ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

প্রবাসে বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ায় মহাসমারোহে দুর্গোৎসব উদযাপন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০১৮
অস্ট্রেলিয়ায় মহাসমারোহে দুর্গোৎসব উদযাপন অস্ট্রেলিয়ার দুর্গোৎসব/ছবি: বাংলানিউজ

অস্ট্রেলিয়া (সিডনি): অস্ট্রেলিয়ায় পালিত হলো সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। চণ্ডীপাঠ আর ধূপ-দ্বীপ প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে দেবী দুর্গার অর্চনা করা হয় অস্ট্রেলিয়ার প্রত্যেকটি মণ্ডপে।

ঢাক, ঢোলের বাদ্যি বাজনায় সিডনিজুড়ে উচ্চারিত হলো মা দুর্গার জয়ধ্বনি। শঙ্খনাদ আর উলুধ্বনিতে রচিত হলো জগতাত্মার আগমনী বার্তা।

আর এই মাঙ্গলিক কাজটি সম্পাদনের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রতিটি হিন্দু পরিবারে দেখা যায় উৎসবের আমেজ।  

ধর্ম যার যার, উৎসব সবার- এই মর্মবাণী উপলব্ধি করে বাঙালি এগিয়ে যাচ্ছে প্রগতির পথে। তাই উৎসব সাফল্যমণ্ডিত করতে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাই সার্বিক সহযোগিতা করেছে।  
 
এবারের দুর্গোৎসব একটু ভিন্ন আঙ্গিকে অনুষ্ঠিত হয়। অস্ট্রেলিয়ার প্রত্যেকটি বড় শহরে আয়োজন করা হয় দুর্গাপূজার। তবে বাণিজ্যিক রাজধানী সিডনির পূজাগুলো ছিল উল্লেখযোগ্য। সর্বমোট ১৩টি মণ্ডপে দুর্গোৎসব হয় এখানে। প্রতিটি মণ্ডপেই পূর্ণার্থীদের ভিড় ছিল উল্লেখ করার মতো।  

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আগমনী অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম সদস্য অনুপম দেব বলেন, এবারের দুর্গাপূজা সম্পূর্ণ রিচুয়াল মেনে করা হচ্ছে এবং তা করা হচ্ছে সবার মঙ্গল কামনা করে।

এই পূজা উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি ছিল ছিল জাঁকজমকপূর্ণ। এখানে শুধু হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা নন, মুসলিম, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, শিখসহ অনেক স্থানীয় অস্ট্রেলিয়ান মিলে এ অনুষ্ঠানকে সাফল্যমণ্ডিত করে তোলেন। সব ধর্মের মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত এ উপস্থিতি এবারের দুর্গোৎসবকে সত্যিকার অর্থেই সার্বজনীন করে তোলেন।  

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নূর আমীন বরাবরের মতো এবারও দুর্গাপূজার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন। তিনি বলেন, দুর্গাপূজা করা হয় পৃথিবীর সব প্রাণীর মঙ্গল কামনার জন্য। আর সাংস্কৃতিক তো মানুষকে আলোড়িত করে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০১৮
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa