ঢাকা, সোমবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ সফর ১৪৪২

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

প্রযুক্তি খাতের প্রকল্পে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৩ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২০
প্রযুক্তি খাতের প্রকল্পে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে

ঢাকা: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের প্রকল্পগুলোতে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে বায়োটেকনোলজি স্থাপন সংক্রান্ত ত্রি-পাক্ষিক চুক্তি সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে বিষয়টি জানানো হয়।  

নসরুল হামিদ বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের প্রকল্পে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের আধুনিকায়নে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের অবদান অপরিসীম। এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং (ইআরপি) সিস্টেম, ভৌগলিক তথ্য সিস্টেম (জিআইএস), মিটারিং-বিলিং-কালেকশন (এমবিসি) সিস্টেম, তদারকি নিয়ন্ত্রণ এবং ডেটা অর্জন (এসসিএডিএ) সিস্টেম, ভূগর্ভস্থ সাবস্টেশন, স্মার্ট গ্রিড সবই এ প্রযুক্তির সহযোগিতায় করা হচ্ছে। সার্বিকভাবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিখাত দৈনন্দিন জীবনকে আরও ডিজিটালাইজড, আরও সংযুক্ত ও স্বয়ংক্রিয় করে জীবন ধারণ পদ্ধতিকে সহজ থেকে সহজতর করছে।

তিনি আরও বলেন, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার কর্মসূচি প্রায় সম্পন্ন। মানুষ এখন বিদ্যুৎ পেয়েই খুশি নয়, তারা মানসম্পন্ন নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ চায়। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দিতে এ খাতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে। প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্মার্ট গ্রিড, স্মার্ট মিটার, ভূগর্ভস্থ সাবস্টেশন, ভূগর্ভস্থ বিদ্যুতের তার, স্ক্যাডা প্রভৃতির সফল প্রয়োগ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করবে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তার আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের দিক-নির্দেশনায় আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর অক্লান্ত পরিশ্রমে বাংলাদেশ দ্রুত সময়ের মধ্যে ডিজিটালাইজড হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান প্রতিমন্ত্রী।

বায়োটেকনোলজি স্থাপন সংক্রান্ত ত্রি-পাক্ষিক চুক্তি সই অনুষ্ঠান সভাপতিত্ব করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

ভার্চ্যুয়াল এ চুক্তি সই অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিসেস হোসনে আরা বেগম, সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. আজিজ খান, অরিক্স বায়োটেক লিমিটেডের চেয়ারম্যান কাজী শাকিল ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডেভিড বো বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২০
আরকেআর/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa