php glass

ঢাবিতে ৩ দিনব্যাপী নবায়নযোগ্য শক্তি মেলা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: রানা / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশ সোলার এনার্জি সোসাইটির উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী জাতীয় নবায়নযোগ্য জ্বালানি মেলা-২০১৬ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর ড. সাইফুল হক।

ঢাকা: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশ সোলার এনার্জি সোসাইটির উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী জাতীয় নবায়নযোগ্য জ্বালানি মেলা-২০১৬ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর ড. সাইফুল হক।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়নে এক সংবাদ সম্মেলেনে তিনি এ কথা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে ড. সাইফুল হক জানান, দেশে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার বাড়াতে আগামী ২৭ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী ‘ন্যাশনাল রিনিউএবল এনার্জি এক্সপো-১৬’। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশ সোলার এনার্জি সোসাইটি এ জাতীয় সেমিনার ও প্রদর্শনীর আয়োজন করছে। শক্তি ইনস্টিটিউটের এনার্জি পার্কে ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত এ প্রদর্শনী চলবে।

তিনি আরও জানান, প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও ঢাবি উপচার্য ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে দেশি-বিদেশি ব্যবসায়ীরা নবায়নযোগ্য শক্তি উৎপাদনে বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত হবেন বলেও জানান ড. সাইফুল হক।

‘ন্যাশনাল রিনিউএবল এনার্জি এক্সপো-১৬’ উপলক্ষে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শক্তি ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. এসএম নাসিফ সামস, এক্সপো কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক বলরাম বাহাদুর, স্যোলার গ্রিড সভাপতি আবদুল হালিম মৃধা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০১৬
এইচআর/এসএস

রায় ঘোষণার আগে যা বললেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল
মোবারক হোসেন খান’র ছেলে রাজিতের সুরে গাইলেন ডলি
টিপুর দ্রুত ফাঁসি চান সাক্ষী ও শহীদ পরিবারের সদস্যরা
সু চির অধঃপতনে দুঃখ পেয়েছি: ড. মোমেন
কুষ্ঠরোগীদের সমাজ-চাকরিচ্যুতি নয়, চিকিৎসা করাতে হবে


বনানী থেকে চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার
স্বর্ণ জয়ের পথটা সহজ ছিল না: আফিফ
চলে গেলেন রক্সিট তারকা মেরি ফ্রেড্রিকসন
সিআইইউতে ‘আউটকাম বেসড অ্যাডুকেশন’ শীর্ষক কর্মশালা
বিজয়ের মাসে দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর ২৭০০ মিটার