙের ফুল আর সবুজের সমারোহে নজরকাড়ে পথচারী ও ভ্রমণপিপাসুদের। ছায়াঘেরা সড়কে নেই রোদের তপ্ততা। কৃষ্ণচূড়া আর সবুজ গাছ যেন শান্ত-নিবিড় পরিবেশ সৃষ্টি করছে। যানবাহনে বসেই এমন নয়নাভিরাম দৃশ্য নজরকাড়ে।  

সবুজে ঘেরা চারলেনে সড়ক।  ছবি: বাংলানিউজ

গাছগুলো শুধু সড়কের সৌন্দর্যও বাড়ায় না, শান্ত স্নিগ্ধ ও নিবিড় পরিবেশ পর্যটককে প্রতিনিয়ত আকৃষ্ট করছে। গাছ আর ফুলের শোভায় মনকেও বেশ আনন্দ দেয়।

ভারতের কর্নাটকের রাজধানী শহরের বেঙ্গালুরুরের নারায়ণী হাসপাতাল থেকে রেলস্টেশন পর্যন্ত ৪০ কিলোমিটার বেশিরভাগ এলাকাজুড়ে চোখে পড়বে কৃষ্ণচূড়ার সৌন্দর্য। সড়কের পাশে কিছুদূর পর পর রয়েছে যাত্রী ছাউনির ব্যবস্থা। ছাউনিতে অপেক্ষারতরা সেই সৌন্দর্য উপভোগের পাশাপাশি সেলফি তুলছেন।

পরিচ্ছন্ন বেঙ্গালুরুরের সড়কের চিত্রই এমন। কৃষ্ণচূড়া আর সবুজের সড়কে নেই কোনো ভাঙাচোরার দৃশ্য। মাঝে মধ্যে স্পিডব্রেকার আর গতিরোধক চিহ্ন। সেখানে যানবাহনে সতর্কতা। সড়কের কিছুদূর পর পর পথচারীদের পারাপারে জন্য রয়েছে ফুট ওভারব্রিজ। সেখানেও রয়েছে যান চলাচলের ট্রাফিক সিস্টেম।  

নান্দনিক সৌন্দর্যের বেঙ্গালুরু শহরবাসীরা হিন্দি ও ইংরেজি ভাষার উপর বেশি নির্ভরশীল। এখানকার হোটেলগুলোতে দু’একজন করে হোটেল বয় রয়েছেন। তারা কলকাতা ও বাংলাদেশিদের জন্য বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারেন।  

বিভিন্ন দেশ থেকে ঘুরতে আসা মানুষ এখানে এসে মুগ্ধ হন। সড়কের মতো নারায়ণী হাসপাতাল চত্বর ও এর আশ-পাশের এলাকায় কৃষ্ণচূড়া গাছের এমন সমারোহ চোখে পড়ে। যা মুগ্ধ করে দর্শনার্থী ও ভ্রমণপিপাসুদের।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২৮ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৯
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa