ঢাকা, রবিবার, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৯ আগস্ট ২০২০, ১৮ জিলহজ ১৪৪১

প্রবাসে বাংলাদেশ

হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে ড. ইউনূসের বক্তৃতা

সাবেদ সাথী, নিউইংল্যান্ড থেকে | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৯, ২০১২
হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে ড. ইউনূসের বক্তৃতা

গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা শান্তিতে নোবেল পুরস্কারজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেছেন, মানুষের সৃষ্টিশীলতা সীমাহীন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে মানুষ তার এই সৃষ্টিশীলতা কীভাবে ব্যবহার করবে।



গত ১৭ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে বিশ্বখ্যাত হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তৃতাকালে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘কোনো ব্যক্তি নিজেকে শূন্য খোসা ভাবতে পারেন না। একজন মানুষ হিসেবে অবশ্যই অন্য একজন মানুষের পাশে আমরা দাঁড়াতে পারি। অন্যের কাছে নিজের কার্যকারিতা প্রমাণ করতে পারি। অন্তত একদিনের জন্য হলেও তা সম্ভব। ’

হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির বিজনেস স্কুল, হার্ভার্ড সোসাল এন্টারপ্রাইজ ইনিশিয়েটিভ ও হার্ভার্ড ইনোভেশন ল্যাবের যৌথ উদ্যোগে ড. ইউনূসের সম্মানে আলোচনা সভায় আয়োজন করা হয়।

হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল অডিটোরিয়ামে কয়েক শ দর্শক-শ্রোতার উদ্দেশে তিনি বলেন, সোসাল বিজনেস একটা নতুন ধরনের ব্যবসা। এটি সমস্যা সমাধান করার জন্য ব্যবসা।

তিনি বলেন, ‘সাধারণ ব্যাবসা হচ্ছে অর্থ বিনিয়োগ করে অর্থ বাড়ানোর ব্যবসা। সেটা কোনো সমস্যা সমাধান করার জন্য নয়। কিন্তু সামাজিক ব্যবসা হচ্ছে উদ্ভূত সমস্যার সমাধান করার জন্য ব্যবসা।

শান্তিতে নোবেলজয়ী ড. ইউনূস বলেন, ‘ব্যবসা থেকে মুনাফা পাওয়া গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু শুধু মুনাফা করাটাই মানুষের একমাত্র যোগ্যতা হতে পারে না। এখন আমাদের সামনে সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ হচ্ছে বিশ্বকে দারিদ্রমুক্ত করা। এজন্য আমাদের ভাবা দরকার, আমরা আগামীতে কেমন বিশ্ব গড়তে পারি। মানুষের সৃষ্টিশীলতা সীমাহীন, কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে মানুষ তার এই সৃষ্টিশীলতা কীভাবে ব্যবহার করবে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১০৩১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৯, ২০১২
জেডএস/সম্পাদনা: রানা রায়হান, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa