ঢাকা, রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৭, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের দুই অভিযান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের দুই অভিযান

ঢাকা: দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এনফোর্সমেন্ট ইউনিট বগুড়া ও মাদারীপুরে দু’টি অভিযান পরিচালনা করেছে।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) এ তথ্য জানান দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য।

বগুড়া জেলা কাহালু উপজেলায় ৭৪ শতাংশ সরকারি খাসজমি স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের জোরপূর্বক দখল ও ভুয়া রেকর্ডপত্র করে নিজেদের নামে রেকর্ড করার অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করে দুদক।

দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিটে আসা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুর্নীতি দমন কমিশন, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, বগুড়ার সহকারী পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম ও উপসহাকরী পরিচালক সুদীপ কুমার চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত টিম এ অভিযান করেন।

অভিযানকালে দুদক টিম কাহালু উপজেলা সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে সংশ্লিষ্ট নথিপত্র সংগ্রহ করে পর্যালোচনা করেন এবং দখল সরকারি খাসজমি সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। অভিযোগসংশ্লিষ্ট রেকর্ডপত্র পর্যালোচনায় সরকারি খাসজমি দখল এবং দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে অবৈধভাবে জাল পর্চা ও খতিয়ান তৈরি করেছে মর্মে দুদক টিমের কাছে প্রাথমিকভাবে প্রতীয়মান হয়েছে।

দুদক টিম কাহালু উপজেলা সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের রেকর্ডপত্র সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনার বিষয়ে অধিকতর দায়িত্বশীল ও যত্নবান হওয়ার জোর তাগিদ দেন। অভিযোগের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট রেকর্ডপত্র পরবর্তীসময়ে বিস্তারিত পর্যালোচনা করে কমিশনে প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে অভিযান পরিচালনাকারী টিম।

এছাড়া, মাদারীপুর জেলার সদর উপজেলাধীন দুর্গাবদ্দীহাট দাখিল মাদ্রাসার অফিস সহকারীর জাল সনদ ব্যবহার করে চাকরি নিয়ে ১৭ বছর যাবত সরকারি বেতন-ভাতা তুলে আত্মসাৎ সংক্রান্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুর্নীতি দমন কমিশন, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ফরিদপুর থেকে ভিন্ন আরো একটি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
ডিএন/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa