ঈদে বেড়েছে বিদেশ ভ্রমণের প্রবণতা

1088 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বিগত বছরগুলোর তুলনায় দেশিয় বহু পর্যটক এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ভ্রমণে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে, বিভিন্ন পর্যটন কোম্পানির বিশেষ প্যাকেজও শেষ হয়ে গেছে। শেষ হয়ে গেছে, বিভিন্ন এয়ারলাইসের টিকিটের বুকিং দেওয়াও।

ঢাকা: আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বিগত বছরগুলোর তুলনায় দেশিয় বহু পর্যটক এশিয়ার বিভিন্ন দেশে ভ্রমণে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে, বিভিন্ন পর্যটন কোম্পানির বিশেষ প্যাকেজও শেষ হয়ে গেছে। শেষ হয়ে গেছে, বিভিন্ন এয়ারলাইসের টিকিটের বুকিং দেওয়াও।
 
এবার অভ্যন্তরীণ পর্যটন এলাকায় বেড়ানোর পাশাপাশি দেশের বাইরে বহু ভ্রমণপিপাসুর বেড়ানোর প্রবণতা বেশ লক্ষণীয়ভাবে বেড়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
 
দেশের ভেতর সুন্দরবন, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সেন্টমার্টিন, সিলেট, পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়িসহ অন্যান্য পর্যটন এলাকায় ভ্রমণপিপাসুদের আগ্রহ থাকে। তবে এবার বুকিং থাকলেও অন্যান্যবারের চেয়ে কম বলে ট্যুরিজম সেক্টরের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
 
তারা জানান, বাংলাদেশ থেকে দুই থেকে তিনজনের পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন কোম্পানির প্যাকেজের আওতায় ভুটান, ভারত, নেপাল, থাইল্যান্ড, মালেয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশে বুকিং দিয়েছেন।
 
তারা জানান, যারা বুকিং দিয়েছেন, তাদের কেউ ঈদের আগে, আবার কেউ ঈদের পরে যাবেন। কিন্তু ঈদের আগে চাপ বেশি থাকায় অনেকে এবার প্লেনের টিকিটের ব্যবস্থা করতে পারেননি। বাধ্য হয়ে অনেকে ঈদের পরেই বুকিং দিয়েছেন। আবার ভারত ও ভুটানে বাই রুটে (বাস-ট্রেনে) যাওয়ার জন্যও বুকিং দিয়ে রেখেছেন বহু মানুষ।
 
তবে দেশের ভেতরে কক্সবাজার, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, বান্দরবান, সুন্দরবন ও সিলেটে বুকিং থাকলেও অন্যান্যবারের মতো এবার এতটা চাপ নেই। কিন্তু ঈদের পর পরই প্যাকেজগুলোতে পর্যটকদের আশানুরূপ বুকিং হচ্ছে বলে জানা যায়।
 
বিডি ট্যুরস লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কে জামান খান বাংলানিউজকে বলেন, ঈদ উপলক্ষে দেশের বাইরে এবার বেশ ভালো বুকিং পেয়েছেন তারা। এর মধ্যে ভুটান ও ভারতে যথেষ্ট বুকিং হয়েছে। ভারত, ভুটান ছাড়াও থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কায় ছোট ছোট ফ্যামেলির জন্য বেশ ভালো বুকিং রয়েছে।
 
ইতোমধ্যে, তারা ৫০০ জনের বুকিং সেরেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, গত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে বিভিন্ন ফ্লাইটের মাধ্যমে এসব ভ্রমণপিপাসু পর্যটকরা ওই সব দেশে যাওয়া শুরু করেছেন। ঈদের পর আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাকিদের নিয়ে যাওয়া হবে।
 
তিনি বলেন, তিনদিন, পাঁচদিন ও সাতদিনের বিভিন্ন প্যাকেজে এসব পর্যটকরা বিদেশে যাচ্ছেন।

অনেকের ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও এয়ার টিকিটের অভাবে ঈদ উপলক্ষে দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ অনেকেই হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।
 
অন্যদিকে, লেকশোর ট্যুরিজম বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাজেদুল ইসলাম জুয়েল জানান, এই ঈদে দেশের ভেতরে পর্যটকদের আগ্রহ কম থাকলেও ঈদের পরে অনেক বুকিং রয়েছে।

তবে তুলনামূলকভাবে দেশের বাইরে ভ্রমণপিপাসুরা যাওয়ার বেশ ভালো আগ্রহ দেখা যাচ্ছেন বলে জানান তিনি।
 
হোম ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলসের ব্যবস্থাপক রাসেল জানান, এবার ঈদে একটি বিষয় লক্ষণীয়, দেশের বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় দেশিয় পর্যটকদের বুকিং বেশ ভালো আছে। আবার দেশের বাইরেও অনেকেই বুকিং দিয়েছেন।
 
তিনি জানান, ঈদ উপলক্ষে গত এক সপ্তাহ ধরে ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, ভুটান, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে পর্যটকদের যাওয়া শুরু হয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০১৪৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৫
 টিএইচ/এবি

Nagad
ঈদের সাতদিন আগে বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি
খুলনায় চিকিৎসা নিয়ে ছিনিমিনি চলবে না
অনুশীলনে ফিরতে টাইগাররা ফিট ও প্রস্তুত
পর্নোগ্রাফি আইনে শিক্ষিকার মামলায় সাবেক স্বামী গ্রেফতার
স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লজ্জা হওয়া উচিত: সাইফুল হক


লঞ্চডুবি: গ্রেফতার এড়াতে যেভাবে আত্মগোপনে ছিলেন বাসার
চলতি মাসেই অনলাইন নিউজপোর্টাল নিবন্ধন: তথ্যমন্ত্রী
নমুনার অভাবে করোনা পরীক্ষা বন্ধ সিভাসু ল্যাবে!
করোনা: বগুড়ায় একদিনে সুস্থ ৬০, শনাক্ত ৫২
হাতীবান্ধায় বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু