ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

রাতারগুলের ওয়াচ টাওয়ারে পর্যটক আরোহণ বন্ধ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
রাতারগুলের ওয়াচ টাওয়ারে পর্যটক আরোহণ বন্ধ রাতারগুল জলারবনে ওয়াচ টাওয়ার।

সিলেট: বাংলাদেশের একমাত্র সোয়াম্প ফরেস্ট সিলেটের গোয়ানাইঘাট উপজেলায় অবস্থিত রাতারগুলের ওয়াচ টাওয়ারে পর্যটক আরোহণ বন্ধ করে দিয়েছে বন বিভাগ।

ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত টাওয়ারটিতে কোনো পর্যটক আরোহণ করতে পারবেন না।

পর্যটকদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে টাওয়ারে ওঠার প্রবেশপথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি প্রত্যেক গাইড ও নৌকার মাঝিদেরও বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন বন বিভাগ সিলেটের রাতারগুল বিট কর্মকর্তা আবদুল ওয়াদুদ।

তিনি বলেন, দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে এবং দুর্ঘটনা এড়াতে ওয়াচ টাওয়ার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আপাতত ওপরে ওঠার পথে বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে রাখা হয়েছে। এরইমধ্যে স্টিলের গেট তৈরির প্রস্তুতি চলছে। এটি প্রস্তুত হলে টাওয়ারে ওঠার পথ স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

এর আগে ২০১৪ সালে রাতারগুল জলারবনে পরিবেশকর্মীদের আপত্তি উপেক্ষা করে বন বিভাগ প্রায় ৯০ লাখ ৬২ হাজার টাকা ব্যয়ে ৫০ ফুট উঁচু ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ করে।  

সিলেট বন বিভাগের সারি রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার সাদ উদ্দিন বলেন, মূলত বন বিভাগের লোকজন টাওয়ারে দাঁড়িয়ে পুরো বন দেখার সুবিধার্থে এই টাওয়ার নির্মাণ করে। পরবর্তী সময়ে পর্যটকরা রাতারগুল এক পলকে দেখার জন্য টাওয়ারে আরোহণ করে এবং আগন্তকদের জন্য উন্মুক্ত ছিল। সম্প্রতি টাওয়ারটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। পরে টাওয়ারকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে দর্শনার্থীদের ওঠতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বন বিভাগ।  

তিনি বলেন, ওয়াচ টাওয়ারটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় আমরা পাঁচজনের বেশি দর্শনার্থী টাওয়ারে না ওঠার জন্য সাইনবোর্ড টানিয়েছিলাম। কিন্তু কেউই তা মানছেন না। পরে প্রকৌশলীদের সঙ্গে কথা বলে দর্শনার্থীদের টাওয়ারে ওঠা বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিই।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০/আপডেট: ১১০৫ ঘণ্টা
এনইউ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa