‘তৌফিক-ই ইলাহী জনগণের স্বার্থ দেখেন না’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরীর একক সিদ্ধান্তে চলছে জ্বালানি মন্ত্রণালয়। তিনি জনগণের স্বার্থ সংরক্ষণ করছেন না। এই উপদেষ্টা বৈঠকে কারো কথা শুনতে চান না। তিনি যা বলেন, তা-ই বাস্তবায়ন করতে হয় কর্মকর্তাদের।

ঢাকা: তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরীর একক সিদ্ধান্তে চলছে জ্বালানি মন্ত্রণালয়। তিনি জনগণের স্বার্থ সংরক্ষণ করছেন না। এই উপদেষ্টা বৈঠকে কারো কথা শুনতে চান না। তিনি যা বলেন, তা-ই বাস্তবায়ন করতে হয় কর্মকর্তাদের।

প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী সম্পর্কে এমন অভিযোগ করেছেন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ`র (ক্যাব) জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. এম শামসুল আলম।

শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে `আবারও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রক্রিয়া` শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শামসুল আলম বলেন, ``তৌফিক-ই-ইলাহীর সম্পর্কে আমি যে মন্তব্য করলাম, তা আমার নয়। এসব কথা জ্বালানি মন্ত্রণালয় ও পরিকল্পনা কমিশনের কর্মকর্তারাই আমাকে জানিয়েছেন।` তিনি আরো বলেন, ``কর্মকর্তারা আমাকে জানিয়েছেন, মিটিংয়ে কোনো বিষয়ে তাঁদের মতামত নেওয়া হয় না।``

এ সময় শামসুল আলম কারো নাম উল্লেখ না করেই বলেন, ``৪০ বছর পরে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছে জনগণ। একইভাবে জ্বালানি অপরাধীদের বিচারও এ দেশের মানুষ করবে।``

এম শামসুল আলম বলেন, ``জ্বালানি উপদেষ্টার ভুল পরিকল্পনার কারণে দেশের বিদ্যুৎ খাত চরম বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে। দফায় দফায় বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েও পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যাচ্ছে না।``

তিনি বলেন, ``জ্বালানি উপদেষ্টা সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানেও তিনি তাঁর নিজের সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেন। দেশের ভালো-মন্দ না দেখে তিনি ব্যক্তিস্বার্থ সংরক্ষণ করছেন।``

শামসুল আলম বলেন, ``ক্ষমতায় আসার সঙ্গে সঙ্গেই কনোকো-ফিলিপসকে সাগরের গ্যাস ব্লক দিতে উঠেপড়ে লেগেছিলেন জ্বালানি উপদেষ্টা। এর কারণ কী? গ্যাসের পর এখন কয়লা বিদেশিদের হাতে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি। এ উদ্দেশ্যে সম্প্রতি যমুনা রিসোর্টে চার দিন বৈঠক করেছেন তিনি। তৌফিক-ই-ইলাহী প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হয়ে এ কাজ করতে পারেন না।``

বিদেশিদের স্বার্থ রক্ষায় সরকারের কিছু লোক কাজ করছে বলে মন্তব্য করেন জ্বালানি বিশেষজ্ঞ এম শামসুল আলম। তিনি বলেন, ``তৌফিক-ই-ইলাহী বিশেষ এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন। একারণে জ্বালানি খাতকে ব্যক্তিমালিকানায় তুলে দেওয়া হচ্ছে।``

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শামসুল আলম আবারও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি ন্যায়সংগত হবে না বলে মন্তব্য করেন। তিনি সরকারকে বিদ্যুতের দাম বাড়নো থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে ক্যাবের সভাপতি কাজী ফারুক বলেন, ``এভাবে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো বেআইনি। প্রয়োজনে এর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।``

বাংলাদেশ সময় ১০৪০ ঘণ্টা, জুলাই ২২, ২০১২

এমএমকে; সম্পাদনা:জুয়েল মাজহার, কনসালট্যান্ট এডিটর[email protected]

বরিশালে ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিক্রি শুরু রোববার
সিলেটে করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন ৩ জন
বেওয়ারিশ কুকুরগুলোর খাবার দিচ্ছেন পটুয়াখালীর মেয়র
করোনা: আইনজীবীদের প্রণোদনা দেওয়ার দাবি
মোবাইল কলে জানালে পৌঁছে যা‌বে সহায়তা


ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাদের জন্য তহবিল গঠনের আহ্বান 
বরিশাল বিভাগে ২৪৬৪ জনের হোম কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন
যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় বিএনপি নেতার মৃত্যু, ফখরুলের শোক
সুন্দরগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
লোহাগাড়ায় আমিনুল ইসলামের ত্রাণ পেলো ১৮শ কর্মহীন শ্রমজীবী