ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

খাদ্যে ভেজাল, ফেনীতে তিন প্রতিষ্ঠানকে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১, ২০২০
খাদ্যে ভেজাল, ফেনীতে তিন প্রতিষ্ঠানকে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান। ছবি: বাংলানিউজ

ফেনী: ফেনীতে খাদ্যে ভেজাল মেশানোর দায়ে তিন প্রতিষ্ঠানকে ৩১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান র‌্যাব। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো রসমেলা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড, যমুনা বেকারি ও সনি আইসক্রিম ফ্যাক্টরি।

 

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেল ও সন্ধ্যায় র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে এ জরিমানা করেন।  

র‌্যাব জানায়, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে একাধিকবার ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হলেও শোধরায়নি ফেনীর রসমেলা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড নামীয় খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) র‌্যাব পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে প্রতিষ্ঠানটির পুরনো চিত্রই পরিলক্ষিত হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির বিএসটিআইর অনুমোদন নেই, কারাখানায় বিরাজমান অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, পঁচা ও বাসি খাদ্য, ক্ষতিকর রং মেশানো, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য এবং মোড়কে মিথ্যা তথ্য প্রচার-অপরাধের কোনো কমতি নেই। একই চিত্র পাওয়া গেছে যমুনা বেকারি ও সনি আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতেও।

তাই ওই তিনটি প্রতিষ্ঠানের বিশাল অংকের টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু। একই সঙ্গে ৪ জনকে আটক ও কারখানা সিলগালা করা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, র‌্যাব-৭ ফেনীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিকেলের দিকে শহরতলীর কালীপালে রসমেলা, যমুনা বেকারি এবং মধুপুরে সনি আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতে অভিযান চালানো হয়। এসময় উল্লেখিত অনিয়ম ও অপরাধে রসমেলা ফুড প্রোডক্টস লি. ও যমুনা বেকারি থেকে চার জনকে আটক করা হয় ও মোট ৩১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

পলাশ কুমার বসু জানান, অভিযানে ওই দুই প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দেখা যায়, তাদের উৎপাদিত পণ্যের কোনোটিতেই ব্যাচ নম্বর, মার্ক ও উৎপাদন এবং মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ নেই। তাই নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ এর একাধিক ধারায় রসমেলা ফুড প্রোডক্টস লিমিটেডের মালিক হাসান আলীর ১৩ লাখ জরিমানা করা হয় এবং কারখানাটি সিলগালা করা হয়। এছাড়া ওই প্রতিষ্ঠান থেকে সাইফুল, মিলন কান্তি, ফজলুল করিম নামে তিন ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

অপরদিকে একই অপরাধে যমুনা বেকারির মালিক মো. সোহেলের ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি থেকে ৪ হাজার ৫শ কেজি বিভিন্ন ধরনের বিস্কুট জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে এবং কারখানা সিলগালা করা হয়। মো. আলাউদ্দিন নামে এক ব্যক্তিকে এখান থেকে আটক করেছে র‌্যাব।

এরপর সন্ধ্যার দিকে সনি আইসক্রিম নামে অপর এক প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। এসময় প্রতিষ্ঠানটিতে ব্যবহৃত কাঁচামালের বৈধতা দেখাতে না পারা, বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা এবং নোংরা পরিবেশে উৎপাদনের দায়ে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুল আলমকে ৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানে র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মো. জুনায়েদ জাহেদীসহ র‌্যাব-৭ সদস্যরা ও জেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর এবং নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক অমলিন্দ ভান্ডার উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৭২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০০২ 
এসএইচডি /আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa