বেশি দামে বিশেষ শ্রেণিতে বিদ্যুৎ: আদেশ ১৩ মে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

শিল্প ও আবাসিকে বিশেষ শ্রেণির (কিউ শ্রেণি) গ্রাহকদের বর্ধিত দামে নিরবছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বিষয়ে আগামী ১৩ মে আদেশ দেবে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

ঢাকা: শিল্প ও আবাসিকে বিশেষ শ্রেণির (কিউ শ্রেণি) গ্রাহকদের বর্ধিত দামে নিরবছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বিষয়ে আগামী ১৩ মে আদেশ দেবে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

বুধবার সকাল ১১টায় কমিশন কার্যালয়ে শুনানি শুরু হয়ে তা চলে বিকেল সোয়া তিনটা পর্যন্ত। শুনানি গ্রহণ করেন বিইআরসির চেয়ারম্যান সৈয়দ ইউসুফ হোসেন, সদস্য ড. সেলিম মাহমুদ ও প্রকৌশলী ইমদাদুল হক।

বিইআরসির কাছে পিডিবির দেওয়া প্রস্তাবে আবাসিকে প্রতি ইউনিট ১৩ দশমিক ১৫ টাকা, শিল্পে ১৬ দশমিক ৭৩ টাকা (১৩২ কেভি লাইন), ১৭ দশমিক ৫২ টাকা (২২ কেভি লাইন) ও ১৮ দশমিক ২৩ টাকা (১১ কেভি লাইন) মূল্য নির্ধারণ করার কথা বলা হয়েছে।

এদিন বিইআরসি জানায়, বিশেষ শ্রেণির গ্রাহক হতে কাউকে বাধ্য করতে পারবে না। এতে ব্যবসায় চরম অসম প্রতিযোগিতার সৃষ্টি হবে। বিদ্যুৎ লাইন, সাব স্টেশন স্থাপনসহ অবকাঠামো উন্নয়নের খরচ গ্রাহককে বহন করতে হবে।

শুনানিতে শিল্পপ্রতিষ্ঠানের মালিকরা উপস্থিত ছিলেন। তারা জানান, এক টন রড তৈরি করতে ৯০০ ইউনিট বিদ্যুৎ খরচ হয়। বিদ্যুতের দাম বাড়লে স্ক্র্যাপ থেকে রড তৈরিতে টনপ্রতি খরচ পড়বে ১৪ হাজার ৪০০ টাকা।

মালিকরা বলেন, ‘একই সময়ে যাদের ক্যাপটিভ পাওয়ার (নিজস্ব বিদ্যুৎ উৎপাদন) আছে তারা নিজেদের উৎপাদিত বিদ্যুৎ দিয়ে তাদের প্রতিটন রড উৎপাদনে খরচ পড়ে দুই হাজার ২৫০ টাকা। এতে করে কিছু প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হবে। এ যেন হাত বেঁধে পানিতে ফেলে দেওয়ার অবস্থা।’

এদিকে, এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন হলে সাধারণ শ্রেণির গ্রাহকদের দুর্ভোগ আরও বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা।

প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে, আটটি তেলভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ৭০ শতাংশ পরিচালনা করলে ৭২৫ মেগাওয়াট বাড়তি বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে। এতে করে শিল্পে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়া সম্ভব হবে। সেই সঙ্গে লোডশেডিংও কমে আসবে।

এদিকে, তাদের এই প্রস্তাবকে বাস্তবতাবিবর্জিত বলে মন্তব্য করেছেন কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক সামছুল আলম। তিনি শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০১ ঘণ্টা, মে ০২, ২০১২

ইএস/সম্পাদনা : রানা রায়হান, অ্যাসিস্ট্যান্ট আউটপুট এডিটর

করোনা সন্দেহে মাদারীপুরে কলেজছাত্র আইসলেশনে
২০ হাজার পরিবারকে চাল-ডাল দেবেন মেয়র লিটন
করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১০ কোটি টাকা দিচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ
উল্লাপাড়ায় ৩০ গণপরিবহনকে জরিমানা


গরীব-অসহায়দের বাড়িতে খাদ্য পৌঁছে দিলেন মন্ত্রী শ ম রেজাউল
ডিএনসিসির পরিচ্ছন্নতা-মশক নিধনকর্মীদের গ্লাভস-জুতা বিতরণ
সিলেটে রাস্তার পাশে পড়ে থাকা বিদেশি নাগরিক আইসোলেশনে
বশেফমুবিপ্রবিতে প্রস্তুত হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ 
নওগাঁয় মেয়েকে হত্যার অভিযোগে মা আটক