ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

জাতীয়

জাতীয় শোকদিবস পালনে এবার রাজশাহীতে ব্যাপক প্রস্তুতি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
জাতীয় শোকদিবস পালনে এবার রাজশাহীতে ব্যাপক প্রস্তুতি

রাজশাহী:  বৈশ্বিক মহামারি অর্থাৎ করোনা পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে জাতীয় শোকদিবস পালনের লক্ষ্যে এবার ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে শোকদিবস পালনের এ কর্মসূচির কথা জানানো হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে ১৫ আগস্ট স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদৎবার্ষিকী পালন হবে।

জাতীয় শোকদিবস পালনে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-১৫ আগস্ট সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হবে। ওই দিন সকাল ৮টায় শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামান মিলনায়তন চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অপর্ণ করা হবে।

সকাল ১০টায় শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামান মিলনায়তনে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১১টায় রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা শেষে ‘হে পিতা তোমায় নিয়ে কবিতা’ শিরোনামে আবৃত্তি অনুষ্ঠান ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

এদিকে, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, শিশু সদন ও সেফহোম, ছোটমনি নিবাস, শিশু বিকাশ কেন্দ্র, প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন স্কুল ও এতিমখানায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর আলোচনা সভা, হামদ-নাত পরিবেশন, মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। দিনটি উপলক্ষে বাদ যোহর মসজিদসমূহে বিশেষ মোনাজাত এবং মন্দির, গির্জা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে আলোচনা ও প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে।

তথ্য ও গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় মহানগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর ওপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হবে। এ দিন বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের রাজশাহী কার্যালয় বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করবে। দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে স্থানীয় সংবাদপত্রসমূহে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে।

এছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোকদিবসটি উপলক্ষে কবিতা আবৃত্তি, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, সমাজসেবা অধিদপ্তর, তথ্য ও গণযোগাযোগ অধিদপ্তর এবং উপজেলা প্রশাসন জাতীয় কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে স্ব-স্ব কর্মসূচি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
এসএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa