ঢাকা, রবিবার, ৪ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সিঙ্গাপুর

ফেসবুকের মিথ্যা খবর মানুষ এড়িয়ে যায়

মাজেদুল নয়ন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩২৭ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১৭
ফেসবুকের মিথ্যা খবর মানুষ এড়িয়ে যায় বক্তব্য রাখছেন এডসন সি টানডর জুনিয়র

সিঙ্গাপুর থেকে: ফেসবুকের মিথ্যা খবর মানুষ এড়িয়ে যায় বলে জানিয়েছেন নানিয়াং টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির উই কিম উই স্কুল অব কমিউনিকেশন এন্ড ইনফরমেশন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এডসন সি টানডর জুনিয়র। 

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে তিনি সিঙ্গাপুরের ২ হাজার ৫০১ জন ফেসবুক ব্যবহারকারীর ওপর জরিপ চালিয়ে এ ফল প্রকাশ করেন।

সম্প্রতি সিঙ্গাপুরের অরচার্ড হোটেলে 'ভুল সংবাদ' নিয়ে এশিয়ান জার্নালিজম ফেলোশিপের এক সেমিনারে এই গবেষণার ফল জানান তিনি।

 

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট, ২০১৭) তিনি বাংলানিউজকে বলেন, মানুষ ভুল সংবাদ তখনই বিশ্বাস করে যখন আগে থেকেই সেই বিশ্বাস মানুষ মনে লালন করেন।  

গবেষণায় দেখা যায়, ৭৩ দশমিক ৬০ শতাংশ মানুষই ফেসবুকের মিথ্যা সংবাদ এড়িয়ে যান। ১২ দশমিক ২৫ শতাংশ লোক এসব মিথ্যা পোস্ট সরাতে ফেসবুকে রিপোর্ট করেন।  

যারা বা যেসব একাউন্ট এই ধরনের মিথ্যা সংবাদ ও ভুয়া ছবি পোস্ট করেন তাদেরকে ব্লক করে দেন ১২ দশমিক ৩ শতাংশ লোক। ১২ দশমিক ১ শতাংশ লোক ওই সব পোস্টকে মিথ্যা জানিয়ে কমেন্ট করেন। ১১ দশমিক ৪ শতাংশ লোক ভুয়া খবর পোস্ট করা ব্যক্তিকে ম্যাসেজ পাঠান।  

তবে মাত্র ৬ দশমিক ৫ শতাংশ লোক এই সব ভুয়া খবরকে সংশাধন করে নিজের ফেসবুক ওয়ালে পোস্ট করেন।  

তিনি বলেন, মিথ্যা খবরকে বন্ধ করা যাবে না কোনভাবেই। কারণ সবাই যে এক দেশ থেকে এইসব পোস্ট করেন তা নয়। বরং বিদেশে বসেও করতে পারেন।  

সমাধান হিসেবে জনগণকে সচেতন করার উপরই জোর দেন তিনি। এডসন বলেন, মিথ্যা খবর বিশ্বাসের সঙ্গে শিক্ষার বিষয়টিও জড়িত। তবে মানুষ কি বিশ্বাস করে এবং কি পোস্ট করা হয়েছে সেটি বড় বিষয় এখানে। যদি মানুষ আগে থেকেই একটি ধারণায় বিশ্বাস করেন এবং তার মতের সঙ্গে মিল আছে এমন ভুয়া কোন পোস্টও দেখেন, তিনি সেটি বিশ্বাস করেন। মিথ্যা খবর বুঝতে পারার জন্য বিভিন্ন ধরনের ক্যাম্পেইন হতে পারে বলেও জানান তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১৭
এমএন/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa